আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারের তালিকায় মুনঈম সাগর - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারের তালিকায় মুনঈম সাগর

বরগুনা প্রতিনিধি |

আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার-২০২০ এর চূড়ান্ত তালিকায় স্থান পেয়েছেন ১৬ বছর বয়সী বরগুনার এম.এ মুন্ঈম সাগর। ৪২টি দেশের ৪২ জন শিশুর মধ্যে এ তালিকায় স্থান পাওয়া একমাত্র বাংলাদেশি মুনঈম সাগর।

সামাজিক উন্নয়ন, সমাজের পরিবর্তন, শিশু অধিকার, দারিদ্রতা দূরীকরণ এবং ক্ষুধা নিবারণসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য এ পুরস্কার দেবে নেদারল্যান্ডের কিডস রাইটস ফাউন্ডেশন নামের একটি সংস্থা।

প্রাথমিকভাবে ১৮৬টি দেশের পাঁচ শতাধিক শিশু কিশোরকে এ পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়। এরপর পর্যায়ক্রমে বাছাই করে মনোনীত করা হয় ৮৬ জনকে। সেখান থেকে চূড়ান্ত পর্যায়ে ৪২ জনকে এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে। সেখান থেকে একক কিংবা যৌথভাবে এ পুরস্কার ঘোষণা করা হবে আগামী ১৩ নভেম্বর। এ পুরস্কার ঘোষণার জন্য অনলাইনে ভোট গ্রহণও শুরু করেছে সংস্থাটি।

তাই এম.এ মুনঈম সাগরকে ভোট দিতে চাইলে #ChildrensPeacePrize লিখে https://kidsrights.org/persons/munim এ লেখাটি শুধুমাত্র পোস্ট করতে হবে। এক একটি পোস্টের জন্য মুনঈম সাগরের পক্ষে একটি করে ভোট জমা হবে। এদিকে মুনঈম সাগরের পক্ষে প্রচারণার মাধ্যমে ভোট সংগ্রহের জন্য উদ্যোগ নিয়েছে বরগুনা প্রেসক্লাব।

মুনঈম সাগর বরগুনা পৌরসভার কলেজ রোডের মুসলিম পাড়া এলাকার বাসিন্দা। তার বাবার নাম শাহ্ মো. হুমায়ুন সগির এবং মায়ের নাম মনিরা বেগম। তার বাবা-মা উভয়ই সরকারি চাকরিজীবী। বরগুনা জিলা স্কুলের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া মুনঈম সাগর বর্তমানে অধ্যায়নরত আছেন ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণিতে।

জাতীয় সেরা সমাজকর্মী স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ড এবং জাতীয় সেরা স্কাউট মোটিভেটর অ্যাওয়ার্ডসহ ইতোমধ্যেই ১৫টি জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন মুনঈম সাগর।  

এর আগে, মুনঈম তার এই কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ জাপান সরকারের ‘সেভেন মিতসুবিসি জাপান এএনআইকেকেআই ফেস্ট বেস্ট ক্রিয়েটিভ অ্যায়ার্ড-জাপান সরকার ২০১৩’ এবং বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় সেরা সমাজকর্মী-২০১৭, বেস্ট স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ড-২০১৭, জাতীয় সেরা স্কাউট মোটিভেটর অ্যাওয়ার্ড-২০১৬ পুরস্কারের মতো ১৫টি জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন।
 
মুনঈম সাগরের বাবা শাহ্ হুমায়ুন সগির বলেন, ছোটবেলা থেকেই মুনঈম মানুষের প্রতি দরদী ছিল। অসহায় শিশুদের দেখলে তাদের সহযোগিতার জন্য এগিয়ে যেত। এখনও শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করে। তারই স্বীকৃতি স্বরূপ আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারে জন্য মনোনীত হয়েছে। সবাই আমার ছেলের জন্য দোয়া করবেন- যাতে আমার ছেলে বিজয়ী হতে পারে।

এ বিষয়ে বরগুনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর সালেহ বলেন, আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার-২০২০ এর চূড়ান্ত পর্যায়ে থাকা এম.এ মুন্ঈম সাগর আমাদের গর্বিত করেছে। তার জন্য গর্বিত হয়েছে পুরো বাংলাদেশ। আমাদের প্রত্যাশা এ বছর আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হবেন মুনঈম সাগর। তাই আমরা তার পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে ভোট সংগ্রহের উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। এজন্য দেশের সকল সরকারি বে-সরকারি প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

এ বিষয়ে মুনঈম সাগর বলেন, কঠিন পরিশ্রম আর সবার সহযোগিতা এবং ভালবাসায় আজ এ পর্যায়ে এসেছি আমি। এই পুরস্কারের জন্য আপনাদের প্রার্থনা আর একটি ভোট আমাকে চূড়ান্তভাবে মনোনীত করতে পারে। তাই একটি পোস্টের মাধ্যমে আমাকে ভোট দেওয়ার অনুরোধ করছি সবাইকে।

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের আবেদন করবেন যেভাবে - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের আবেদন করবেন যেভাবে স্কুল শিক্ষার্থীদের প্রমোশন: সরকারের সিদ্ধান্ত জানা যাবে কাল - dainik shiksha স্কুল শিক্ষার্থীদের প্রমোশন: সরকারের সিদ্ধান্ত জানা যাবে কাল প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের আবেদন শুরু ২৫ অক্টোবর - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের আবেদন শুরু ২৫ অক্টোবর অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত বাতিল চায় ছাত্র ফ্রন্ট - dainik shiksha অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত বাতিল চায় ছাত্র ফ্রন্ট দাখিলের রেজিস্ট্রেশন নবায়ন শুরু - dainik shiksha দাখিলের রেজিস্ট্রেশন নবায়ন শুরু প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে প্রতারণা: আদালতে শিক্ষা ভবনের কর্মকর্তা - dainik shiksha প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে প্রতারণা: আদালতে শিক্ষা ভবনের কর্মকর্তা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নতুন ডিজি মনসুরুল আলম - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নতুন ডিজি মনসুরুল আলম উচ্চমাধ্যমিকের উপবৃত্তি পেতে শিক্ষার্থীদের বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার সময় বাড়লো - dainik shiksha উচ্চমাধ্যমিকের উপবৃত্তি পেতে শিক্ষার্থীদের বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার সময় বাড়লো ইএফটির মাধ্যমে শিক্ষকদের বেতন দিতে কাজ চলছে - dainik shiksha ইএফটির মাধ্যমে শিক্ষকদের বেতন দিতে কাজ চলছে please click here to view dainikshiksha website