please click here to view dainikshiksha website

গণিতে ভালো নম্বর পেতে হলে

মো. বদরুল ইসলাম | অক্টোবর ২২, ২০১৭ - ৮:০০ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

পরীক্ষার্থী বন্ধুরা, তোমাদের জেএসসি পরীক্ষা খুবই নিকটবর্তী। এ মুহূর্তে তোমরা সব বিষয়ে কীভাবে ভালো ফল করা যায় তা নিয়ে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছ। আমি তোমাদের গণিত বিষয়ে কতকগুলো টিপস দিচ্ছি, যা তোমাদের পরীক্ষা ভালো ফল করার ক্ষেত্রে সহায়তা করবে বলে আমি আশা রাখি।

১. প্রথমে প্রশ্ন পেয়ে সম্পূর্ণ প্রশ্নটি মনোযোগ দিয়ে পড়ে নেবে। তারপর সহজ উত্তরের প্রশ্নগুলো বাছাই করবে। শুরুতেই কোনো অঙ্ক করতে যেন ভুল কিংবা কাটাকাটি না হয় সেদিকে লক্ষ্য করতে হবে। এরূপ হলেও তুমি মানসিক বল হারাবে না।

২. উদ্দীপকগুলো ভালোভাবে পড়বে এবং প্রশ্নগুলো বুঝবে। অতঃপর যে উদ্দীপকটির সব প্রশ্নের সমাধান ভালোভাবে করতে পারবে সেটির সমাধান আগে করবে।

৩. যে অঙ্কগুলো জটিল মনে হয় সেগুলো শেষদিকে করবে।
৪. সময়ের দিকে খেয়াল রেখে অঙ্ক করতে হবে।
৫. গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের তত্ত্ব ও সূত্রাবলি ভালোভাবে মনে রাখবে।
৬. পাঠ্যবইয়ের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্কগুলো বেশি বেশি প্র্যাকটিস করবে, কারণ সৃজনশীল অঙ্কে এরূপ সমস্যা উদ্দীপক আকারে জুড়ে দিতে পারে।

৭. একই সৃজনশীল অংকে ক, খ ও গ এর উত্তর পরপর লেখার চেষ্টা করবে।
৮. দুর্বল শিক্ষার্থীরা সহজমান প্রশ্ন অর্থাৎ ক-এর উত্তরটি ভালো করে দেওয়ার চেষ্টা করবে তাতে তোমার পাশের একটা উপায় তৈরি হয়ে যাবে।

৯.  অংক করার সময় মাথা ঠাণ্ডা রেখে অঙ্ক করবে।


১০. জ্যামিতিক চিত্রগুলো যেন সঠিক, সুন্দর ও স্পষ্ট হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

১১. কোনো সৃজনশীল প্রশ্নের ক, খ কিংবা গ এর কিছু অংশের সঠিক সমাধান নির্ণয় করতে না পারলে বিচলিত হবে না। কারণ তুমি যতটুকু অংশের সঠিক সমাধান করবে ততটুকু অংশেরই নম্বর পাবে।

১২. বহুনির্বাচনি প্রশ্নের উত্তর করার ক্ষেত্রে শর্টকাট পদ্ধতি অবলম্বন করবে, তাতে অনেক সময় বেঁচে যাবে।
১৩. বহুনির্বাচনি প্রশ্নের উত্তর করার সময় নির্ভুল হয়ে টিক দেওয়ার চেষ্টা করবে।
১৪. কোনো প্রশ্নের উত্তর না পারলে অহেতুক সময় নষ্ট না করে দ্রুত অন্য প্রশ্নে চলে যাবে।
১৫. উত্তরপত্রে কিছু লিখবে না। রাফ করার জন্য খাতায় একটি পাতা বাছাই করে নিয়ে রাফ করবে এবং পরে সেটি কেটে দেবে।

১৬. অনেক পরীক্ষার্থী উত্তরের একক লিখতে ভুলে যায়। তুমি এদিকে খেয়াল রাখবে, যেন একক লিখতে ভুলে না যাও।
১৭. অনেক সময় সহজ যোগ, বিয়োগ, গুণ, ভাগ তাড়াতাড়ি করতে গিয়ে ভুল হয়ে যায়। এ জন্য তাড়াহুড়া করা যাবে না।
১৮.পরীক্ষা শেষে অবশ্যই খাতা রিভিশন দেবে। তাতে ছোটখাটো ভুল ধরা পড়বে।

১৯. অনেকে ‘ক’ উত্তরে চিত্র দিয়ে ‘খ’ বা ‘গ’ উত্তরে চিত্র দেয় না। জ্যামিতিক চিত্র ছাড়া বর্ণনা বা প্রমাণ গ্রহণযোগ্য নয়।

মো. বদরুল ইসলাম পরীক্ষক (গণিত) : ঢাকা বোর্ড সহকারী শিক্ষক (গণিত) সরকারি বিজ্ঞান কলেজ সংযুক্ত হাইস্কুল ঢাকা

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ৮টি

  1. মো: এমরান আলী, প্রভাষক, পরিসংখ্যান , আবদুল মতিন খসরু মহিলা কলেজ, ব্রাহ্মনপাড়া, কুমিল্লা। says:

    সুন্দর উপদেশ দেবার জন্য ধন্যবাদ ।

  2. মানিক চান কর,সহকারী অধ্যাপক,কটিয়াদি কলেজ কটিয়াদি, কিশোরগঞ্জ। says:

    very good suggestion .

  3. মোঃ জাইদুল ইসলাম জাহিদ শিক্ষক উচ্চতর গণিত কাটাখালী বাজার রাজশাহী says:

    স্যারকে অনেক ধন্যবাদ সুন্দর
    পরামর্শ দেওয়ার জন্য ।

  4. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, সহঃ শিক্ষক। says:

    ধন্যবাদ ।

  5. মোহাম্মদ আলী মন্ডল (এটম), প্রভাষক (গণিত), রাজারহাট ফাজিল(ডিগ্রী) মাদ্রাসা,কুড়িগ্রাম। says:

    ধন্যবাদ , সুন্দর উপদেশের জন্য।

  6. মোঃ জাকির হোসেন বি,এস সি (গণিত) says:

    খুব সুন্দর উপদেশ,ধন্যবাদ স্যার কে।

আপনার মন্তব্য দিন