গৌরবের ১৪৪ বছরে রাজশাহী কলেজ - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

গৌরবের ১৪৪ বছরে রাজশাহী কলেজ

রাজশাহী প্রতিনিধি |

Rajshahi coll

উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাজশাহী কলেজের জন্মদিন আজ। প্রতিষ্ঠার ১৪৩ বছর পেরিয়ে ১৪৪ বছরে পা রাখলো এই কলেজটি। ১৮৭৩ সালের ১ এপ্রিল মাত্র ৬ জন ছাত্র নিয়ে রাজশাহী শহরে ‘রাজশাহী কলেজ’ নামে যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির বীজবপন করা হয়েছিল তা আজ এক ঐতিহ্যে পরিণত হয়েছে।

প্রমত্তা পদ্মা নদীর তীরে ৩৫ একর জমির ওপর দাঁড়িয়ে জ্ঞানের আলো জ্বালিয়ে যাচ্ছে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। শিক্ষা, শিল্প-সাহিত্যে, মননে-সৃজনে, বিজ্ঞানে-প্রযুক্তিতে অসাধারণ সাফল্য দেখিয়ে প্রতিষ্ঠানটি অবাক করে দিয়েছে সবাইকে।

বর্তমানে কলেজের এইচএসসিসহ ২৪টি বিভাগে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও ডিগ্রি পাস কোর্সে পড়ানো হয়। অধ্যয়ন করছেন প্রায় ২৭ হাজার শিক্ষার্থী। আর কর্মরত আছেন ২৪৮ জন শিক্ষক।

শুরুর কথা: রাজশাহী শহরে একটি কলেজ প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে নওগাঁর দুবলহাটির রাজা হরনাথ রায় চৌধুরী ১৮৭২ সালে তার জমিদারির একটি অংশ রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলকে দান করেন। তারই অর্থানুকূলে ১৮৭৩ সালের ১ এপ্রিল একজন মুসলিম ছাত্রসহ মোট ছয়জন ছাত্র নিয়ে কলেজিয়েট স্কুলের সঙ্গে বর্তমান রাজশাহী কলেজের উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণির সমমানের ফার্স্ট আর্টস কোর্স চালু হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ১৮৭৮ সালে বিএ এবং মাস্টার্স কোর্স খোলার অনুমতি প্রদান করা হয়।

কৃতী শিক্ষার্থীরা: পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসু, উপমহাদেশের খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক ঋত্বিক ঘটক, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি স্যার যদুনাথ সরকার, বৈজ্ঞানিক প্রথায় ইতিহাস চর্চার পথিকৃত অন্যতম সাহিত্যিক অক্ষয় কুমার মৈত্র, সাবেক প্রধান বিচারপতি হাবিবুর রহমান, জননেতা ও শিক্ষানুরাগী মাদার বখশ এবং বাংলাদেশের জাতীয় নেতার একজন এএইচএম কামারুজ্জামানের মতো বরেণ্য ব্যক্তিত্ব এ কলেজের ছাত্র ছিলেন।

প্রযুক্তির ছোঁয়া: একবিংশ শতাব্দির প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে রাজশাহী কলেজ ডিজিটাল করে নিয়েছে নিজেকে। কলেজের নিরাপত্তা বিধান করতে গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে সংযুক্ত থাকতে সব শিক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে ওয়াইফাই সুবিধা দেওয়া হয়েছে। ৮৮টি শ্রেণিকক্ষকে মাল্টিমিডিয়ায় রুপান্তর করা হয়েছে। তার জন্য শিক্ষকদের দেওয়া হয়েছে ৪৫০টি ল্যাপটপ। প্রত্যেক বিভাগে রয়েছে ব্রডব্র্যান্ডের ইন্টারনেট সংযোগ। কলেজের যাবতীয় তথ্য প্রদর্শনের জন্য প্রশাসন ভবনে লাগানো রয়েছে এলইডি সাইনবোর্ড।

অর্জন: কলেজকে আধুনিকীকরণ ও শিক্ষাক্ষেত্রে আধুনিক এবং ডিজিটাল ব্যবস্থা প্রবর্তনের জন্য অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান বিভাগীয় ‘ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড-২০১৬’ লাভ করেছেন। বিভাগীয় ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলায় রাজশাহী বিভাগে শ্রেষ্ঠ কলেজ হিসেবে বিবেচিত হয়েছে রাজশাহী কলেজ। এ ছাড়া উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় ২০১৩ ও ২০১৪ সালে রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডে প্রথম স্থান অর্জন করে এবং ২০১৪ সালে সরকারি কলেজের মধ্যে শ্রেষ্ঠ স্থান লাভ করে রাজশাহী কলেজ। কলেজ পর্যায়ে এবার বৃহত্তম মানবপতাকা প্রদর্শনের কৃতিত্ব লাভ করেছে এই কলেজ।

অ্যাকাডেমির বাইরে: শুধু অ্যাকাডেমিক পড়শোনা নয়- কলেজকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে বিভিন্ন জায়গায় বসানো হয়েছে ডাস্টবিন। ঘোষণা করা হয়েছে ধূমপানমুক্ত ক্যাম্পাস। গাছে লাগানো হয়েছে নামফলক। সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে তিনটি স্থানে করা হয়েছে ফুলের বাগান। এখানে আড়ম্বরের সঙ্গে পালন করা হয় বিভিন্ন দিবস-উৎসব। ডজন খানেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সহ-শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে রাজশাহী কলেজে।

রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান জানিয়েছেন, আজ শুক্রবার হওয়ায় দিবসটি উপলক্ষে কলেজে কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়নি। তবে আগামীকাল শনিবার বেশ জাকজমকপূর্ণভাবেই রাজশাহী কলেজের জন্মদিন উদযাপন করা হবে।

প্রাথমিক বৃত্তি পেল সাড়ে ৮২ হাজার শিক্ষার্থী - dainik shiksha প্রাথমিক বৃত্তি পেল সাড়ে ৮২ হাজার শিক্ষার্থী প্রধান শিক্ষকদের বেতন কেন ১০ম গ্রেডে নয়, জানালেন গণশিক্ষা সচিব (ভিডিও) - dainik shiksha প্রধান শিক্ষকদের বেতন কেন ১০ম গ্রেডে নয়, জানালেন গণশিক্ষা সচিব (ভিডিও) মুজিববর্ষে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণ দাবিতে শিক্ষকদের অবস্থান ৯ মার্চ - dainik shiksha মুজিববর্ষে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণ দাবিতে শিক্ষকদের অবস্থান ৯ মার্চ করোনা ভাইরাস : প্রাথমিক স্কুলে সচেতনতা বৃদ্ধির নির্দেশ - dainik shiksha করোনা ভাইরাস : প্রাথমিক স্কুলে সচেতনতা বৃদ্ধির নির্দেশ প্রাথমিকের নতুন শিক্ষকদের যোগদান নিয়ে যা বললেন প্রতিমন্ত্রী (ভিডিও) - dainik shiksha প্রাথমিকের নতুন শিক্ষকদের যোগদান নিয়ে যা বললেন প্রতিমন্ত্রী (ভিডিও) শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি-সদস্য পদে দুইবারের বেশি নয়: হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি-সদস্য পদে দুইবারের বেশি নয়: হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণ ৭ মার্চ জাতীয় দিবস ঘোষণার নির্দেশ হাইকোর্টের - dainik shiksha ৭ মার্চ জাতীয় দিবস ঘোষণার নির্দেশ হাইকোর্টের শিক্ষার্থীদের যৌন নির্যাতন, গোপন রাখতে কোরআন ছুঁইয়ে শপথ করালেন শিক্ষক - dainik shiksha শিক্ষার্থীদের যৌন নির্যাতন, গোপন রাখতে কোরআন ছুঁইয়ে শপথ করালেন শিক্ষক স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের আত্তীকরণ দ্রুত শেষ করতে হবে: শিক্ষামন্ত্রীর কড়া নির্দেশ - dainik shiksha স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের আত্তীকরণ দ্রুত শেষ করতে হবে: শিক্ষামন্ত্রীর কড়া নির্দেশ উপযুক্ত মানবসম্পদ তৈরিতে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha উপযুক্ত মানবসম্পদ তৈরিতে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই : শিক্ষা উপমন্ত্রী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website