আন্দোলনের মুখে জাবির সান্ধ্যকালীন কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha

আন্দোলনের মুখে জাবির সান্ধ্যকালীন কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত

জাবি প্রতিনিধি |

প্রগতিশীল ছাত্রজোটের আন্দোলনের মুখে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) রসায়ন বিভাগের সান্ধ্যকালীন  কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার (১৭ আগস্ট) সকাল ১০ টায় রসায়ন বিভাগের সান্ধ্যকালীন কোর্স ‘উইকেন্ড মাস্টার্স অব সায়েন্স ইন কেমিস্ট্রি ’ এর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এই ‘বাণিজ্যিক কোর্স’ বাতিলের দাবীতে ভর্তি পরীক্ষা প্রতিহতের ঘোষণা দেন জাবি প্রগতিশীল ছত্রজোট। পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে পরীক্ষা প্রতিহতের জন্য আজ সকাল ৯ টা থেকে বেলা সাড়ে ১১ টা পর্যন্ত বিভাগের সামনে অবস্থান নেন প্রগতিশীল জোটের নেতৃবৃন্দ। এই সময় রসায়ন বিভাগের শিক্ষক বা ভর্তিচ্ছু কাউকে দেখা যায় নি।  রসায়ন বিভাগের সান্ধ্যকালীন কোর্স কো-অর্ডিনেটর কৌশিক সাহা বলেন, ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে”। 

রসায়ন বিভাগের সভাপতি নূরুল অবছারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি পরীক্ষা স্থগিতের কারণ সম্পর্কে  কিছু বলতে রাজি হন নি। তবে তিনি বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষা  সময়মত হবে, সময় সুযোগ বুঝে আবার পরে পরীক্ষা নেওয়া হবে। তোমরা সাংবাদিকরা আমাদের বিরুদ্ধে লিখো তাই তোমাদের আর কিছু বলতে চাই না।’

 

 উল্লেখ্য, রসায়ন বিভাগের  সান্ধ্যকালীন কোর্স চালুর ঘোষণা দেওয়ার পর রসায়ন সংসদের নেতৃবৃন্দ এই কোর্স বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে নামে। কিন্তু বিভাগ  কোর্স চালুর ব্যাপারে অনড় থাকে। এরই প্রেক্ষিতে প্রগতিশীল জোট ১৬ আগস্টের মধ্যে কোর্স বাতিল না করলে ১৭ আগস্টের ভর্তি পরীক্ষা প্রতিহতের ঘোষণা দেন। 

এদিকে রসায়ন বিভাগের পর বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান সকল ধরনের সান্ধ্যকালিন বানিজ্যিক কোর্স প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছে জাবি প্রগতিশীল ছাত্রজোট। আজকের কর্মসূচি শেষে সংবাদ সম্মেলনে তারা এই ঘোষণা দেন। প্রগতিশীল ছাত্রজোটের অন্যতম সমন্বয়ক ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সভাপতি নজির আমিন চৌধুরী বলেন, আমাদের আজকের কর্মসূচি সফল। তবে রসায়ন বিভাগ পরবর্তীতে আবার পরীক্ষা নেওয়ার চেষ্টা করলে তাও প্রতিহত করা হবে। সেই সাথে অন্যান্য বিভাগে সান্ধ্যকালীন কোর্সের চলমান কোর্স শেষে আর  কোন ভর্তি বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে তাও প্রতিহত করা হবে। 

‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে কল্যাণ ট্রাস্টের প্রাথমিক তহবিলের এক কোটি টাকার হদিস নেই - dainik shiksha কল্যাণ ট্রাস্টের প্রাথমিক তহবিলের এক কোটি টাকার হদিস নেই এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে সরকারিকৃত ২৯৯ কলেজে পদ সৃজনে সংশোধিত তথ্য ছক প্রকাশ - dainik shiksha সরকারিকৃত ২৯৯ কলেজে পদ সৃজনে সংশোধিত তথ্য ছক প্রকাশ কল্যাণ ট্রাস্টের ৪০ কোটি টাকা এফডিআর করা হয়নি - dainik shiksha কল্যাণ ট্রাস্টের ৪০ কোটি টাকা এফডিআর করা হয়নি আদর্শ না শেখালে সন্তানদের হাতে বাবা-মাও নিরাপদ নন: গণপূর্তমন্ত্রী - dainik shiksha আদর্শ না শেখালে সন্তানদের হাতে বাবা-মাও নিরাপদ নন: গণপূর্তমন্ত্রী চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি নীতিমালা জারি - dainik shiksha কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি নীতিমালা জারি একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে প্রাথমিকের ৪২৭ শিক্ষকের বদলি - dainik shiksha প্রাথমিকের ৪২৭ শিক্ষকের বদলি সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website