এবারও ১ জানুয়ারি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ নিশ্চিত করা হয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী - বিবিধ - Dainikshiksha

এবারও ১ জানুয়ারি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ নিশ্চিত করা হয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন,  ১ জানুয়ারি প্রাক-প্রাথমিক থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত  শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামুল্য পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে। এটি নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যে সকল ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।  রাজধানীর মতিঝিলে বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) মিলনায়তনে এনসিটিবি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। 

এনসিটিবি’র চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ন চন্দ্র সাহা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বোর্ডের সকল সদস্য এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। 

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বছরের শুরুতে প্রথম দিনে সকল পাঠ্য বই প্রদান বিশ্বে একটি অনন্য দৃষ্টান্ত। গত ১০ বছর ধরে বিনামূল্যে এই বই বিতরণ করা হচ্ছে। এমন উদাহরণ পৃথিবীতে বিরল। এ বই প্রদানের ফলে শিক্ষার্থীদের জন্য সময়মত বই পাওয়া এবং পড়াশুনা করার সুযোগ খুলে গেছে। এটা দেশে-বিদেশে সর্বত্র প্রশংসিত হয়েছে। ঝরে পড়া অনেক কমেছে।  

 

তিনি বলেন, নির্বাচনের বছর হওয়ায় এ বছরটা ব্যতিক্রমী। এবছরও যাতে জানুয়ারির এক তারিখে শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌঁছে দেয়া যায়, সেজন্য আমরা আগে থেকেই পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করেছি। সময়মত বই তৈরি, ছাপানো ও পাঠানো বেশ ঝুঁকিপূর্ণ কাজ ছিল। এ পরিকল্পনা অনুযায়ী এনসিটিবি সাফল্যের সাথে তাদের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছে।

নাহিদ বলেন, এবার প্রায় ৩৬ কোটি পাঠ্যবই বিতরণ করা হবে। এর মধ্যে ২১ কোটি বই ইতোমধ্যে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। বাকি বইগুলো ১০ ডিসেম্বরের  মধ্যে পৌঁছে দেয়ার জন্য নির্দেশনা দেন মন্ত্রী। তিনি আশা প্রকাশ করেন, এ কাজে কেউ বাধার সৃষ্টি করবেন না। সবাই সহযোগিতা করবেন।

সাফল্যের সাথে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য মন্ত্রী এনসিটিবি’র সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, জাতির ভবিষ্যৎ নির্মাণের জন্য আপনারা কাজ করছেন। শিক্ষার্থীদের যথাসময়ে বই দেয়ার জন্য কাজ করছেন। এটা মহৎ কাজ। 

জাতীয় সংসদে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক আইন পাশ করায় এনসিটিবি’র পক্ষ থেকে মন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা ও অভিনন্দন জানানো হয়। 

‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website