অধ্যক্ষের রুমে তালা দিয়ে শিক্ষকদের আন্দোলন - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

অধ্যক্ষের রুমে তালা দিয়ে শিক্ষকদের আন্দোলন

নীলফামারী প্রতিনিধি |

নীলফামারী সদরের ছমির উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজে অধ্যক্ষকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তার রুমে তালা দিয়ে কর্মসূচি পালন করছে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক-কর্মচারী। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) সকাল থেকে অধ্যক্ষ মেসবাহুল হকের অপসারণ দাবিতে ২য় দিনের মত অধ্যক্ষের রুমে তালা দিয়ে কর্মসূচি চালাচ্ছেন শিক্ষকরা। আন্দোলনকারী শিক্ষক-কর্মচারীরা জানান, ‘অবৈধ অধ্যক্ষকে অপসারণ না করা পর্যন্ত এ কর্মসূচী চলবে’। 

আন্দোলনকারী শিক্ষক কর্মচারীদের অভিযোগ, নীলফামারী ছমির উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজটি স্কুল শাখা এমপিও ও কলেজ শাখা নন এমপিও। ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দের ডিসেম্বর মাসে যোগদান করেন অধ্যক্ষ মেসবাহুল হক। তার এই যোগদানের সময় থেকেই তার নিয়োগ অবৈধ বলে অভিযোগ ছিল। আর যোগদানের পর থেকেই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের সাথে কারণে-অকারণে অধ্যক্ষ মেসবাহুল হক অসদাচরণ করে আসছেন। প্রতিষ্ঠানে যোগদানের পর হতে আর্থিক অনিয়ম দুর্নীতি করতে থাকেন। এছাড়াও তিনি প্রতিষ্ঠানের আয় অনিয়মতান্ত্রিকভাবে নিজের ইচ্ছামত ব্যয় করেন। শিক্ষকদের প্রয়োজনীয় ছুটির প্রয়োজন হলে সেখানেও তিনি নান রকম অজুহাতে দেখান।

শিক্ষকদের দাবি, ‘আমরা সব শিক্ষক-কর্মচারী অবৈধ অধ্যক্ষের কাছে বিভিন্ন হয়রানি ও হুমকি-ধামকি সহ্য করতে না পেরে বিষয়টি সমাধনের জন্য বিভিন্ন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করি। এতে করে অবৈধ অধ্যক্ষ আরও আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। তিনি নতুন করে আবারও শিক্ষক-কর্মচারীদের নামে মিথ্যা শোকজ ও বেতন বন্ধসহ চাকুরি থেকে বিতারিত করার হুমকি দেন। আমরা সব শিক্ষক-কর্মচারী তার এই অন্যায় অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে অভিযোগ দেই। এধরণের অভিযোগ দেওয়ার পর তিনি পুনরায় আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে বেতন ভাতাদি বন্ধসহ নানা ধরণের অন্যায় অত্যাচর শুরু করেন। আমরা সকল শিক্ষক কর্মচারী তার এই আচরণ সহ্য করতে না পেরে বাধ্য হয়ে তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে ১৩ জানুয়ারি সকালে অধ্যক্ষ রুমে তালা দেই। এদিন দুপুরে মানব বন্ধন কর্মসূচি পালন করেছি। বর্তমানে আমাদের এ কর্মসূচি চলছে। 

প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষকের পক্ষে সহকারী শিক্ষক মিজানুর রহমান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, আমাদের দাবি অবৈধ অধ্যক্ষকে অপসারণ করতে হবে। তার অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এই কর্মসূচী চলবে। 

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, বিষয়টি আমি অবগত আছি। আজ মঙ্গলবার দুপুরে বিদ্যালয়টি সরেজমিন পরিদর্শন করা হয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

জেএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে বিভ্রান্তি না ছড়ানোর আহ্বান শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের - dainik shiksha জেএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে বিভ্রান্তি না ছড়ানোর আহ্বান শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের স্কুল খুললে সীমিত পরিসরে পিইসি, অটোপাস নয় : গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha স্কুল খুললে সীমিত পরিসরে পিইসি, অটোপাস নয় : গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাতীয়করণ: ফের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সেলিম ভুইঁয়া, কর্মসূচির হুমকি - dainik shiksha জাতীয়করণ: ফের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সেলিম ভুইঁয়া, কর্মসূচির হুমকি একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে - dainik shiksha একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে please click here to view dainikshiksha website