করোনা ভাইরাস : নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ শীর্ষ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

করোনা ভাইরাস : নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ শীর্ষ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

চীনের করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বুধবার পর্যন্ত ১৩৫০ ছাড়িয়ে গেছে। গতকাল একদিনেই হুবেই প্রদেশে মৃত্যু হয়েছে ২৪২ জনের। যা একদিনে মৃত্যুর আগের রেকর্ডের দ্বিগুণেরও বেশি।

এমন পরিস্থিতিতে ক্ষুব্ধ চীনা কমিউনিস্ট সরকার হুবেই প্রদেশের পার্টি প্রধানকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া প্রাদেশিক কমিটির সেক্রেটারিকে সরিয়ে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সাংহাইয়ের সাবেক মেয়র ইয়িং ইয়োংকে।

প্রদেশটির রাজধানী শহর উহান থেকে করোনা ভাইরাসটির উৎপত্তি। এখন পর্যন্ত অধিকাংশ মৃত্যুর ঘটনা প্রদেশটিতেই।

এর আগে করোনা ভাইরাসের মহামারি নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় বেশ কয়েকজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করে চীন সরকার।

মৃতের সংখ্যা এক হাজার ছাড়িয়ে যাওয়ায় হুবেই হেলথ কমিশনের পার্টি প্রধান ঝাং জিন এবং কমিশনের পরিচালক লিউ ইয়েংজিকে সরিয়ে দেয়া হয়। একই কারণে চাকরিচ্যুত করা হয় স্থানীয় রেড ক্রসের ডেপুটি ডিরেক্টরকেও।

এদিকে বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত নতুন করে ১৪ হাজার ৮৪০ জন আক্রান্ত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে হেলথ কমিশন। এ নিয়ে দেশটিতে ভাইরাসটি সংক্রমণ ঘটেছে ৫৯ হাজার ৪৪০ জনের দেহে।

গত বছরের শেষের দিকে উহান থেকে করোনা ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে। সংক্রমণ ঠেকাতে উহানসহ প্রদেশটির একাধিক শহরকে গোটা চীন থেকে কার্যত বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হয়। এরপরও ভাইরাসটির সংক্রমণ রোধ করা যায়নি।

গত শনিবার পর্যন্ত অন্তত ২৫টি দেশে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতদের দুজন ছাড়া সবাই চীনের মূল ভূখণ্ডেই মারা যান। বাকি দুজন মারা যান হংকং এবং ফিলিপাইনে।

এত দিন পর্যন্ত নতুন করোনা ভাইরাসটির কোনো নাম ছিল না। তবে গত মঙ্গলবার ডব্লিউএইচও এর নাম দেয় কভিড-১৯।  করোনার কো, ভাইরাসের ভি, ডিজিজের ডি ও উৎপত্তিকাল ২০১৯-এর ১৯ মিলে হয়েছে নতুন এই রোগের নাম।

করোনা ভাইরাস শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত সংক্রমণ। এই রোগের কোনো প্রতিষেধক এবং ভ্যাকসিন নেই। মৃতদের অধিকাংশই বয়স্ক যাদের আগে থেকেই শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত জটিলতা ছিল।

সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়া এই রোগের লক্ষণ হলো- শুকনো কাশির পর জ্বর আসে। সপ্তাহখানেক পর শ্বাস-প্রশ্বাস কমে যায়। এরপর আক্রান্তদের মধ্যে কিছু লোককে হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন দেখা দেয়। প্রতি চারজনের একজনের অবস্থা খুবই খারাপ হয়।

স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের আত্তীকরণ দ্রুত শেষ করতে হবে: শিক্ষামন্ত্রীর কড়া নির্দেশ - dainik shiksha স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের আত্তীকরণ দ্রুত শেষ করতে হবে: শিক্ষামন্ত্রীর কড়া নির্দেশ উপযুক্ত মানবসম্পদ তৈরিতে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha উপযুক্ত মানবসম্পদ তৈরিতে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই : শিক্ষা উপমন্ত্রী আমার কারণে কেন আত্মহত্যা করবে সালমান: শাবনূর - dainik shiksha আমার কারণে কেন আত্মহত্যা করবে সালমান: শাবনূর করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচবেন যেভাবে - dainik shiksha করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচবেন যেভাবে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের কলেজের সংশোধিত ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের কলেজের সংশোধিত ছুটির তালিকা ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটির তালিকা ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা ২০২০ খ্র্রিষ্টাব্দে মাদরাসার ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্র্রিষ্টাব্দে মাদরাসার ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website