কানহাইয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার অনুমোদন দিল্লির - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

কানহাইয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার অনুমোদন দিল্লির

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

ভারতের বামপন্থী নেতা কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা চালানোর অনুমতি দিয়েছে দিল্লি সরকার। প্রায় এক বছর ধরে এই সিদ্ধান্ত ঝুলিয়ে রেখেছিল অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সরকার।

২০১৬ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামী নেতা আফজাল গুরুর ফাঁসি কার্যকর হয়। এর চার বছরপূর্তি উপলক্ষে গত বছর জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে (জেএনইউ) অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভা থেকেই রাষ্ট্রদ্রোহিতার স্লোগান উঠেছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। ওই সভার নেতৃত্বে ছিলেন তৎকালীন ছাত্র সংসদের সভাপতি কানহাইয়া কুমার, সঙ্গে ছিলেন ছাত্রনেতা উমর খালিদ ও অনির্বাণ ভট্টাচার্য। পরে এই তিন সাবেক ছাত্রনেতাসহ মোট নয়জনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করে পুলিশ।

ভারতে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা চালাতে গেলে রাজ্য সরকারের অনুমতি নিতে হয়। আর সেখানেই এতদিন ধরে আটকে ছিল কানহাইয়ার নামে মামলাটি।

বিজেপির অভিযোগ, এই সাবেক ছাত্রনেতাকে বাঁচাতেই অনুমতি দিচ্ছিলেন না আম আদমি পার্টির (এএপি) নেতা ও মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। একারণে মামলার চার্জশিট দাখিল হলেও শুনানি এগোয়নি। এএপি সরকারের অনুমতি না মেলায় পরে সেই চার্জশিটও খারিজ করে দেন আদালত।

সপ্তাহখানেক আগে সরকারের কাছে আবারও মামলার অনুমতি চেয়ে চিঠি দেয়া হয়। এছাড়া সবশেষ পরিস্থিতি জানতে শুক্রবার আদালতে ডাকা হয়েছিল দিল্লি পুলিশকে। সেখানে তারা কেজরিওয়াল সরকারের গা ছাড়া মনোভাবের বিষয়ে অভিযোগ করে। এর পরপরই কানহাইয়ার বিরুদ্ধে মামলা চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেয় দিল্লি সরকার।

এদিকে, সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এই মামলার অনুমতি দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন কানহাইয়া কুমার। কিছুদিন পরেই বিহারে বিধানসভা নির্বাচন। সেখানে তিনি বেগুসরাই আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। একারণে নির্বাচনের আগেই তাকে টার্গেট করা হচ্ছে বলে দাবি এ সাবেক ছাত্রনেতার।

এছাড়া, সরকার রাজনৈতিক খেলা খেলতে রাষ্ট্রদ্রোহিতা আইনের অপব্যবহার করছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি। উদাহরণস্বরূপ দেবেন্দর সিংয়ের প্রসঙ্গ তোলেন এ বামপন্থী নেতা। গত মাসে ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে তিন জঙ্গিসহ গ্রেফতার করা হয়েছিল। অথচ তার বিরুদ্ধে এখনও রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা করেনি পুলিশ।

করোনা আক্রান্ত আরও পাঁচ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৪১ - dainik shiksha করোনা আক্রান্ত আরও পাঁচ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৪১ এপ্রিলে দেশে করোনা ভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়াতে পারে : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha এপ্রিলে দেশে করোনা ভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়াতে পারে : প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদ কারাগারে - dainik shiksha বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদ কারাগারে দিনমজুর ও মধ্যবিত্তদের তালিকা করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর - dainik shiksha দিনমজুর ও মধ্যবিত্তদের তালিকা করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা দুর্যোগে বেসরকারি শিক্ষকেরা কেমন আছেন? - dainik shiksha করোনা দুর্যোগে বেসরকারি শিক্ষকেরা কেমন আছেন? করোনায় কাজ করা চিকিৎসদের পুরষ্কার, অন্যদের শাস্তি : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha করোনায় কাজ করা চিকিৎসদের পুরষ্কার, অন্যদের শাস্তি : প্রধানমন্ত্রী ছুটির দিনে সব ধরনের চেক লেনদেন হবে - dainik shiksha ছুটির দিনে সব ধরনের চেক লেনদেন হবে নামাজে ৫ জনের বেশি শরিক হওয়া যাবে না - dainik shiksha নামাজে ৫ জনের বেশি শরিক হওয়া যাবে না সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website