এক বিদ্যালয়ে দুই প্রধান শিক্ষক! - স্কুল - Dainikshiksha

এক বিদ্যালয়ে দুই প্রধান শিক্ষক!

হালুয়াঘাট (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি |

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার জুগলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে মোছাঃ তাহমিনা খাতুন ও বনানী পাল নামে দুইজন দায়িত্ব পালন করে আসছেন। যে কারণে বিদ্যালয়ে লেখাপড়া বিঘ্নিত হচ্ছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ । 

সরেজমিনে দেখা যায়, জুগলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দাবিদার দুজনই আলাদা আলাদা শিক্ষক হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করে চলছেন। একইসাথে দুইজনই নিজেদেরকে বৈধ প্রধান শিক্ষক বলে দাবি করে আসছেন। কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। 

এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক তাহমিনা খাতুন জানান, গত ২৩ এপ্রিল অফিস আদেশে বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান  করি। 

অপর প্রধান শিক্ষক বনানী পাল বলেন, তিনিও অফিস আদেশে এই বিদ্যালয়ে গত ১২ মে যোগদান করেছেন। পরবর্তীতে দুইজনের আদেশই স্থগিত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন,  এই বিষয়ে সুরাহা কর্তৃপক্ষই দেবেন। আমাকে এই বিদ্যালয়ে থাকার অনুমতি দিয়েছেন, এমনকি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকেও ডিডি স্যার ফোন করে বলে দিয়েছেন বলে জানান। 

জানা যায়, প্রাথমিক শিক্ষার বিভাগীয় উপপরিচালক ইন্দু ভূষন দেব গত ২ আগষ্ট স্বাক্ষরিত চিঠিতে তাহমিনা খাতুন ও বনানী পাল দুইজনেরই পদায়ন আদেশ স্থগিত করেছেন। যে কারণে এই মুহুর্তে দুজনের মাঝে কেউই জুগলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বৈধ প্রধান শিক্ষন নন। 

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মুখলেছুর রহমান মজনু দৈনিকশিক্ষা ডটকমকে বলেন, প্রথমে অর্ডার হয় তাহমিনার। পরে আবার বনানীরও অর্ডার হয়। দুইজনই বর্তমানে বিদ্যালয়ে আসেন। তিনিও এবিষয়ে সুরাহা চান। 

 

নতুন স্কেলে কল্যাণের টাকা পেতে আবার আবেদন, শিক্ষকদের ক্ষোভ - dainik shiksha নতুন স্কেলে কল্যাণের টাকা পেতে আবার আবেদন, শিক্ষকদের ক্ষোভ তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত ক্লাস মূল্যায়নে কমিটি গঠন - dainik shiksha তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত ক্লাস মূল্যায়নে কমিটি গঠন ঘুষ লেনদেন ছাড়া প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি হয় না - dainik shiksha ঘুষ লেনদেন ছাড়া প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি হয় না দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও পেতে পারে - dainik shiksha দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও পেতে পারে সাড়ে তিন লাখ সরকারি পদ শূন্য - dainik shiksha সাড়ে তিন লাখ সরকারি পদ শূন্য প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী মাসেই - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী মাসেই সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website