ইবির নিয়োগ বোর্ডের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha

ইবির নিয়োগ বোর্ডের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট

ইবি প্রতিনিধি |

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) গণিত বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে প্রশাসনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করেছে এক প্রার্থী। রিটের প্রেক্ষিতে বুধবার (৫ ডিসেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারীকে উকিল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘আমারা একটি উকিল নোটিশ পেয়েছি। শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) সিন্ডিকেটে বোর্ডের বিষয়টি উত্থাপিত হবে। তবে হাইকোর্ট থেকে নির্দিষ্ট কোনো নির্দেশনা না পাওয়ায় কার্যক্রম চালাতে আইনি কোনো বাধা নেই। উচ্চ আদালত কোনো নির্দেশনা দিলে সেটা অবশ্যই মানা হবে।’

জানা যায়, ২০১৫ সালের ২২ নভেম্বর দুই জন (একজন প্রভাষক এবং সহযোগী অধ্যাপক) শিক্ষক চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিজ্ঞাপিত পদের বিপরীতে চলতি বছরের ৩০ নভেম্বর গণিত বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড (লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা) অনুষ্ঠিত হয়।

নিয়োগ বোর্ডে প্রার্থীদের মৌলিক অধিকার লঙ্ঘন হয়েছে বলে অভিযোগ আনেন রোকনুজ্জামান নামে এক প্রার্থী। এর প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) রোকনুজ্জামানের হয়ে সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট মো. ইসমাইল হোসাইন বাংলাদেশ সংবিধানের ১০২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী হাইকোর্টে রিট করেন। তার দায়ের করা রিট নম্বর ১৫১৮৭।

রোকনুজ্জামান মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর থানাধীন জয়পুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে। রিট সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘২০১৫ সালের ওই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে যে প্রক্রিয়ায় নিয়োগ বোর্ড অনুষ্ঠিত হাওয়ার কথা ছিল সেই প্রক্রিয়ায় অনুষ্ঠিত হয়নি। ফলে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেওয়া প্রার্থীদের মৌলিক অধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে।’

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ওই সময় বিজ্ঞাপিত দু’টি পদের বিপরীতে মোট ৮৬ জন প্রার্থী আবেদন করেন। কিন্তু প্ল্যানিং কমিটির সুপারিশ ছাড়াই ত্রুটিপূর্ণভাবে নিয়োগ বোর্ড গঠনের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করে ওই বিভাগের এক শিক্ষক। যার ফলে ওই নিয়োগ বোর্ড সম্পন্ন করতে পারেনি তৎকালীন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসক।

তবে কয়েকদিন আগে মামলা সুরাহা না করে তড়িঘড়ি করে নিয়োগ বোর্ডের তারিখ ও সময় নির্ধারণ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গত ৩০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত নিয়োগ বোর্ডে ২৪ জন প্রার্থী লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন। এতে মোট নয়জন প্রার্থী কৃতকার্য হয়। পরে ওই নয়জনের মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৪৩তম সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হবে। সিন্ডিকেটে ওই বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ চূড়ান্ত করা হবে।

এমএ পাস ওসি দিচ্ছেন এসএসসি পরীক্ষা - dainik shiksha এমএ পাস ওসি দিচ্ছেন এসএসসি পরীক্ষা ভাষার জন্য মৃত্যুকে আলিঙ্গন করতে চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু: শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha ভাষার জন্য মৃত্যুকে আলিঙ্গন করতে চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু: শিক্ষা উপমন্ত্রী স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ১৪ মার্চ - dainik shiksha স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন ১৪ মার্চ এমপিওভুক্তির নামে প্রতারণা, মন্ত্রণালয়ের গণবিজ্ঞপ্তি - dainik shiksha এমপিওভুক্তির নামে প্রতারণা, মন্ত্রণালয়ের গণবিজ্ঞপ্তি ফল পরিবর্তনের চার ‘গ্যারান্টিদাতা’ গ্রেফতার - dainik shiksha ফল পরিবর্তনের চার ‘গ্যারান্টিদাতা’ গ্রেফতার প্রাথমিকে সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড প্রার্থীদের ২০ শতাংশ কোটা - dainik shiksha প্রাথমিকে সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ড প্রার্থীদের ২০ শতাংশ কোটা ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু - dainik shiksha ১৮২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ - dainik shiksha প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website