কেন্দ্র সচিবের অবহেলায় ৭০ পরীক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন অনিশ্চিত - পরীক্ষা - Dainikshiksha

কেন্দ্র সচিবের অবহেলায় ৭০ পরীক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন অনিশ্চিত

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি |

কুড়িগ্রামের উলিপুরে কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব অবহেলার কারণে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এসএসসি (ভোক) এর ইলেকট্রিক্যাল ওয়ার্কস ও কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন বিষয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর না দেয়ায় ৭০ জন শিক্ষার্থী ফলাফল পায়নি। ফলে এসব শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ জীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। ফলাফল বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে উপজেলার গুনাইগাছ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে চলতি এসএসসি (ভোক) পরীক্ষায় উলিপুর মহারাণী স্বর্ণময়ী স্কুল অ্যান্ড কলেজের ২৪ জন, পাঁচপীর উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৩ জন ও গুনাইগাছ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ২২ জন পরীক্ষার্থীসহ একই বিদ্যালয়ের কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন বিষয়ের ১১ জন পরীক্ষার্থী সকল বিষয়ের তত্ত্বীয় ও ব্যবহারিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু ফলাফল প্রকাশিত হলেও এসব পরীক্ষার্থীকে ইলেকট্রিক্যাল ওয়ার্কস ও কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষায় অকৃতকার্য দেখানো হয়। পরে তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি কেন্দ্র্র সচিবকে অবহিত করা হয়।

ব্যবহারিক পরীক্ষায় অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা অভিযোগ করে জানান, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে আমরা জানতে পেরেছি ওই বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরপত্র কেন্দ্র সচিব সময়মতো বোর্ডে পাঠাননি। এদিকে, কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন বিষয়ের গুনাইগাছ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ১১ জন পরীক্ষার্থীর ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরপত্র বোর্ডে না পৌঁছানোর কারণে তাদেরও অকৃতকার্য দেখানো হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে ৭০ জন পরীক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন অনিশ্চয়তায় পড়েছে।

কেন্দ্র সচিব ও গুনাইগাছ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম হোসেন জানান, আমি যথাসময়ে যথারীতি ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরপত্র প্রেরণ করেছি। কেন বোর্ড তাদের ফেল দেখালো সেটা বোর্ড কর্তৃপক্ষের বিষয়।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. সুশীল কুমার পাল জানান, আমরা চার দফা নোটিশ ও এসএমএস করে কেন্দ্র সচিবগণের কাছে নম্বরপত্র চেয়ে থাকি। কেন তিনি দেননি, সে বিষয়টি তিনি ভালো বলতে পারবেন। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ শিক্ষাজীবনের ওপর গুরুত্ব দিয়ে আমরা সমাধানের চেষ্টা করবো।

১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারিতে পাস ২০ দশমিক ৫৩ শতাংশ - dainik shiksha ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারিতে পাস ২০ দশমিক ৫৩ শতাংশ সরকারিকৃত শতাধিক কলেজ অধ্যক্ষের যোগ্যতায় ঘাটতি নিয়োগে অনিয়ম - dainik shiksha সরকারিকৃত শতাধিক কলেজ অধ্যক্ষের যোগ্যতায় ঘাটতি নিয়োগে অনিয়ম সাধারণ শিক্ষায় যুক্ত হচ্ছে ভোকেশনাল কোর্স - dainik shiksha সাধারণ শিক্ষায় যুক্ত হচ্ছে ভোকেশনাল কোর্স জুলাই থেকে বেতন পাবেন নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা - dainik shiksha জুলাই থেকে বেতন পাবেন নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা বেকারভাতা দেয়ার চিন্তা সরকারের - dainik shiksha বেকারভাতা দেয়ার চিন্তা সরকারের তদবিরে তকদির: চাকরির বাজারে এগিয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েটরা - dainik shiksha তদবিরে তকদির: চাকরির বাজারে এগিয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েটরা নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা - dainik shiksha নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা এমপিওভুক্ত হচ্ছেন ১০ হাজার ৮৫ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন ১০ হাজার ৮৫ শিক্ষক প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website