ইংরেজি কেন শিখব কীভাবে শিখব ।। চতুর্থ পর্ব - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ইংরেজি কেন শিখব কীভাবে শিখব ।। চতুর্থ পর্ব

মাছুম বিল্লাহ |

কথোপকথন যে কোনো ভাষায় মনের ভাব প্রকাশ করার একটি বাস্তব মাধ্যম। কথোপকথনের মধ্যে আমরা দুজন ব্যক্তির বাস্তব জীবনে ঘটে যাওয়া বিষয় কিংবা  নিত্য-জীবনের  প্রতিফলন দেখতে পাই। শ্রেণিকক্ষে শিক্ষাদানও একটি উত্তম কথোপকথন। শিক্ষক ও শিক্ষার্থী সেখানে মনের ভাব, বিভিন্ন কৌশল, কীভাবে প্রশ্ন করতে হয়, কীভাবে উত্তর দিতে  হয় সেগুলো প্রকাশ করে। 

একজন শিক্ষার্থী হিসেবে তুমি যদি বিভিন্ন ধরনের সিচুয়েশনাল অর্থাৎ শ্রেণিকক্ষে, দোকানে, বাজারে, হাসপাতালে, ব্যাংকে (এগুলো সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান) কী ধরনের কথোপকথন ব্যবহৃত হয় সেগুলো অনুসরণ করতে পার এবং নিজে আওড়াতে ও বলতে পার তাহলে কিন্তু ভাষা শিক্ষা অনেকটাই হয়ে গেছে। মনে রাখবে তুমি কিন্তু এসব জায়গায় কীভাবে ভাষা ব্যবহার করতে হয় সে জন্যই ইংরেজি শিখেছিলে। এই বিষয়গুলো অর্থাৎ এসব স্থানে ব্যবহৃত কথা যদি কোনো বই থেকে প্রথমে আয়ত্ত করতে পার সেটিই কিন্তু তোমার আসল ভাষা শিক্ষা। তুমি স্বার্থক ভাষা ব্যবহারকারী। তুমি যদি গ্রামারের জটিল বিষয়গুলো এ পর্যায়ে না জানো তাতে ক্ষতি নেই। এ নিয়ে দুঃশ্চিন্তা করবে না। Causative Verb কী, কাকে বলে ইত্যাদি বিষয় নিয়ে অনেকে চিন্তা করে এবং ভাবে এগুলো না জানলে বোধ হয় তাদের ইংরেজি শেখা হলো না। বিষয়টি আসলে তা নয়। গ্রামারের একটি টপিক নিয়ে তোমার ভাষা নয়। ভাষার ব্যাপ্তি বিশাল।

একটি কথোপকথনের মধ্যে Present Tense, Past Tense, Future Tense সবই ব্যবহৃত হয়, বিভিন্ন ধরনের বাক্য (Interrogative, Assertive, Affirmative) ব্যবহৃত হয়। এগুলো প্র্যাকটিস করে করে তুমি এসব গ্রামারের বাস্তব প্রয়োগ আয়ত্ত করতে পার। ইংরেজি শেখার ক্ষেত্রে ইংরেজি দৈনিক এক গুরুত্বপূর্ণ  ভূমিকা পালন করতে পারে যদি তুমি সেটিকে ব্যবহার কর। আমরা জানি, একটি দৈনিক পত্রিকা আমাদের চারপাশে এবং বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো নিয়ে আমাদের সামনে হাজির হয় অর্থাৎ এটি একটি ‘লিভিং ডকুমেন্ট’ বা জীবন্ত দলিল।

আরও পড়ুন: ইংরেজি কেন শিখব কীভাবে শিখব ।। তৃতীয় পর্ব

তুমি আর একটু সিরিয়াস হলে রেডিও ও টিভির সংবাদ শোনো, সংবাদের বিশ্লেষণ শোনো। প্রথম দিকে শুধু বাংলায়, এরপর ইংরেজি পত্রিকা পড়। দেশের সংবাদগুলো এবং বিদেশের সংবাদগুলো। তুমি  বিষয়গুলো যেহেতু রেডিও টিভিতে শুনেছ, একই বিষয়গুলো ইংরেজিতে লেখা পত্রিকায় দেখেছ ও পড়েছ তাই কোনো বিষয় সম্পর্কে তোমার দুটো ভাষাতেই স্পষ্ট ধারণা হবে। যদি আরও সহজে বুঝতে চাও, মিলাতে চাও তাহলে সাথে একটি বাংলা ও একটি ইংরেজি পত্রিকা পাশাপাশি রাখবে। দুটোই পড়বে। দেখবে পানির মতো স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে তোমার কাছে ইংরেজি সংবাদপত্রে যা যা লেখা আছে সেগুলো। তোমাকে আলাদা ডিকশনারি দেখার ঝামেলায় পড়তে হবে না, কোচিং সেন্টারে যেতে হবে না। 

আরও পড়ুন: ইংরেজি কেন শিখব কীভাবে শিখব ।। দ্বিতীয় পর্ব

বাক্য গঠনের ক্ষেত্রে ইংরেজিতে যে বিষয়টি মূল বা ব্যাসিক তা হচ্ছে subject, verb, object এবং extension বা বাক্যের বর্ধিতাংশ। একটু সচেতন শিক্ষার্থী এ বিষয়গুলো জানে এবং গ্রামার বই থেকে আয়ত্ত করতে পারে। সমস্যা হয়ে যায়, সাবজেক্ট বলতে তারা শুধু, শমির, কবির, হেলাল ইত্যাদি নামই বুঝে থাকে। একগুচ্ছ শব্দ, একটি বড় বাক্যের একটি অংশ (ফ্রেইজ) ও একটি বাক্যের সাবজেক্ট হতে পারে, শিক্ষার্থীরা সাধারণত গ্রামার বই থেকে কিংবা ক্লাসরুমে এই ধরনের উদাহরণের প্র্যাকটিস করে না। ফ্রেইজ ও ক্লজ (Phrase ও Clause) পড়ার সময় সচেতন শিক্ষার্থীরা বুঝে। কিন্তু বাস্তব জীবনে, দৈনন্দিন কথোপকথনে তা ব্যবহার করে না। কারণ বইয়ের উদাহরণে অনেক সময়ই আমাদের প্রতিদিন ব্যবহৃত বাক্যগুলো থাকে না। গৎবাঁধা কিছু উদাহরণ থাকে। যেমন টেন্স শেখানোর ক্ষেত্রে সারাজীবনই আমরা ‘ডাক্তার আসিবার পূর্বে রোগী মারা গেল বা ডাক্তার আসিবার পরে রোগী মারা গেল’ ধরনের উদাহরণ ব্যবহার করে থাকি। এগুলো আমাদের প্রতিদিনের অভিজ্ঞতা নয়। আর তাই গ্রামার বই পড়ে ইংরেজি শিখতে গেলে বাস্তব জীবনে ইংরেজি ব্যবহার করা হয়ে ওঠে না। বাস্তব জীবনে আমরা কান পেতে শুনি, মন দিয়ে বিশ্লেষণ করি। যেমন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন। সেখানে নারী প্রার্থী হিলারী ক্লিনটন কী বলছেন?

What Hillary Clinto said yesterday in her campaign is really interesting? 

চাকরিজীবী বা অন্য পেশাজীবীদের বলছি। বাংলাদেশে বর্তমানে ইউনিয়ন কাউন্সিলের নির্বাচন চলছে। আমাদের অনেকের আগ্রহ রয়েছে এলাকার নির্বাচনী হাওয়া কেমন চলছে তা জানার। কে নির্বাচিত হতে যাচ্ছে, কে হবে না ইত্যাদি। আপনি নিজেই বিষয়টি নিয়ে জড়িত কিংবা উত্তেজিত। এ বিষয়টি যদি আপনি ইংরেজি সংবাদপত্রে পড়েন তাহলে আপনি আপনার চিন্তা, ভাবনা, উদ্বিগ্নতা এবং এলাকার চিত্রের প্রতিফলন পাবেন। আর এর সাথে সাথে আপনার অজান্তেই আপনি জেনে যাচ্ছেন, আয়ত্ত করছেন ইংরেজির মতো একটি আন্তর্জাতিক ভাষা। পত্রিকা আপনি পড়ুন, আপনি পড়ে বন্ধু-বান্ধব, সহপাঠী, সহকর্মীদের (সম্ভব হলে, সুযোগ থাকলে) পড়ে শোনান। তাদের পড়তে বলুন, আপনি শুনুন। গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলো কয়েকবার লিখুন। 

আরও পড়ুন: ইংরেজি কেন শিখব কীভাবে শিখব ।। প্রথম পর্ব

যারা ইতোমধ্যে ইংরেজি ভাষাতে মোটামুটি দক্ষ তারা নিয়মিত কলামিস্টদের গভীর চিন্তা, তাদের নিজস্ব ভাবনা ও বিশ্লেষণধর্মী লেখাগুলো পড়ুন। এখানে আপনার বিভিন্ন বিষয়ের আগ্রহের বিষয়গুলো পাবেন। যেমন- শিক্ষা সংক্রান্ত, রাজনীতি, বিশ্বরাজনীতি, সামাজিক অনাচার, সাহিত্য, বিজ্ঞান, নারী শিক্ষা ইত্যাদি। যার যেখানে আগ্রহ, সেই আগ্রহের লেখাগুলো পড়ুন। আপনার হৃদয়ে গেঁথে থাকবে। আপনার ভাষাশৈলী হবে আরও উন্নত, আরও মার্জিত, আরও পরিমিত। 
চলবে.......

লেখক: শিক্ষা বিশেষজ্ঞ ও গবেষক, ব্র্যাক শিক্ষা কর্মসূচিতে কর্মরত 

প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি - dainik shiksha প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের - dainik shiksha ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? - dainik shiksha শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন - dainik shiksha ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না - dainik shiksha চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক - dainik shiksha হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প - dainik shiksha শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প please click here to view dainikshiksha website