এসএসসির অষ্টম দিনে অনুপস্থিত ৫ হাজার ১৩৩, বহিষ্কার ১ - এসএসসি/দাখিল - দৈনিকশিক্ষা

এসএসসির অষ্টম দিনে অনুপস্থিত ৫ হাজার ১৩৩, বহিষ্কার ১

নিজস্ব প্রতিবেদক |

সারাদেশে চলছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। আজ শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) এসএসসির অষ্টম দিনের পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিল ৫ হাজার ১৩৩ জন পরীক্ষার্থী। এদিন ১ জন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে, আজ কোনো কক্ষ পরিদর্শক বহিষ্কার হয়নি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ কক্ষ দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

আজ ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা, হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা, বৌদ্ধ ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এবং খ্রিস্ট্র ধর্ম ও  নৈতিক শিক্ষা বিষয়ের পরীক্ষা  অনুষ্ঠিত হয়। 

জানা গেছে, এসএসসি পরীক্ষার অষ্টম দিনে ঢাকা বোর্ডের ১হাজার ৪৬৯ জন, চট্টগ্রাম বোর্ডে ৪৩২ জন, রাজশাহী বোর্ডে ৬৮৪ জন, বরিশাল বোর্ডের ৩৬৩ জন, সিলেট বোর্ডের ৩৫৪ জন, দিনাজপুর বোর্ডের ৪২৩ জন, কুমিল্লা বোর্ডের ৩৫৭ জন, ময়মনসিংহ বোর্ডে ৪০০ জন এবং যশোর বোর্ডের ৬৫১ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া এদিন, বরিশাল বোর্ডের ১ জন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। আজ কোনো কক্ষ পরিদর্শককে বহিষ্কার করা হয়নি। 

পরবর্তী পরীক্ষা ১৭ ফেব্রুয়ারি। এ দিন পদার্থ বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়), বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা, ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।  

গত ৩ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়েছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে এসএসসি পরীক্ষা। আর ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৫ মার্চের মধ্যে এসএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষা নেয়া হবে। দেশের নয়টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

চলতি বছর ২০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৯৯ জন পরীক্ষার্থী এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। গতবছর পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ জন। এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থী কমেছে সাড়ে ৮৭ হাজার। চলতি বছর ১৬ লাখ ৩৫ হাজার ২৪০ জন পরীক্ষার্থী এসএসসি, ২ লাখ ৮১ হাজার ২৫৪ জন পরীক্ষার্থী দাখিল এবং ১ লাখ ৩১ হাজার ২৮৫জন শিক্ষার্থী এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। 

প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি - dainik shiksha প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের - dainik shiksha ‘টেনশনে’ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আহমদ শফীর মৃত্যু, দাবি ছেলের শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? - dainik shiksha শিক্ষা জাতীয়করণে কার বেশি লাভ? ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন - dainik shiksha ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে ডিপ্লোমা-ভোকেশনাল ক্লাসের রুটিন চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না - dainik shiksha চাকরি সরকারি অবসর বেসরকারি: সরকারিকৃত কলেজ শিক্ষকদের বোবাকান্না হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক - dainik shiksha হাটহাজারী মাদরাসা পরিচালনায় সিনিয়র ৩ শিক্ষক শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প - dainik shiksha শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প please click here to view dainikshiksha website