চার শিক্ষা কর্মকর্তা ও ইন্সট্রাক্টরকে তিরস্কার - বিবিধ - Dainikshiksha

চার শিক্ষা কর্মকর্তা ও ইন্সট্রাক্টরকে তিরস্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক |

অসদাচরণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় চারজনকে তিরস্কার দণ্ড দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এদের মধ্যে পিটিআইয়ের তিনজন ইন্সট্রাক্টর এবং একজন উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা। গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্র দৈনিকশিক্ষা ডটকমকে এ তথ্য জানিয়েছে।

তিরস্কৃত কর্মকর্তারা হলেন, দিনাজপুরের বিরল উপজেলার সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আশরাফুল করিম, মাগুড়া পিটিআইয়ের ইন্সট্রাক্টর মো. কামরুজ্জামান, ময়মনসিংহ পিটিআইয়ের ইন্সট্রাক্টর আনোয়ারুল করিম এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া পিটিআইয়ের ইন্সট্রাক্টর আব্দুল আওয়াল। 

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, অসদাচরণের অভিযোগে এ চার কর্মকর্তাকে তিরস্কার করা হয়েছে। এর আগে অসদাচরণের অভিযোগে অভিযোগনামা ও অভিযোগ বিবরণী পাঠিয়ে কর্মকর্তাদের শোকজ করা হলে তারা লিখিত জবাব দেন এবং ব্যক্তিগত শুনানিতে অংশগ্রহণ করেন। কর্মকর্তাদের ব্যক্তিগত শুনানির বক্তব্য, লিখিত জবাব এবং নথি পর্যালোচনা করে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

তাই, সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর বিধি ৩(ক) ও ৩(খ) মোতাবেক অদক্ষতা ও  অসদাচরণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এ চার কর্মকর্তাকে তিরস্কার লঘুদণ্ড প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। 

এ প্রেক্ষিতে দিনাজপুরের বিরল উপজেলার সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আশরাফুল করিম, মাগুড়া পিটিআইয়ের ইন্সট্রাক্টর মো. কামরুজ্জামান, ময়মনসিংহ পিটিআইয়ের ইন্সট্রাক্টর আনোয়ারুল করিম এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া পিটিআইয়ের ইন্সট্রাক্টর আব্দুল আওয়ালকে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর বিধি ৪(২)(ক) মোতাবেক তিরস্কার লঘুদণ্ড প্রদান করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। 

একাদশে ভর্তি: ২য় দফার আবেদন শুরু - dainik shiksha একাদশে ভর্তি: ২য় দফার আবেদন শুরু বিসিএসেও তৃতীয় পরীক্ষক চালু - dainik shiksha বিসিএসেও তৃতীয় পরীক্ষক চালু ডিগ্রি ২য় বর্ষ পরীক্ষার ফরম পূরণের সময় বাড়লো - dainik shiksha ডিগ্রি ২য় বর্ষ পরীক্ষার ফরম পূরণের সময় বাড়লো জিপিএ-৫ বিলুপ্তির পর যেভাবে হবে নতুন গ্রেড বিন্যাস - dainik shiksha জিপিএ-৫ বিলুপ্তির পর যেভাবে হবে নতুন গ্রেড বিন্যাস পাবলিক পরীক্ষার গ্রেড: যা আছে আর যা হবে - dainik shiksha পাবলিক পরীক্ষার গ্রেড: যা আছে আর যা হবে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় কঠোর নজরদারির নির্দেশ গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় কঠোর নজরদারির নির্দেশ গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর শিক্ষক নিবন্ধন: ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিষয়ের নতুন সিলেবাস দেখুন - dainik shiksha শিক্ষক নিবন্ধন: ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিষয়ের নতুন সিলেবাস দেখুন সার্টিফিকেট ছাপার আগেই ২ কোটি টাকা তুলে নিলেন ছায়েফ উল্যাহ - dainik shiksha সার্টিফিকেট ছাপার আগেই ২ কোটি টাকা তুলে নিলেন ছায়েফ উল্যাহ রাজধানীর সকল ফার্মেসি থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ এক মাসের মধ্যে সরিয়ে নিতে হবে: হাইকোর্ট - dainik shiksha রাজধানীর সকল ফার্মেসি থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ এক মাসের মধ্যে সরিয়ে নিতে হবে: হাইকোর্ট জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া  - dainik shiksha please click here to view dainikshiksha website