ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে শিক্ষক বরখাস্ত - স্কুল - Dainikshiksha

ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে শিক্ষক বরখাস্ত

পঞ্চগড় প্রতিনিধি |

পঞ্চগড়ের বোদা পাইলট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে একই প্রতিষ্ঠানের সহকারী শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক রাজুকে ৬ মাসের জন্য সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে শ্রেণিকক্ষ ও বিদ্যালয়ে প্রবেশ নিষিদ্ধ করাসহ ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। অভিযোগ তদন্তে ৫ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গত ২৬ আগস্ট বোদা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক রাজুর বোদা থানাপাড়ার বাসায় প্রাইভেট পড়তে গিয়ে ওই শিক্ষার্থী শ্লীলতাহানির শিকার হন। 

বোদা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক রাজুর বোদা থানাপাড়ার বাসায় প্রাইভেট পড়ত ওই ছাত্রী। গত ২৬ আগস্ট প্রতিদিনের মতো প্রাইভেট পড়তে যায়। সেখানে অন্য সহপাঠীরা না আসায় চলে আসতে চাইলে ওই শিক্ষক বসতে বলেন। বাসায় এবং আশেপাশে কেউ না থাকায় এক পর্যায়ে তাকে জড়িয়ে ধরে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালালে এক পর্যায়ে ছাত্রীটি সেখান থেকে বের হয়ে বাসায় গিয়ে বিষয়টি তার মাকে জানায়।  অভিভাবকরা তাকে নিয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল আলম সাবুলের কাছে গিয়ে বিষয়টি অবহিত করেন এবং একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে গত রোববার স্থানীয় সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, বোদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরেও লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন ওই স্কুলছাত্রী।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল আলম সাবুলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘আমি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের পর বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকমণ্ডলীর জরুরি সভায় তাকে ৬ মাসের জন্য সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। ৫ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

বোদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ মাহমুদ হাসান জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তসাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

এর আগেও ওই শিক্ষক অনুরূপ একটি ঘটনা ঘটিয়েছিলেন। সেবারও তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে হুঁশিয়ার করে দেন। 

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদনের সময় বাড়ছে না - dainik shiksha ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনে আবেদনের সময় বাড়ছে না প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পেলে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পেলে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পাবলিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০ করার উদ্যোগ - dainik shiksha পাবলিক পরীক্ষায় পাস নম্বর ৪০ করার উদ্যোগ ৫ বছরে পৌনে দুই লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে - dainik shiksha ৫ বছরে পৌনে দুই লাখ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে প্রাণসহ ৫ কোম্পানির নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা - dainik shiksha প্রাণসহ ৫ কোম্পানির নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা কলেজের নবসৃষ্ট পদে এমপিওভুক্তির নির্দেশনা - dainik shiksha কলেজের নবসৃষ্ট পদে এমপিওভুক্তির নির্দেশনা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website