ইনস্টাগ্রাম জন্মদিনের তথ্য কেন চাইছে? - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ইনস্টাগ্রাম জন্মদিনের তথ্য কেন চাইছে?

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

ইনস্টাগ্রামে নতুন সদস্যদের সঠিক জন্মতারিখ দিতে বলা হচ্ছে। অ্যাকাউন্ট তৈরির সময় জন্মতারিখ নিয়ে ব্যবহারকারীদের বয়স-উপযুক্ত অভিজ্ঞতা দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষের। ছবি শেয়ার করার প্ল্যাটফর্ম হিসেবে ইনস্টাগ্রামে অ্যাকাউন্ট খুলতে বয়স কমপক্ষে ১৩ বছর প্রয়োজন হয়।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, জন্মতারিখ হাতে থাকলে শিশুদের ক্ষেত্রে বয়স উপযোগী বিজ্ঞাপন দেখানোর ক্ষেত্রে বিড়ম্বনায় পড়তে হবে না। এর পেছনে শুধু বিজ্ঞাপন দেখানোর বিষয়টি যুক্ত নেই বলে জানিয়েছে ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষ।

ইনস্টাগ্রামের এক ব্লগ পোস্টে বলা হয়, বয়স জানা থাকলে কম বয়সীদের ইনস্টাগ্রামে যুক্ত হওয়া ঠেকানো যাবে। এ ছাড়া কম বয়সীদের নিরাপদে রাখা ও বয়স উপযোগী অভিজ্ঞতা দেওয়ার সুযোগ তৈরি হবে। এ ক্ষেত্রে প্রাইভেসি সেটিংস, অ্যাকাউন্ট নিয়ন্ত্রণবিষয়ক শিক্ষামূলক বিভিন্ন বিষয় তৈরি করা যাবে।

অনলাইন জুয়া, অ্যালকোহল বা জন্মনিয়ন্ত্রণের বিজ্ঞাপনের মতো বিষয়গুলো শিশুদের দেখানো হবে না। এ ছাড়া ভবিষ্যতে অল্প বয়সীদের ক্ষেত্রে আরও বেশি প্রাইভেসি সেটিংস ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করবে তারা। অবশ্য ইনস্টাগ্রামে আপাতত যে জন্মতারিখ দেওয়া হবে, তা যাচাই করা হবে না।

ইনস্টাগ্রামের এ পরিকল্পনার বিষয়টি সমালোচনা করে শিশু সুরক্ষার দাতব্য প্রতিষ্ঠান এনএসপিসিসির এক বিবৃতিতে বলা হয়, যাচাই ছাড়া কারও জন্মতারিখ দিতে বলা হলে শিশুদের সুরক্ষার জন্য প্রকৃতপক্ষে কিছুই করা হবে না। শিশুদের সামনে ক্ষতিকর কনটেন্ট প্রদর্শিত হবে।

ইনস্টাগ্রামের নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান ফেসবুক বলেছে, প্রত্যেকে তার প্রকৃত জন্মতারিখ দেবে না, এটা আমরা বুঝি। তবে কীভাবে মানুষের প্রকৃত জন্মতারিখ সংগ্রহ ও যাচাই করা যায়, তা নিয়ে কাজ চলছে।

ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে ১৩ বছর বয়সের কম বয়সী অনেক ব্যবহারকারী রয়েছে। বিষয়টি ঠেকাতে তাদের ব্যর্থতার জন্য সমালোচনাও হচ্ছে।

জাতীয়করণ: ফের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সেলিম ভুইঁয়া, কর্মসূচির হুমকি - dainik shiksha জাতীয়করণ: ফের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সেলিম ভুইঁয়া, কর্মসূচির হুমকি একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে - dainik shiksha একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে please click here to view dainikshiksha website