please click here to view dainikshiksha website

জবির সাধারণ ছাত্ররা পরিবহন সংকটে বাস পেল নৈশ শিক্ষার্থীরা

জবি প্রতিনিধি | ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮ - ১২:৪৭ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত শিক্ষার্থীদের পরিবহন সমস্যার সমাধান না করে সান্ধ্যকালীন কোর্সের শিক্ষার্থীদের পরিবহন সুবিধায় আনছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন। এ পরিবহন ব্যবস্থায় নতুন কোনো বাস সংযোগ না করে ব্যবহার করা হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বাস। এ দিকে, শিক্ষার্থীদের পরিবহন সমস্যার সমাধান এবং ডাবল ট্রিপের ব্যবস্থা না করে সান্ধ্যকালীন কোর্সের শিক্ষার্থীদের পরিবহন সুবিধায় আনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সেলিম ভুঁইয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসককে মৌখিক নির্দেশনা দেন সান্ধ্যকালীন কোর্সের শিক্ষার্থীদের পরিবহন সুবিধা চালুর জন্য। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসের সময়সূচিসহ পরিবহন ব্যবস্থা পরিবহন দপ্তর থেকে পরিচালিত হলেও সান্ধ্যকালীন কোর্সের শিক্ষার্থীদের বাসের সময়সূচি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের সাবেক ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ মনিরুজ্জামানের উপর। এ দিকে সান্ধ্যকালীন শিক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত বাস চালু করা হলেও এখন পর্যন্ত এ পরিবহন ব্যবস্থার ব্যয় কোনো খাত থেকে ব্যবহার করা হবে তাও নির্দিষ্ট করা হয়নি। ফলে সান্ধ্যকালীন শিক্ষার্থীদের পরিবহন ব্যয়ও বহন করা হচ্ছে পরিবহন দপ্তর থেকে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এক জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক বলেন, সান্ধ্যকালীন শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বাস ব্যবহারে সুবিধা প্রদান করা অনৈতিক। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বাস সান্ধ্যকালীন শিক্ষার্থীরা ব্যবহার করতে পারে না। সান্ধ্যকালীন শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আসাদগেট এবং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রামপুরা পর্যন্ত শুক্র, শনি ও রবিবার রাত ৯টা চল্লিশ মিনিটে দুটি বাস চলবে।

জানা যায়, অনাবাসিক জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ২০ হাজার শিক্ষার্থীর পরিবহনের জন্য আছে মাত্র ১৬টি বাস। এই বাসে ঝুঁকি নিয়ে দুই হাজার শিক্ষার্থী যাতায়াত করেন। বাকি শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন সুবিধা থেকে বঞ্চিত। পরিবহন সমস্যার সমাধানে শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন ধরে ডাবল ট্রিপ চালুর দাবি করে আসছেন।

জবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি মুজাহিদ অনিক বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবি না মেনে ব্যবসায়িক স্বার্থে সান্ধ্যকালীন কোর্সের শিক্ষার্থীদের জন্য বাস সুবিধা চালু করেছেন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের ডিন অধ্যাপক ড. শওকত জাহাঙ্গীর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের অনুমতিক্রমে সান্ধ্যকালীন শিক্ষার্থীদের জন্য বাস চালু করা হয়েছে। সান্ধ্যকালীন কোর্সের শিক্ষার্থীরা অনেক রাতে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফেরেন; তাই তাদের সুবিধার্থে বাস চালু করা হয়েছে। আর তারা তো বিশ্ববিদ্যালয়ে টাকা দিয়েই পড়াশুনা করেন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. সেলিম ভুঁইয়া বলেন, সান্ধ্যকালীন শিক্ষার্থীদের সুবিধায় রাতের বেলা বাস চালু করা হয়েছে। এ বাসে সাধারণ শিক্ষার্থীরাও যেত পারবেন। সাধারণ শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন যাবত্ দিনের বেলা ডাবল ট্রিপের দাবি করলেও তাদের দাবি পূরণ না করে সান্ধ্যকালীন শিক্ষার্থীদের জন্য বাস চালু প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দিনের বেলা সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য ডাবল ট্রিপ চালু করা সম্ভব নয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন