খুবির সাবেক উপাচার্য কাদির ভূঁইয়া মারা গেছেন - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

খুবির সাবেক উপাচার্য কাদির ভূঁইয়া মারা গেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক |

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. এম আবদুল কাদির ভূইঁয়া আর নেই। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শনিবার দিবাগত রাত ১০টা ১৫মিনিটে ঢাকার মেরুল বাড্ডায় নিজবাসায় ইন্তেকাল করেন। তাঁর বয়স হয়েছিলো ৭৫ বছর। তিনি স্ত্রী ও চারপুত্রসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, সহকর্মী শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত তিন-চার দিন ধরে তাঁর রক্তচাপ ওঠানামা করছিলো। তিনি অসুস্থতা বোধ করলে ডেল্টা হাসপাতালে নেওয়া হয় এবং সেখানে রক্তের টেস্ট করলে প্ল্যাটিলেট কম পাওয়া যায়। পরে ডেঙ্গু টেস্ট করলে নেগেটিভ আসে। এরই মধ্যে গতরাত সাড়ে ৯টার দিকে তাঁর রক্তচাপ অস্বাভাবিকভাবে কমে গেলে অবস্থার অবনতি হয় এবং তিনি  হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে রাত ১০টা ১৫ মিনিটে ইন্তেকাল করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, প্রফেসর ড. এম আবদুল কাদির ভূঁইয়া ২০০১ সালের ১৯ নভেম্বর খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের পঞ্চম উপাচার্য হিসেবে দায়িত্বগ্রহণ করেন এবং ২০০৫ সালের ২০ মার্চ পর্যন্ত এ দায়িত্ব পালন করেন। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে দায়িত্বপালনকালে ২০০৩ সালের ৯ মার্চ এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সিনেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাস প্রণয়নের উদ্যোগসহ কয়েকটি বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে এমওইউ স্বাক্ষর, নতুন ডিসিপ্লিন খোলা ও বিভিন্ন প্রশাসনিক ও একাডেমিক উদ্যোগ গ্রহণ করেন। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব গ্রহণের আগে তিনি সুদীর্ঘ ৩৪ বৎসর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনায় নিবেদিত ছিলেন।

কৃতী গবেষক প্রফেসর ড. এম আবদুল কাদির ভূঁইয়া ১৯৬৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সামাজিকবিজ্ঞানে স্মাতকোত্তর এবং ১৯৭৯ সালে ভারতের দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব ইকোনোমিক্স থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ১৯৬৮ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক হিসেবে শিক্ষকতা জীবন শুরু করেন এবং ১৯৭৩ সালে সহকারী অধ্যাপক, ১৯৮১ সালে সহযোগী অধ্যাপক এবং ১৯৮৭ সালে অধ্যাপক পদে উন্নীত হন। সর্বশেষ তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১১ সালে অবসরে যান।

দীর্ঘ অধ্যাপনা জীবনে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট, সিন্ডিকেট, একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য, প্রভোস্টসহ বিভিন্ন শিক্ষা ও প্রশাসনিক গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। প্রফেসর ড. এম আবদুল কাদির ভূঁইয়া ১৯৪৫ সালের ২০ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ জেলার পাঁচরুখী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ভূতপূর্ব অধ্যাপক ড. এম আবদুল কাদির ভূইয়ার ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। এক শোক বার্তায় তিনি বলেন, একটি প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা ও প্রশাসনিক বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করায় সে অভিজ্ঞতার আলোকে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও একাডেমিক বিভিন্ন ক্ষেত্রে তিনি নতুন উদ্যোগ ও সংস্কার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক কর্মকান্ডে গতি সঞ্চার করেন। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রগতির ইতিহাসে তাঁর অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

তিনি মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। অনুরূপভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস শোক প্রকাশ করেছেন। অপরদিকে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. আশীষ কুমার দাস প্রাক্তন উপাচার্য প্রফেসর ড. এম আবদুল কাদির ভূঁইয়ার ইন্তেকালে অনুরূপভাবে গভীর শোক জ্ঞাপন করেছেন।

Admission going on at Navy Anchorage School and College Chattogram - dainik shiksha Admission going on at Navy Anchorage School and College Chattogram একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে - dainik shiksha একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে please click here to view dainikshiksha website