অস্বাভাবিক জরিমানা বাতিল চান সরকারি কলেজ শিক্ষকরা - কলেজ - Dainikshiksha

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়েরঅস্বাভাবিক জরিমানা বাতিল চান সরকারি কলেজ শিক্ষকরা

শফিকুল ইসলাম |

কোনো অন্যায় না করলেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্ত মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের গুণতে হবে দশ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা। প্রান্তিক শিক্ষার্থীদের ওপর এমন অস্বাভাবাবিক জরিমানা ধার্য্য করায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ওপর ক্ষুব্ধ হয়েছেন শিক্ষার্থীরা। সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ও সাধারণ শিক্ষকগণও তীব্র প্রতিবাদ করছেন। শিক্ষার্থীদের ওপর চাপিয়ে দেয়া অস্বাভাবিক জরিমানা বাতিল চেয়েছেন শিক্ষকরা। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বরাবর গণচিঠি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষগণ। বি সি এস সাধারণ শিক্ষা সমিতির নির্বাচিত সভাপতি ও রাজধানীর কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আই কে সেলিম উল্লা খোন্দকারের ডাকে সাড়া দিয়ে  ইতিমধ্যে কয়েকটি কলেজের অধ্যক্ষরা ই-মেইলে ভিসি বরাবর চিঠি পাঠিয়েছেন। সাধারণ শিক্ষকরাও ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এ সিদ্ধান্তকে তুঘলকি আখ্যা দিয়েছেন। প্রান্তিক শিক্ষার্থীদের পক্ষে না্না মন্তব্য করছেন তারা।  

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭ মের চিঠি বলা হয়, ২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষের পূর্বে মাস্টার্স (নিয়মিতি/প্রাইভেট) প্রোগ্রামে যে সব শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে এবং পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে এবং ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের পূর্বে মাস্টার্স (প্রফেশনাল) প্রোগ্রামে যেসব শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে এবং পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে তাদের জরিমানা বাবদ দশ হাজার টাকা ও ভর্তি বাতিল ফি বাবদ সাতশ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

আরও পড়ুন: ‘জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে শুধু পাস কোর্স থাকা উচিত’ (ভিডিও সাক্ষাৎকার)

অপর দিকে ২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষের পূর্বে মাস্টার্স (নিয়মিতি/প্রাইভেট) প্রোগ্রামে যে সকল শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে কিন্তু পরীক্ষায় অংশগ্রহণ  করেনি এবং ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের পূর্বে মাস্টার্স (প্রফেশনাল) প্রোগ্রামে যে সকল শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে কিন্তু পরীক্ষায় অংশগ্রহণ  করেনি তাদের জরিমানা বাবদ সাত হাজার পাঁচশত টাকা ও ভর্তি বাতিল ফি বাবদ  সাতশ টাকা পরিশোধ করতে হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এমন আদেশের প্রতিবাদে দেশের বিভিন্ন স্থানে শিক্ষার্থীরা মিছিল ও মানবন্ধন করেছেন। তারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ধার্যকরা জরিমানাকে অমানবিক আখ্যায়িত করেছেন। শিক্ষার্থীদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন সরকারি কলেজের শিক্ষকরাও।

বি সি এস সাধারণ শিক্ষা সমিতির সভাপতি  আইকে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার শুক্রবার দৈনিকশিক্ষাডটকমকে বলেন, “এই পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের আর্থিক অবস্থাটা আমরা জানি। তাছাড়া,  কেউ অন্যায় করলে জরিমানা হতে পারে। এখানে শিক্ষার্থীদের অন্যায় বা ভুলটা কোথায়? যদি ভুল করেও থাকে তবে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নামমাত্র টাকা জরিমানা করা যেতে পারে।”

আর পড়ুন: প্রসঙ্গঃ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান

শাহবাজ রিয়াদ ফেসবুকে মন্তব্য করেছেন, “অমানবিকতার চরম পর্যায়। আশাকরি  আপনাদের হস্তক্ষেপে সহনীয় হবে সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য।”

ইলিয়াস জালাল নামের একজন শিক্ষক মন্তব্য করেছেন, “বি সি এস সাধারণ শিক্ষা সমিতি সাধারণ শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ধন্যবাদ। অনেকে ভর্তি বাতিল করেছে তারপরও তাদেরকে জরিমানা করা হয়েছে সাত হাজার টাকার বেশি। গরীব ও পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের সরকার উপবৃত্তি দিয়ে সহযোগীতা করছে কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ধরণের সিদ্ধান্তে অনেকে ঝড়ে পড়বে। ভিসি স্যারকে অনুরোধ করবো এ সিদ্ধান্ত পূন:বিবেচনার জন্য।

আরও পড়ুন: অস্বাভাবিক জরিমানা বাতিল দাবিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

শাহেদ হাসিব লিখেছেন, “বাণিজ্য অতিমাত্রায়! নীলকরদের চেয়েও অত্যাচারী!”

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ বিদেশে থাকায় তার মতামত পাওয়া যায়নি। ভারপ্রাপ্ত ডিন (স্নাতকোত্তর শিক্ষা) অধ্যাপক মো: আনোয়ার হোসেন কোনো মন্তব্য করতে রাজী হননি।  

 

২১ থেকে ২৫ জুলাইয়ের এগ্রিকালচার ডিপ্লোমা পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ২১ থেকে ২৫ জুলাইয়ের এগ্রিকালচার ডিপ্লোমা পরীক্ষা স্থগিত একাদশে ভর্তিকৃতদের তালিকা নিশ্চয়ন ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে - dainik shiksha একাদশে ভর্তিকৃতদের তালিকা নিশ্চয়ন ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটির বিকল্প প্রয়োজন - dainik shiksha বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটির বিকল্প প্রয়োজন এমপিওভুক্ত হলেন আরও ৮০ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হলেন আরও ৮০ শিক্ষক একাদশে ভর্তিকৃতদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে - dainik shiksha একাদশে ভর্তিকৃতদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে স্কুল-কলেজ খোলা রেখে বন্যার্তদের আশ্রয় দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha স্কুল-কলেজ খোলা রেখে বন্যার্তদের আশ্রয় দেয়ার নির্দেশ শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website