ইবির ভর্তি পরীক্ষার ফলে অসঙ্গতি, চ্যালেঞ্জ করে মেধা তালিকায় অষ্টম - ভর্তি - দৈনিকশিক্ষা

ইবির ভর্তি পরীক্ষার ফলে অসঙ্গতি, চ্যালেঞ্জ করে মেধা তালিকায় অষ্টম

ইবি প্রতিনিধি |

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ‘এ’ ইউনিটের ফলাফলে অসঙ্গতি পাওয়া গেছে। প্রথম প্রকাশিত ফলাফলে অকৃতকার্য হলেও পরবর্তী সময়ে চ্যালেঞ্জ করে মেধাতালিকায় ৮ম হয়েছেন মুহম্মদ আবু সাঈদ নামের এক ভর্তিচ্ছু। এছাড়া ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে মেধা তালিকায় স্থান পেয়েছে আরো ২ জন। ইউনিট সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. লোকমান হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, গত ৪ নভেম্বর ধর্মতত্ত্ব ও ইসলাম শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ১২ নভেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. হারুন-উর-রশিদ আসকারীর নিকট ফলাফল হস্তান্তর করেন ইউনিট সমন্বয়কারী। ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার পর আবু সাঈদ নামের এক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ‘ইসলামী ইউনিভার্সিটি এডমিশন হেল্পলাইন’ নামে ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করেন। পোস্টে তিনি বলেন, ‘বড় ভাইদের কাছে সাহায্য চাচ্ছি। আমি এমসিকিউতে ৪৫.৫ পেয়েছি কিন্তু লিখিততে ০ পেয়েছি। অথচ আমার হিসাব অনুযায়ী অন্তত ১০ পাওয়ার কথা যদিও ১৪ টি উত্তর নিশ্চিত। কি জন্য লিখিততে ০ আসতে পারে। এর কি কোন সমাধান আছে?’

পরবর্তী সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির পক্ষ থেকে ইউনিট সমন্বয়কারীকে বিষয়টি জানানো হয়। পুনরায় ফলাফল সংশোধন করে প্রকাশ করা হলে লিখিত পরীক্ষায় ১০ পেয়ে মেধাতলিকায় ৮ম হয় ঐ শিক্ষার্থী। সংশোধিত ফলাফলে মেধাতালিকায় স্থান পায় আরও ২ জন শিক্ষার্থী। ফল পুনরায় প্রকাশের পর সকল পরীক্ষার্থীদের নিকট ১৩ নভেম্বর সংশোধিত মেধাক্রম অনুযায়ী ক্ষুদে বার্তা পাঠানো হয়। এতে করে অধিকাংশের মেধাক্রম পূর্বের প্রকাশিত মেধা তালিকার থেকে দুই-তিন ধাপ করে পিছিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ‘এ’ ইউনিটের সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. লোকমান হোসেন দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, সাংবাদিকদের কাছ থেকে বিষয়টি জানার পর আমরা পুনরায় সকল খাতা মূল্যায়ন করি। পরে সংশোধিত রেজাল্টে মুহম্মদ আবু সাঈদসহ তিন জনের ফল পরিবর্তন হয়েছে এবং তাদেরকে মেধা তালিকায় যোগ করা হয়েছে। বিষয়টি টেকনিক্যাল ভুল ছিল। সবাইকে পুনরায় ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়ে তাদের মেধাক্রম জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

মাদরাসা শিক্ষকদের জুন মাসের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের জুন মাসের এমপিওর চেক ছাড় স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের জুনের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের জুনের এমপিওর চেক ছাড় শিক্ষার্থীর সংখ্যার ভিত্তিতে স্কুলের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর - dainik shiksha শিক্ষার্থীর সংখ্যার ভিত্তিতে স্কুলের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর আশ্রয়কেন্দ্র হিসাবে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha আশ্রয়কেন্দ্র হিসাবে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ তিন শিক্ষকের ডাবল এমপিও : দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষকে শোকজ - dainik shiksha তিন শিক্ষকের ডাবল এমপিও : দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষকে শোকজ দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত জটিলতার দ্রুত সমাধান চান এমপিওবঞ্চিত শিক্ষকরা - dainik shiksha জটিলতার দ্রুত সমাধান চান এমপিওবঞ্চিত শিক্ষকরা প্রভাষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরির অভিযোগ - dainik shiksha প্রভাষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরির অভিযোগ শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান - dainik shiksha শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক - dainik shiksha বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে - dainik shiksha শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website