please click here to view dainikshiksha website

অবশেষে বদলি হলেন শিক্ষা অধিদপ্তরের সেই পরিচালক

নিজস্ব প্রতিবেদক | আগস্ট ৫, ২০১৭ - ৪:২৫ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

জুনিয়র সহকর্মীর দাপট সইতে না পেরে স্বেচ্ছায় বদলি হয়েছেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ শাখার পরিচালক ড. মো: শফিকুল ইসলাম তালুকদার। তিনি মানিকগঞ্জের সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ পদে বদলি হয়েছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের জারি করা ২রা আগস্টের প্রজ্ঞাপনে বদলির খবর জানা গেছে।

অধিদপ্তরের একাধিক সূত্রমতে, বদলি হয়ে যাওয়ার আগে সেই ‘দুর্নীতিবাজ’ জুনিয়র সহকর্মী একই শাখার সহকারি পরিচালককে কারণ দর্শানোরে নোটিশ দিয়েছেন। গত বছর কথিত প্রশিক্ষণের জন্য দেড়কোটি টাকার কেনাকাটার হিসেব দিতে পারেনি ওই সহকারি পরিচালক।

তারা দুজনই বি সি এস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারভুক্ত সরকারি কলেজ শিক্ষক।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ২৫টি

  1. ভূপাল প্রামানিক, প্র:শি: নামুজা উচ্চ বি: & সেক্রেটারি, বা: প্রধান শিক্ষক সমিতি, বগুড়া সদর। 01711 515468 says:

    Oj….

  2. মোঃ হাবিবুর রহমান, অধ্যক্ষ পীরগাছা হাজী ছফের উদ্দিন আলিম মাদরাসা। says:

    ভাল এখন নির্বাসনে যাবে।

  3. A.uddin(H.M) says:

    সব জায়গায় তদারকি চাই,

  4. মোঃ হবিবর রহমান, প্রভাষক, বীরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ, দিনাজপুর says:

    ভাগ্যিস সাধুকে বনবাসে যেতে হয়নি।

  5. Md.Shaidur Rahman says:

    লাভ কি হল,যে দু্র্নিতি করল তিনি আছেন বহাল তরিয়তে

  6. জাহাংির আলাম says:

    might is right

  7. জাহাংির আলাম says:

    আপনার মন্তব্যvalo

  8. সুবোধ চন্দ্র দাস,সুকরিপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়,হবিগঞ্জ। says:

    উনার তো mpo বন্ধ হয়নি। তাকে শুধু বদলি করা হয়েছে।

  9. md.mahabur rahaman says:

    মানুষ এর বেচে থাকারজন্য কত টাকার দরকার হয়?একটু ভাবেন।আপনার পাপের ভাগ কেউ কি নিবে? শেষ জিবনে দেখার ও পাবেন না।

  10. anamika haq says:

    ai office er maddomey sontrash dhurnity ittadi proshroy pai. ami onek proman soho bolchi.
    …….namika haq.

  11. anamika haq says:

    ami jani ai montobboti prokash korar sahosh dainik shikhar nai.

  12. ভবানী কুমার রায় says:

    অধ্যক্ষ হয়ে এখন কলেজ ধংস করব।লাভহল কী ?শিক্ষা মন্ত্রী এখন বিচার করুন ।কোন শিক্ষক দূর নীতির সাথেজড়িত।এ ধরনের পোষা চামচাদের জন্ম আপনাদের হাতেই।অপমানিত হতে হয় সাধারণ শিক্ষক দের।স্য়ং বিচার করুন ।

  13. saidul haque says:

    প্রক্ষাপটে অন্যায়কারীরা অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী। এমনি হওয়া উচিৎ কি???

  14. হাফিজ আহম্মদ says:

    ভালো থাকা যায় না।

  15. মাসুদ হেলাল says:

    শিক্ষাসচিব মো: নজরুল ইসলাম খান? কস কি মমিন! কবে হইল, ক্যামনে?

  16. মোঃ আব্দুল জলিল says:

    শিক্ষা মন্ত্রী সাহেব ওখানে দেখার কি কেউ নেই?

  17. মোঃ সোহেল রানা, বড়ভিটা , নীলফামারী । says:

    আবারও প্রমানিত হল মিথ্যার জয় । সত্যের পরাজয়

  18. M A Hannan says:

    Manonia shikhha montri mahodoy ki balen ? Auboshoy Onar kholifa hole…………………..!

  19. মুহাম্মদ শোয়াইব says:

    কাকে বলবেন? যাকে বলবেন তিনিও তো কোনো না কোনো দুর্নীতিতে যুক্ত আছেন। তিনি যদি অন্যায়ের পক্ষ না নেন তাহলে তার করা পাপের কথাটিও প্রকাশ পেতে পারে! সেই ভয়ে অনেক সময় অন্যায়কারীর পক্ষ নিতে হয়। বিচার করতে হলে যে তাকে নিরাপরাদ ব্যক্তি হতে হবে? এখন তো সেই নিরাপাদ ব্যক্তিটি তো অপরাধের কাঠগড়ায়? তাহলে কে প্রমাণ করবে? আমরা যে চোরে চোরে মাশতুতে ভাই।

  20. তপন কুমার রায় says:

    কী আজব বিচার। দুর্নীতিবাজ ডিম পোলাও খাবে আর সৎ মানুষ খাবে শুটকী ভর্তা । এ কেমন প্রশাসন । ওদের মুখে যখন নীতি কথা শুনা যায় তখন কেমন জানি ব্যখাপ্প আ লাগে।

  21. পরমানন্দ ঢালী says:

    একঘেয়েমী,অলসতা,ফাঁকির প্রবনতা দুর করতে বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদেরও বদলীর প্রয়োজনীয়তা আছে।

  22. মুসফিকা চৌধুরী says:

    শিক্ষক রা এক মাসের অন্য মাসে পায় ।আর উনারা টাকার বাজনা বাজায়। আবার ডিজি তারিখ দেয় ব্যাংক এ, তানারা বলে টাকা আসলে MPO আসেনা MPO আসলে আবার টাকা আসেনা এই হল MPO ভুক্ত শিক্ষকদের কাহিনী । এতে সরকার কি বলবে!সবাই যা পায় শিক্ষক রা তা পায়না। এই উননত বাংলাদেশ।

আপনার মন্তব্য দিন