করোনায় মৃতদের দেহ পুড়িয়ে ফেলতে চায় ইংল্যান্ড - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

করোনায় মৃতদের দেহ পুড়িয়ে ফেলতে চায় ইংল্যান্ড

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |
করোনাভাইরাস প্রতিনিয়ত কেড়ে নিচ্ছে নতুন নতুন প্রাণ। যুক্তরাজ্যে রোববার নতুন করে আরও ৬৬৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর এর ফলে দেশটিতে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা পাঁচ হাজার ৬৮৩ জন। এছাড়াও নতুন করে মারা গেছেন ৪৮ জন এবং সর্বমোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৮১ জনে।
 
এভাবে মৃতের সংখ্যা বাড়তে থাকলে কবরের জায়গার সংকটে দাফনের ক্ষেত্রে ধর্মীয় রীতি মানা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। সেক্ষেত্রে মরদেহ দাফন না করে পুড়িয়ে ফেলা হতে পারে। বিষয়টি বৃটেনের মুসলিম কমিউনিটিকে ভাবিয়ে তুলছে।
 
মুসলিম এনগেজমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট নামক একটি সংগঠনের ওয়েবসাইটে শনিবার এই তথ্য দিয়ে বলা হয়েছে, সরকার ‘ইমার্জেন্সি করোনাভাইরাস বিল ২০১৯-২১’ নামে পার্লামেন্টে একটি বিল উত্থাপন করেছে। এই বিলের খসড়া প্রকাশিত হয়েছে। ইতোমধ্যে একদফা বিলটি নিয়ে সংসদে আলোচনা হয়েছে। সোমবার (২৩ মার্চ) তা পাস করার লক্ষ্যে আবারও পার্লামেন্টে তোলা হবে।
 
এই বিলটি পাস হয়ে গেলে বর্তমানে বৃটেনের বহু ধর্মের মানুষের স্বস্ব ধর্মমতে দাফন-কাফনের যে অধিকার আছে সেটা খর্ব হয়ে যাবে। স্থানীয় কাউন্সিল যেভাবে ইচ্ছা সেভাবে দাফন করতে পারবে। কাউন্সিল চাইলে ধর্মমতে দাফনের অনুমতি দেবে নতুবা মরদেহ পুড়িয়ে ফেলতে পারবে। তখন মুসলমানদের ইচ্ছার কোনো গুরুত্ব থাকবে না।
 
বর্তমান ‘পাবলিক হেলথ ১৯৮৪ ধারা ৪৪ (৩)’ আইনে মুসলমানসহ অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের তাদের নিজ নিজ ধর্মমতে মরদেহ দাফনের অধিকার দেয়া আছে। ফলে স্থানীয় কাউন্সিল চাইলেই কারও মরদেহ জ্বালিয়ে ফেলতে পারে না। তাই পার্লামেন্ট চাচ্ছে এই আইনকে পরিবর্তন করতে। আইন পাস হয়ে গেলে ইসলামী নিয়মে দাফনের কোনো সুযোগ থাকবে না। তাই বিলটি পাস করার আগে তাতে মুসলমানদের ধর্মীয় অধিকার রক্ষায় প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনতে এমপিরা ভূমিকা রাখতে পারেন।
 
মুসলিম এনগেজমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের ওয়েবসাইটে আরও বলা হয়েছে, হিউম্যান রাইট আইন-১৯৯৮ অনুসারে মানুষের ধর্মীয় অধিকার উপেক্ষা করার কোনো সুযোগ নেই। তাই মুসলমানসহ অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় অধিকার রক্ষায় এমপিদের সোচ্চার হতে হবে। সংগঠনটি বৃটেনের সর্বস্তরের মুসলমানদের তাদের নিজ নিজ এলাকার এমপির কাছে চিঠি লিখতে অনুরোধ জানিয়েছে। বিলটিতে যেন প্রয়োজনীয় পরিবর্তন আনা হয়। মুসলমানসহ অন্যান্য ধর্মাবলম্বী মানুষের ধর্মীয় অধিকার যাতে রক্ষা হয়।
 
এই লিংকে www.mend.org.uk/whats-new/action-alerts/covid19-bill ক্লিক করে খুব সহজেই নিজ নিজ এলাকার এমপির কাছে চিঠি লেখা যাবে।
 
উল্লেখ্য, বৃটেনে সাড়ে ছয় কোটি মানুষের মধ্যে মুসলমানের সংখ্যা ৩০ লাখ। মুসলমান ছাড়াও ইহুদি ধর্মাবলম্বীদের মরদেহ দাফন করা হয়।
নামাজে ৫ জনের বেশি শরিক হওয়া যাবে না - dainik shiksha নামাজে ৫ জনের বেশি শরিক হওয়া যাবে না করোনা : ২৪ ঘণ্টায় দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যু, দু’রকম তথ্য দিলো সরকার - dainik shiksha করোনা : ২৪ ঘণ্টায় দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যু, দু’রকম তথ্য দিলো সরকার করোনা : সংক্রমণের তীব্রতা থাকবে জুলাই পর্যন্ত - dainik shiksha করোনা : সংক্রমণের তীব্রতা থাকবে জুলাই পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটির আওতায় - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটির আওতায় দূরত্ব বজায় না রেখে বেতনের জন্য লাইনে শিক্ষকরা - dainik shiksha দূরত্ব বজায় না রেখে বেতনের জন্য লাইনে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীসহ ১০ হাজার বাংলাদেশিকে তাড়িয়ে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া - dainik shiksha শিক্ষার্থীসহ ১০ হাজার বাংলাদেশিকে তাড়িয়ে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া করোনা আক্রান্ত হয়ে দুদক পরিচালকের মৃত্যু - dainik shiksha করোনা আক্রান্ত হয়ে দুদক পরিচালকের মৃত্যু সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website