আইপিএল আর হচ্ছে না এ বছর! - খেলাধুলা - দৈনিকশিক্ষা

আইপিএল আর হচ্ছে না এ বছর!

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউনে থাকবে পুরো ভারত। এর আগে একই তারিখ পর্যন্ত বাতিল করা হয়েছিল সকল সাধারণ ভিসা। ফলে আর কোনো পথ না দেখে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত পিছিয়ে দেয়া হয়েছিল এবারের আইপিএলের আসর।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে গতকাল অর্থাৎ ২৯ মার্চ থেকে শুরু হয়ে যেত আইপিএলের ১৩তম আসর। কিন্তু করোনার কারণে উদ্ভূত জরুরি পরিস্থিতিতে এখন, চলতি বছর আর আইপিএল হবে না বলেই জানাচ্ছে ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো।

আইপিএলের ব্যাপারে যেকোনো সিদ্ধান্তের জন্য সরকারের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় ছিল আয়োজকরা। কিন্তু বর্তমানে যে অবস্থায় দাঁড়িয়ে ভারত, তাতে আইপিএ আয়োজনের কথা ভাবাও বেশ কঠিনই বটে। তবু এখনও এ বিষয়ে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি আয়োজকরা।

তবে আইপিএল আয়োজকদের একটি সূত্র সরাসরি বলে দিয়েছেন, এ বছর আর আইপিএল হওয়া সম্ভব নয়। কারণ করোনা ভাইরাসের কারণে বলা হয়েছে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে, তার ওপরে স্টেডিয়ামে সবাই একত্রে খেলা দেখলে ঝুঁকি বাড়বে আরও বহুগুণে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ক্রিকট্র্যাকারকে সেই সূত্র বলেছে, ‘এ বছর আইপিএল হবে না। এটা এখন আগামী বছরই হতে পারে। আমরা সবাই জানি এখন দেশের কী অবস্থা। কেউই কোনো ঝুঁকি নিতে চায় না। স্টেডিয়ামে বসে নিশ্চয়ই সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা যাবে। তাই আইপিএল আগামী বছর করাই ভালো।’

সুত্রটি আরও জানিয়েছে, ‘এ বছর ভারতে খেলাধুলার কোনো বড় আসরই আয়োজিত হবে না। এ বিষয়ে সরকারের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা খুব শীঘ্রই আসবে বলে জানাচ্ছেন তিনি, এবছর কোনো বড় আসরই হবে না। সরকারের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত পাওয়ার পর আমরা ফ্র্যাঞ্চাইজিদেরও জানিয়ে দেব এ খবর। একই মৌসুম আগামী বছর অনুষ্ঠিত হবে।’

তার কথায় পরিষ্কার, এ বছর যেসব খেলোয়াড় নিয়ে যে যে দলে খেলার কথা ছিল, তারা আগামী বছর সেই দলেই খেলবেন। অর্থাৎ চলতি বছর আইপিএলের দলগঠনের জন্য কোনো নিলামও অনুষ্ঠিত হবে না। তবে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার অপেক্ষা করতেই হচ্ছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ৬ হাজার ৪১০ শিক্ষক - dainik shiksha উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ৬ হাজার ৪১০ শিক্ষক সরকারি স্কুলে ভর্তির নীতিমালা জারি - dainik shiksha সরকারি স্কুলে ভর্তির নীতিমালা জারি ‘সরকারিকরণের আদেশ জারির দিন থেকে শিক্ষকদের আর্থিক সুবিধা দেয়ার চেষ্টা চলছে’ - dainik shiksha ‘সরকারিকরণের আদেশ জারির দিন থেকে শিক্ষকদের আর্থিক সুবিধা দেয়ার চেষ্টা চলছে’ দুর্নীতিবাজ কর্মচারীরা ফিরে আসছে শিক্ষা ভবনে, মাদরাসা শাখার কাজ কি? - dainik shiksha দুর্নীতিবাজ কর্মচারীরা ফিরে আসছে শিক্ষা ভবনে, মাদরাসা শাখার কাজ কি? রিফাত হত্যা মামলা : মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি, খালাস ৪ - dainik shiksha রিফাত হত্যা মামলা : মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি, খালাস ৪ টাইমস্কেল পাওয়া অধিগ্রহণকৃত স্কুল শিক্ষকদের টাকা ফেরত নেয়ার কাজ শুরু - dainik shiksha টাইমস্কেল পাওয়া অধিগ্রহণকৃত স্কুল শিক্ষকদের টাকা ফেরত নেয়ার কাজ শুরু বিনা প্রয়োজনে কলেজ ক্যাম্পাসে জনসাধারণের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি - dainik shiksha বিনা প্রয়োজনে কলেজ ক্যাম্পাসে জনসাধারণের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি ক্যামব্রিয়ান কলেজের ভ্যাট ফাঁকি, গোয়েন্দাদের অভিযান - dainik shiksha ক্যামব্রিয়ান কলেজের ভ্যাট ফাঁকি, গোয়েন্দাদের অভিযান কোচিং ও পরীক্ষা নিয়ে সাংবাদিকদের যা জানাল মন্ত্রণালয় - dainik shiksha কোচিং ও পরীক্ষা নিয়ে সাংবাদিকদের যা জানাল মন্ত্রণালয় please click here to view dainikshiksha website