কুবিতে মার্কেটিং ডে উদযাপন - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha

কুবিতে মার্কেটিং ডে উদযাপন

কুবি প্রতিনিধি |

গ্রাহক সেবাই প্রথম' এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে প্রথমবারের মতো কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) উদযাপিত হলো বাংলাদেশ মার্কেটিং ডে। মার্কেটার্স ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্ট্যাডিজ অনুষদের সামনে থেকে র‌্যালি বের করে দিনব্যাপী মার্কেটিং ডে উদযাপন শুরু হয়।

মার্কেটিং বিভাগের ছাত্রবিষয়ক উপদেষ্টা ড. মোহাম্মদ সোলাইমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী। আরও উপস্থিত ছিলেন মার্কেটিং বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন সরকার। এছাড়া মুঠোফোনের মাধ্যমে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে মার্কেটিং ডে আয়োজক কমিটির প্রধান ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন মার্কেটিং বিভাগের ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী কাজী ইয়াকুব শাকিল। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী বলেন, 'যোগ্যতা থাকলে সম্পর্ক এমনিতেই সৃষ্টি হয়ে যায়। আর মানুষের একটাই উদ্দেশ্য থাকা উচিত সেটা হচ্ছে সত্যেকে খোঁজা।'

মার্কেটিং বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড.মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন সরকার বলেন, 'আমাদের বিজনেসের ক্ষেত্রে অবশ্যই গ্রাহকদের প্রাধান্য দিতে হবে। কেবল যোগ্য নেতৃত্বই পারে গ্রাহকদের প্রাধান্য দিয়ে নতুন সম্পর্ক সৃষ্টি করতে।'

এসময় মুঠোফোনের মাধ্যমে রাখা বক্তব্যে বাংলাদেশে মার্কেটিং ডে আয়োজক কমিটির প্রধান ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান বলেন, মার্কেটিং একটি মহৎ পেশা। কেননা এটি মানুষের জীবনমান উন্নয়নে সহয়তা করে। ভবিষ্যতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে মার্কেটিং ডে উদযাপনের বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, সহযোগী অধ্যাপক ড. মেহের নিগার, সহকারী অধ্যাপক মেহেদী হাসান ও প্রভাষক আওলাদ হোসেনসহ বিভাগের বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।

এমপিওভুক্তির দাবিতে ফের রাজপথে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচি শুরু - dainik shiksha এমপিওভুক্তির দাবিতে ফের রাজপথে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচি শুরু মারধরে অসুস্থ হলে আবরারকে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে পেটাই : রবিন - dainik shiksha মারধরে অসুস্থ হলে আবরারকে অন্য রুমে নিয়ে গিয়ে পেটাই : রবিন কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? - dainik shiksha কী আছে শিক্ষক গোকুল দাশের লাইব্রেরিতে, কেন বিক্রির বিজ্ঞাপন? ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন - dainik shiksha ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website