এবার খুলনাগামী ট্রেন গেলো রাজশাহী অভিমুখে - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

এবার খুলনাগামী ট্রেন গেলো রাজশাহী অভিমুখে

পাবনা প্রতিনিধি |

এবারে ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া খুলনাগামী আন্তঃনগর ট্রেন ‘সুন্দরবন এক্সপ্রেস’ অভিমুখ বদলে রাজশাহীর দিকে চলে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। তবে রেল কর্মকর্তারা বলছেন পূর্ব পরিকল্পনা অনুসারে ট্রেনের চাকার ক্ষয়রোধ ও বগির দিক পরিবর্তনের জন্য এটি করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) দুপুর দেড়টার দিকে পাবনার ঈশ্বরদীর বাইপাস স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় খুলনাগামী ৭২৬ আন্তঃনগর ট্রেনটি নিয়ম অনুসারে ঈশ্বরদী জংশন স্টেশনে প্রবেশ না করে ঢাকা-আবদুলপুর-রাজশাহী রেলরুটের ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশনে ঢুকে পড়ে।

এ ব্যাপারে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে পরিবহন কর্মকর্তা (ডিটিও) আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, মঙ্গলবার সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঈশ্বরদী জংশন স্টেশনে না ঢুকে টেক পয়েন্ট পরিবর্তন করে ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশনে ঢুকে পড়ে। ভুল করে এটি হয়নি। ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে ট্রেনের চাকার ক্ষয়রোধে উল্টো দিকে চলাচলের উদ্দেশ্যেই (র‌্যাক) এটি করা হয়েছে। এতে চাকা সচল হয়, এবং এর মাধ্যমে ইঞ্জিন ঘুরিয়ে বগির দিক পরিবর্তন করা হয়।  

তিনি আরও জানান, এ ট্রেনটি সপ্তাহে ছয়দিন বেলা ১১টা ১০ মিনিটে ঈশ্বরদী জংশন স্টেশনে পৌঁছে সাড়ে ১১টায় খুলনার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। কিন্তু মঙ্গলবার এটি ২ ঘণ্টা বিলম্বে দুপুর দেড়টার দিকে ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশনে পৌঁছায়। পরবর্তীতে বগি ঘুরাতে আরও কিছুটা সময় লাগে। এতে করে সোয়া দুইটার দিকে ট্রেনটি ঈশ্বরদী জংশন স্টেশনে পৌঁছায় ও আড়াইটার দিকে খুলনার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। 

অভিমুখ বদলানোর ব্যাপারে যান্ত্রিক প্রকৌশলী (ক্যারেজ) মমতাজুল ইসলামও একই কথা জানান। তিনি বলেন, ট্রেনগুলো নিয়মিত একইদিকে চলতে থাকায় একদিকের চাকা বেশি করে ক্ষয় হয়। এ অসুবিধা দূর করতেই কখনো ট্রেন উল্টো দিকে চালানো হয়। 

এদিকে সময় মতো ট্রেন না পৌঁছানোয় দুর্ভোগে পড়েন ঈশ্বরদী জংশন স্টেশনের ২ নম্বর প্লাটফর্মের যাত্রীরা।

মাদরাসা শিক্ষকদের জুন মাসের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের জুন মাসের এমপিওর চেক ছাড় স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের জুনের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের জুনের এমপিওর চেক ছাড় শিক্ষার্থীর সংখ্যার ভিত্তিতে স্কুলের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর - dainik shiksha শিক্ষার্থীর সংখ্যার ভিত্তিতে স্কুলের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর আশ্রয়কেন্দ্র হিসাবে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha আশ্রয়কেন্দ্র হিসাবে বন্যা দুর্গত এলাকায় স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ তিন শিক্ষকের ডাবল এমপিও : দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষকে শোকজ - dainik shiksha তিন শিক্ষকের ডাবল এমপিও : দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধ্যক্ষকে শোকজ দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত জটিলতার দ্রুত সমাধান চান এমপিওবঞ্চিত শিক্ষকরা - dainik shiksha জটিলতার দ্রুত সমাধান চান এমপিওবঞ্চিত শিক্ষকরা প্রভাষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরির অভিযোগ - dainik shiksha প্রভাষকের বিরুদ্ধে ভুয়া সনদে চাকরির অভিযোগ শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান - dainik shiksha শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক - dainik shiksha বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে - dainik shiksha শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website