কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা, গ্রেফতার ২ - বিবিধ - Dainikshiksha

কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা, গ্রেফতার ২

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি |

হবিগঞ্জে চম্পা বণিক (২২) নামেরে এক কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি দিপু ঘোষ ওরফে বাঁধন (২৫) ও তাঁর বড় ভাই যিশু ঘোষকে (৩০) গত বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করা হয় ওই দিনই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন গ্রেফতারকৃতরা।

 চম্পা  হবিগঞ্জ শহরের চৌধুরী বাজার (কামারপট্টি) এলাকার বাসিন্দা ও বৃন্দাবন সরকারি কলেজের সম্মান তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। 
গত ২ এপ্রিল বিকেলে নিজ ঘরে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।
  
মামলার বিবরণে জানা গেছে, সম্প্রতি চম্পার বড় ভাই শুভ বণিকের বিয়ে হয়। ওই বিয়ের অনুষ্ঠানে দিপু ঘোষের সঙ্গে পরিচয় হয় চম্পার। এ সূত্র ধরে পরে দুজন মুঠোফোনে কথা বলা শুরু করেন। একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দিপু নিজেকে একজন ব্যাংক কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দেন। কিন্তু একসময় চম্পা জানতে পারেন, দিপু ব্যাংকার নন। এমনকি তিনি কোনো চাকরিই করেন না। এই অবস্থায় চম্পা তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। কিন্তু দিপু তাঁর পিছু ছাড়েননি। প্রায়ই মুঠোফোনে বিরক্ত করতেন। এমনকি চম্পাকে ভয় দেখাতেন, তাঁর কথা না শুনলে তাঁদের ব্যক্তিগত ছবিগুলো ইন্টারনেটে ছেড়ে দেবেন।

২ এপ্রিল বিকেলে চম্পার মৃত্যুর পর ১০ এপ্রিল থানায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলা করেন তাঁর বড় ভাই শুভ বণিক। তিনি বলেন, তাঁর বোনের বিয়ের আলোচনা চলছিল। ঠিক এ সময় চম্পাকে নিয়ে কিছু ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেন দিপু। দিপু ও চম্পার মধ্যে মুঠোফোনে কথাবার্তা ও খুদে বার্তা থেকে বিষয়টি তাঁরা নিশ্চিত হয়েছেন জানিয়ে শুভ বলেন, তাঁরা বিষয়টি দিপুর বড় ভাই যিশুকে জানিয়েছিলেন। তবে তিনি কোনো গুরুত্বই দেননি। উল্টো তাঁর ভাইয়ের সঙ্গে চম্পার বিয়ে দেওয়ার পরামর্শ দেন। মামলার প্রধান আসামি দিপু ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেন, কিছু ব্যক্তিগত ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি আরও কিছু ছড়ানোর ভয় দেখিয়েছিলেন।

হবিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সহিদুর রহমান বলেন, বর্তমানে দিপু ও তাঁর ভাই যিশু কারাগারে আছেন।

‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website