please click here to view dainikshiksha website

ইডেন কলেজে কোর্স পরীক্ষা বাতিল হলেও টাকার পরীক্ষা চলবে!

নিজস্ব প্রতিবেদক | আগস্ট ১৭, ২০১৭ - ৯:০৩ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

ইডেন মহিলা কলেজের ২২টি বিভাগের বৃহস্পতিবারের কোর্স  ও টেস্ট পরীক্ষাসহ সব পরীক্ষা বাতিল করেছে  কর্তৃপক্ষ। তবে, ১৮ আগস্ট দুটি বেসরকারি ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা যথারীতি চলবে। হঠাৎ পরীক্ষা বাতিল হওয়ায় বিপাকে পড়েছে প্রায় আট হাজার ছাত্রী।

জানা যায়, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি ব্যাংক ও সংস্থার নিয়োগ পরীক্ষার কেন্দ্র হিসেবে ইডেন কলেজের ভেন্যু ব্যবহার হয়। পরীক্ষার্থী প্রতি  ২০০ থেকে ৪০০ টাকা পায় ইডেন কলেজ কর্তৃপক্ষ। এই টাকার এক কানাকড়িও সরকারি কোষাগারে জমা হয় না। পুরোটাই কলেজের অধ্যক্ষ ও অন্যান্যরা ভাগাভাগি করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এ্কাউন্টিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের এক ছাত্রী দৈনিকশিক্ষাডটকমকে জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটায় কলেজে আসার পর জানতে পারি আজই আটটার দিকে পরীক্ষা বাতিলের নোটিশ দেয়া হয়েছে। পরে জানতে পেয়েছি ২০শে আগস্ট আমাদের কলেজে একজন ভিভিআইপি আসবেন। তাই নিরাপত্তার কারণে আজকের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। আমার বিভাগের প্রায় তিনশ ছাত্রীর পরীক্ষা ছিল। প্রতিটি বিভাগেরই আড়াইশ থেকে তিনশ পরীক্ষার্থী বিপাকে পড়েছে। কারো প্রথম কোর্স ও ২য় কোর্স কারো আবার টেস্ট পরীক্ষা ছিলো।

অধ্যক্ষ ড. শামসুন্নাহারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।  

তবে, অপরাপর সূত্র জানায়, রাষ্ট্রের একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ২০শে আগস্ট  কলেজ ক্যাম্পাসের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষক দৈনিকশিক্ষাডটকমকে জানান, অনুষ্ঠানের দিনে অধিকসংখ্যক ছাত্রীর উপস্থিতি নিশ্চিত করতে শনিবার ও রোববারের পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করা হয়নি। শনিবারের পরীক্ষাগুলো স্থগিতের খবর শনিবার ভোরে এবং রোববারেরগুলো ওইদিনই নোটিশ দিয়ে স্থগিত ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ২টি

  1. মোঃ হবিবর রহমান, প্রভাষক, দিনাজপুর says:

    অধ্যক্ষদের অর্থলিপ্সা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। তা সে সরকারী হোক আর বেসরকারী কলেজ হোক। শিক্ষার্থীদেরকে পন্য বানিয়ে চলছে ব্যাবসা। কলেজের নিয়মিত পরীক্ষা বাদ দিয়ে অন্যের পরীক্ষার আয়োজন কখনোই যুক্তিসংগত হতে পারে না। গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি কলেজে এসে সুন্দর ক্লাস, সুষ্ঠু পরীক্ষা দেখবেন তাই তো হওয়ার কথা। কিন্তু হচ্ছেটা কি?

আপনার মন্তব্য দিন