চাঁদপুরে পদ্মা নদীতে কলেজছাত্র নিখোঁজ - বিবিধ - Dainikshiksha

চাঁদপুরে পদ্মা নদীতে কলেজছাত্র নিখোঁজ

চাঁদপুর প্রতিনিধি |

চরচাঁদপুরের ‘মিনি কক্সবাজার’ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া পদ্মা নদীর চরে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছেন কুমিল্লার এক কলেজছাত্র। তিনি কুমিল্লার বন কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামের ছেলে। বুধবার (১২ জুন) দুপুর ১২টার দিকে নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হন রাফিদুল ইসলাম রাফিদ।

রাফিদ কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড সরকারি মডেল কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র। তার সঙ্গী সাখাওয়াত, হাবীব, জিসান, সুদিপ্ত, মিঠু এবং রাজীব জানান, তারা আট বন্ধু বুধবার সকাল ৮টার দিকে চাঁদপুরের উদ্দেশে রওনা হন। চাঁদপুরের বড়স্টেশন এসে একটি ট্রলারে করে দুপুর ১২টার দিকে মিনি কক্সবাজার খ্যাত পদ্মা নদীর মাঝখানে জেগে উঠা চরে ঘুরতে যান তারা। সেখানে তারা সাঁতার কাটছিলেন। একপর্যায়ে ঢেউয়ের তোড়ে স্রোতের টানে নিখোঁজ হয়ে যান রাফিদ। তবে অন্য সাত জন তীরে ফিরে আসতে পারেন। 

চাঁদপুর নৌপুলিশের এসআই হালিম বলেন, ‘কলেজছাত্র নিখোঁজের খবর পেয়ে তার খোঁজে আমরা উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছি। তার বন্ধুরা আমাদের জানিয়েছে নদীতে গোসল করতে নেমে ঢেউয়ের আঘাতে সে পানিতে তলিয়ে যায়।’

চাঁদপুরের নৌপুলিশ সুপার জমশের আলী বলেন, ‘ওই এলাকায় যাওয়ার দরকার কী? এত ঝুঁকি নিয়ে মানুষ সেখানে যায় কেন? ওই কলেজছাত্রকে উদ্ধারে নৌপুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম কাজ করছে।’

জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান বলেন, ‘বিষয়টি দুঃখজনক। ঘটনা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

প্রসঙ্গত, চাঁদপুর জেলা শহরের প্রায় দেড় কিলোমিটার পশ্চিমে পদ্মা ও মেঘনার মাঝে গত বছর জেগে উঠেছে এ চরটি। এর চারদিক পদ্মা ও মেঘনার বিস্তৃত জলরাশি। চরটি সম্প্রতি কারও কারও কাছে মোহনার চর, কারও কাছে চাঁদপুরের সৈকত, আবার কারও কাছে মিনি কক্সবাজার নামে পরিচিত হয়ে উঠেছে।  

একাদশে ভর্তি: ২য় দফার আবেদন শুরু - dainik shiksha একাদশে ভর্তি: ২য় দফার আবেদন শুরু বিসিএসেও তৃতীয় পরীক্ষক চালু - dainik shiksha বিসিএসেও তৃতীয় পরীক্ষক চালু ডিগ্রি ২য় বর্ষ পরীক্ষার ফরম পূরণের সময় বাড়লো - dainik shiksha ডিগ্রি ২য় বর্ষ পরীক্ষার ফরম পূরণের সময় বাড়লো জিপিএ-৫ বিলুপ্তির পর যেভাবে হবে নতুন গ্রেড বিন্যাস - dainik shiksha জিপিএ-৫ বিলুপ্তির পর যেভাবে হবে নতুন গ্রেড বিন্যাস পাবলিক পরীক্ষার গ্রেড: যা আছে আর যা হবে - dainik shiksha পাবলিক পরীক্ষার গ্রেড: যা আছে আর যা হবে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় কঠোর নজরদারির নির্দেশ গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় কঠোর নজরদারির নির্দেশ গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর শিক্ষক নিবন্ধন: ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিষয়ের নতুন সিলেবাস দেখুন - dainik shiksha শিক্ষক নিবন্ধন: ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিষয়ের নতুন সিলেবাস দেখুন সার্টিফিকেট ছাপার আগেই ২ কোটি টাকা তুলে নিলেন ছায়েফ উল্যাহ - dainik shiksha সার্টিফিকেট ছাপার আগেই ২ কোটি টাকা তুলে নিলেন ছায়েফ উল্যাহ রাজধানীর সকল ফার্মেসি থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ এক মাসের মধ্যে সরিয়ে নিতে হবে: হাইকোর্ট - dainik shiksha রাজধানীর সকল ফার্মেসি থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ এক মাসের মধ্যে সরিয়ে নিতে হবে: হাইকোর্ট জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া  - dainik shiksha please click here to view dainikshiksha website