করোনায় প্রজন্মগত বিপর্যয়ের মুখোমুখি শিক্ষা : জাতিসংঘ মহাসচিব - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

করোনায় প্রজন্মগত বিপর্যয়ের মুখোমুখি শিক্ষা : জাতিসংঘ মহাসচিব

দৈনিক শিক্ষা ডেস্ক |

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে বন্ধ রয়েছে স্কুল। এর ফলে বিশ্ব এক ‘প্রজন্মগত বিপর্যয়ের’ মুখে রয়েছে বলে সতর্ক করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেজ।

মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) ভিডিও কনফারেন্সে জাতিসংঘের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদেরকে নিরাপদে শ্রেণিকক্ষে ফিরিয়ে নেওয়াই হবে এখনকার ‘অন্যতম শীর্ষ অগ্রাধিকার’।

গুতেরেজ  বলেন, জুলাইয়ের মাঝামাঝি নাগাদ ১৬০টি দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এর কারণে প্রায় ১০০ কোটি শিক্ষার্থীর পড়াশোনা ব্যাহত হয়েছে। অন্তত চার কোটি শিশুর জীবন থেকে প্রি-স্কুল হারিয়ে গেছে। তিনি বলেন, এছাড়া মহামারী শুরুর আগেই ২৫ কোটির বেশি শিশু স্কুল থেকে ঝরে পড়েছে। আর উন্নয়নশীলে দেশের মাত্র চতুর্থাংশ শিক্ষার্থীর মৌলিক দক্ষতা অর্জিত হয়েছে।

মহাসচিব বলেন, “এখন আমরা  মুখোমুখি হয়েছি এক প্রজন্মগত বিপর্যয়ের, যেটা না বলা মানবিক সম্ভাবনাকে নষ্ট করে দিতে  পারে, কয়েক দশকের প্রগতিকে নস্যাৎ করে দিতে পারে এবং সমাজে প্রোথিত অসমতা পরিস্থিতিকে আরও খারাপের দিকে নিয়ে যেতে পারে।”

জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, কোভিড-১৯ এর স্থানীয় সংক্রমণ যখনই নিয়ন্ত্রণে আসবে তখনই যতটা নিরাপদে সম্ভব স্কুল শিক্ষার্থীদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরিয়ে নেয়া হবে অন্যতম প্রধান কাজ। এজন্য অভিভাবক,বাহক,শিক্ষক ও তরুণদের আলোচনা করা জরুরি।

দেশের বেশিরভাগ এলাকায় কোভিড-১৯ সংক্রমণ বৃদ্ধির মুখে কিছু শিক্ষক ও অভিভাবকের বিরোধিতার মুখ স্কুল আবার চালু করার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প যখন জোরাজুরি করছেন,তখনই জাতিসংঘ মহাসচিবের এই সুপারিশ এল।

শিক্ষক নিয়োগ কমিশন আইনের খসড়া প্রস্তুত - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ কমিশন আইনের খসড়া প্রস্তুত আটকে যাচ্ছে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া (ভিডিও) - dainik shiksha আটকে যাচ্ছে তৃতীয় চক্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া (ভিডিও) এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের তিন প্রস্তাব - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের তিন প্রস্তাব মাদরাসার স্বীকৃতি ও বিভাগ খোলার প্রস্তাব মূল্যায়নে মন্ত্রণালয়ের কমিটি - dainik shiksha মাদরাসার স্বীকৃতি ও বিভাগ খোলার প্রস্তাব মূল্যায়নে মন্ত্রণালয়ের কমিটি ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত - dainik shiksha ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! - dainik shiksha জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি - dainik shiksha কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষক সমাবেশ ৫ অক্টোবর - dainik shiksha শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষক সমাবেশ ৫ অক্টোবর please click here to view dainikshiksha website