আত্মগোপনে থাকলেই বিদেশফেরতদের গ্রেফতার - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

আত্মগোপনে থাকলেই বিদেশফেরতদের গ্রেফতার

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

‘আমি সরকারি কর্মকর্তা। সরকারি সফরে নিউজিল্যান্ডে গিয়েছিলাম। এখন বাসায় কোয়ারেন্টিনে আছি। তবে পাসপোর্টের ঠিকানায় আমি নেই। এ কারণে আপনাকে জানালাম।’ মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) দুপুরে ঢাকার সবুজবাগ থানার ওসি মাহবুব আলমকে ফোন করে এসব কথা জানান এক ব্যক্তি। গতকাল সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত তিনিই ছিলেন একমাত্র ব্যক্তি, যিনি সবুজবাগ থানায় যোগাযোগ করে বিদেশ থেকে ফেরার তথ্য দিয়েছেন। জানতে চাইলে ওসি মাহবুব আলম বলেন, ‘কয়েক দিনে ১২ জনকে আমরা শনাক্ত করেছি। তাদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার বিষয়টিও নজরদারি করা হচ্ছে।’ বুধবার (২৫ মার্চ) কালের কণ্ঠ পত্রিকায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়। প্রতিবেদনটি লিখেছেন এস এম আজাদ।

প্রতিবেদনে আরও জানা যায়, এভাবে বিদেশফেরত ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তিদের শনাক্ত করার সামাজিক অনুসন্ধান ও প্রণোদনামূলক কাজ চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। গতকাল পুলিশ সদর দপ্তর থেকে একটি প্রেস নোট জারি করে গত ১ মার্চ থেকে যাঁরা বিদেশ থেকে ফিরেছেন এবং পাসপোর্টের ঠিকানায় থাকছেন না, তাঁদের স্থানীয় থানায় যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। এই নির্দেশনা না মানলে ‘সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন-২০১৮’সহ বিভিন্ন আইনে মামলা করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে। তবে গতকাল রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের অর্ধশতাধিক থানার ওসির সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এখনো স্বেচ্ছায় বিদেশফেরত ব্যক্তিরা পুলিশকে তথ্য দিচ্ছেন না। ঢাকার প্রতিটি থানায় গতকাল দু-একজন করে তথ্য দিয়েছেন। তবে প্রবাসী বেশি থাকা দেশের বিভিন্ন প্রান্তের থানাগুলোতে বিদেশফেরত ব্যক্তিরা কোনো তথ্য দিচ্ছেন না।

পুলিশ ও র‌্যাবের একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, চলতি মাসে দেশে ফেরা দুই লাখ ৭৮ হজার ২৭৩ ব্যক্তির মধ্যে কয়েক হাজার পাসপোর্টের ঠিকানায় নেই। তাঁরা পরিবর্তিত ঠিকানায় অনেকে হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন। আবার কেউ কেউ ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলাফেরা করছেন। তাঁদের শনাক্ত করতে বিশেষ কৌশলে মাঠে নেমেছে পুলিশ। যাঁরা অবস্থান জানান দিয়ে সতর্কভাবে থাকবেন, তাঁদের সহায়তা করবে পুলিশ। আর যাঁরা আত্মগোপনে থাকবেন, তাঁদের আলাদা করে দ্রুত সময়ের মধ্যে শনাক্ত করা হবে। এ ক্ষেত্রে পাসপোর্টের স্থায়ী ঠিকানার আত্মীয়-স্বজন, জাতীয় পরিচয়পত্র, ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও মোবাইল ফোন নাম্বার সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। দায়িত্বশীল পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, তদন্তে কোনোভাবেই আত্মগোপনে থাকতে পারবেন না বিদেশফেরত ব্যক্তিরা। মূলত কয়েক দিন তাঁদের সময় দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন।

গতকাল এক ভিডিও বার্তায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সবাইকে নিষেধাজ্ঞা মানার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘আপনারা আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করুন, সরকারিভাবে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে, আপনারা সেই নিষেধাজ্ঞা অক্ষরে অক্ষরে পালন করুন। আপনাদের সাময়িক কষ্ট হবে, কষ্ট হলেও এই জায়গা থেকে উত্তরণের আর কোনো উপায় নেই। আমরা সবাই মিলে একসঙ্গে প্রশাসনকে সহযোগিতা করব।’

গতকাল এক প্রেস নোটে পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি-মিডিয়া অ্যান্ড পিআর) সোহেল রানা বলেন, ‘উদ্ভূত পরিস্থিতিতে, ১ মার্চ ২০২০ হতে এ যাবৎ বিদেশফেরত সকল সম্মানিত প্রবাসী নাগরিককে তাঁদের বর্তমান অবস্থানের নিকটস্থ থানায় অতিসত্বর যোগাযোগ করে তাঁদের বর্তমান ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর জানাতে অনুরোধ করা হচ্ছে। অন্যথায়, তাঁদের বিরুদ্ধে সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন-২০১৮, বাংলাদেশ দণ্ডবিধি এবং প্রযোজ্য অন্যান্য আইনের উপযুক্ত ধারা মতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এমনকি প্রয়োজনে তাঁদের পাসপোর্ট রহিত করারও উদ্যোগ নেওয়া হবে। প্রবাসী ব্যক্তিগণের পক্ষে অন্য কেউ থানায় যোগাযোগ করে উক্ত প্রবাসী ব্যক্তি বা ব্যক্তিগণের অবস্থান ও ঠিকানা জানাতে পারবেন।’

রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন বন্দর দিয়ে ছয় লাখ ৬২ হাজার ২৭৯ জন বিদেশ থেকে দেশে এসেছেন। এর মধ্যে তিন লাখ ২১ হাজার ৯৮৯ জন তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে প্রবেশ করেন। গত ১ মার্চ থেকে গতকাল পর্যন্ত দুই লাখ ৭৮ হজার ২৭৩ প্রবাসী দেশে এসেছেন। গত সোমবার সকাল ৮টা থেকে গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনার চরম আতঙ্কের মধ্যে তিন হাজার ৩০৮ জন বিদেশ থেকে দেশে এসেছেন। বিমানবন্দরে এঁদের সবার স্ক্যান করা হয়েছে। পুলিশ সূত্র জানায়, ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্টের তথ্যানুযায়ী বিদেশফেরতরা হোম কোয়ারেন্টিনে থাকছেন কি না তা যাচাই করা হচ্ছে। তবে সারা দেশে পাসপোর্টের ঠিকানায় কয়েক হাজার বিদেশফেরত ব্যক্তিকে পাওয়া যায়নি। একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘বিদেশফেরত কারো আত্মগোপনে থাকার সুযোগ নেই। কারণ তাঁদের আত্মীয়-স্বজন আছে। পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয়পত্র আছে। ফিঙ্গারপ্রিন্ট আছে। ফোন ব্যবহার করতে হবে। এখন থানায় যোগাযোগ করে নিজের ও সবার নিরাপত্তার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। না মানলে বিপদে পড়বেন তাঁরা।’

শরীয়তপুরের নড়িয়া থানার বহু মানুষ ইতালিসহ কয়েকটি দেশে প্রবাসী। গতকাল সন্ধ্যায় জানতে চাইলে ওই থানার ওসি হাফিজুর রহমান বলেন, ‘এখানে কেউই নিজে থেকে কোনো তথ্য দিচ্ছে না। আমরা তথ্য বের করেছি, দুই হাজার ১২ জন ইতালিসহ বিভিন্ন দেশ থেকে এসেছেন। এই থানার ৭০ হাজার প্রবাসী ইতালিসহ বিভিন্ন দেশে আছেন। এই দুই হাজার ১২ জনের কয়েকজন এলাকার বাইরে। বাকিদের আমরা শনাক্ত করে ঘরে থাকতে বলছি।’

ঢাকার হাজারীবাগ থানার ওসি ইকরাম আলী মিয়া বলেন, ‘এখনো কোনো প্রবাসী বা বিদেশফেরত ব্যক্তি আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। তবে নিজস্ব সোর্সের মাধ্যমে হাজারীবাগ থানা এলাকায় বিদেশ থেকে আসা ২০ জনের বেশি ব্যক্তিকে আমরা শনাক্ত করেছি। আমরা তাঁদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বাসায় থাকতে হবে বলেছি। তাঁদের পর্যবেক্ষণে রাখা হচ্ছে।’

বনানী থানার ওসি নূরে আজম মিয়া জানান, গতকালই তিনটি ফোন পেয়েছেন তিনি। তিনজন জানান, তাঁদের একজন সিঙ্গাপুর, একজন ভারত ও একজন শ্রীলঙ্কা থেকে এক সপ্তাহ আগে দেশে আসেন। তাঁদের নিরাপদে ঘরেই থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানান ওসি।

উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি তপন কুমার সাহা বলেন, ‘আজকে (গতকাল) দুজন আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। তাঁদের একজন মালয়েশিয়া, অন্যজন অস্ট্রেলিয়া থেকে এসেছেন। তবে তাঁরা এ মাসে এলেও ১৪ দিনের বেশি হয়েছে। তবু তাঁদের সাবধানে থাকতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এর আগেও আমরা কয়েকজন বিদেশফেরতের ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহ করেছি। তাঁদের নিজ বাসায় হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।’

প্রাথমিক শিক্ষকরা মার্চের বেতন সময়মতোই পাবেন - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষকরা মার্চের বেতন সময়মতোই পাবেন করোনায় দেশে নতুন কেউ আক্রান্ত হয়নি : আইইডিসিআর - dainik shiksha করোনায় দেশে নতুন কেউ আক্রান্ত হয়নি : আইইডিসিআর টিভিতে পাঠদান: সারাদেশের শিক্ষকরাই সুযোগ পাবেন - dainik shiksha টিভিতে পাঠদান: সারাদেশের শিক্ষকরাই সুযোগ পাবেন করোনা সন্দেহ হলে যা করতে হবে - dainik shiksha করোনা সন্দেহ হলে যা করতে হবে ক্ষমা চেয়ে রেহাই পেলেন ‘লাল চা’ খাওয়ার গুজব ছড়ানো সেই শিক্ষক - dainik shiksha ক্ষমা চেয়ে রেহাই পেলেন ‘লাল চা’ খাওয়ার গুজব ছড়ানো সেই শিক্ষক কান ধরে দাঁড় করানো সেই প্রবীণদের কাছে ক্ষমা চাইলেন ইউএনও - dainik shiksha কান ধরে দাঁড় করানো সেই প্রবীণদের কাছে ক্ষমা চাইলেন ইউএনও কান ধরিয়ে উঠবস করানো সেই নারী এসিল্যান্ডকে প্রত্যাহার - dainik shiksha কান ধরিয়ে উঠবস করানো সেই নারী এসিল্যান্ডকে প্রত্যাহার সংসদ টেলিভিশনের ক্লাস রুটিন দেখুন - dainik shiksha সংসদ টেলিভিশনের ক্লাস রুটিন দেখুন টিভিতে পাঠদান: বাড়ির কাজের প্রাপ্ত নম্বরেই হবে ধারাবাহিক মূল্যায়ন - dainik shiksha টিভিতে পাঠদান: বাড়ির কাজের প্রাপ্ত নম্বরেই হবে ধারাবাহিক মূল্যায়ন বরখাস্ত আদেশ প্রত্যাহার দাবি : শিক্ষা ক্যাডারে তীব্র প্রতিক্রিয়া - dainik shiksha বরখাস্ত আদেশ প্রত্যাহার দাবি : শিক্ষা ক্যাডারে তীব্র প্রতিক্রিয়া শক্তিশালী হয়ে উঠেছে করোনা, আক্রান্ত মানুষের শরীরে নেই কোনও লক্ষণ : গবেষণা - dainik shiksha শক্তিশালী হয়ে উঠেছে করোনা, আক্রান্ত মানুষের শরীরে নেই কোনও লক্ষণ : গবেষণা পুলিশ সদস্যদের বিনয়ী ও পেশাদার আচরণ করার নির্দেশ - dainik shiksha পুলিশ সদস্যদের বিনয়ী ও পেশাদার আচরণ করার নির্দেশ ২৯ মার্চ থেকে সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের পাঠদান শুরু - dainik shiksha ২৯ মার্চ থেকে সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের পাঠদান শুরু আরও ১ হাজার স্কুল স্থাপনের উদ্যোগ - dainik shiksha আরও ১ হাজার স্কুল স্থাপনের উদ্যোগ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website