জাতীয়করণকৃত কলেজে আত্তীকরণে বৈষ্যম্যের অভিযোগ - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

জাতীয়করণকৃত কলেজে আত্তীকরণে বৈষ্যম্যের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

সম্প্রতি জাতীয়করণ হওয়া সরকারি কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীদের আত্তীকরণে বৈষ্যম্যের অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষক-কর্মচারীদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। অবিলম্বে আত্তীকরণে বৈষম্য দূর করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা। এ বিষয়ে গত ২২ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো: সোহরাব হোসাইনের কাছে বৈষম্যের শিকার  ১১ জন অধ্যক্ষ একটি আবেদন করেছেন।

ঢাকার পল্লবী বঙ্গবন্ধু সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল আজিজ সরকার, মাদারীপুরের কালকিনি শেখ হাসিনা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ জাকিয়া সুলতানা এবং কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনার রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ইসলাম উদ্দীনসহ বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষরা দৈনিকশিক্ষা ডটকমকে জানান, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী প্রতিটি উপজেলায় একটি কলেজ ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হয়। সম্প্রতি ১৭টি কলেজ জাতীয়করণ করা হয়েছে। এছাড়া আরো ২৮৫টি কলেজ জাতীয়করণের প্রক্রিয়ায় রয়েছে। আত্তীকরণের বিধিমালা ২০০০ বৈষ্যমমূলক হওয়ায় ২০১৬ খ্রিস্টাব্দে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ সেটা রহিত করে নতুন করে আত্তীকরণ করার নির্দেশ দেন। সে অনুযায়ী আত্তীকরণ বিধিমালা ২০১৮ তৈরি করা হচ্ছে। সেখানে  শিক্ষক-কর্মচারীরা স্কেলে স্বপদে বহাল থেকে ননক্যাডার হিসেবে আত্তীকরণ হতে পারবেন।

কিন্তু প্রথম ধাপে জাতীয়করণ হওয়া ১৭ কলেজের অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষের বিষয়ে স্পষ্ট কোন নির্দেশনা দেয়া হয়নি। অথচ জাতীয়করণকৃত ১৭টি কলেজের যাদের কাম্য যোগ্যতা নেই, তাদেরও আত্তীকরণ ২০১৮ বিধিমালায় ননক্যাডার হিসেবে আত্তীকরণের কথা বলা হয়েছে। সেক্ষেত্রে কাম্য যোগ্যতা না থাকা সত্ত্বেও যারা সহকারী অধ্যাপক হিসেবে ৩৫ হাজার টাকা স্কেলে তারাও স্বপদে বহাল থাকছেন। অথচ ওই কলেজের অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষরা ২২ হাজার টাকা স্কেলে প্রভাষক হিসেবে নিয়োগ পাবেন। 

আবার আত্তীকরণ বিধিমালা ২০০০ অনুযায়ী পাস কোর্স ও ৩য় বিভাগধারী শিক্ষকগণ যারা আত্তীকরণ হবেন না, তারাও নতুন বিধিমালা-২০১৮ অনুযায়ী আত্তীকরণ হবেন। অথচ অধ্যক্ষদের ২০০০ বিধি অনুযায়ী প্রভাষক পদে যোগদান করতে হবে এবং কোন বদলি হবে না। একজন অধ্যক্ষ যে কলেজে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করছেন এবং অধ্যাপকের বেতন পেয়ে আসছেন, সেই কলেজে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করে চাকরি করা কষ্টদায়ক হবে বলেন অধ্যক্ষরা। বিষয়টি অমানবিক ও অমর্যাদাকরও মনে করছেন তারা। সেক্ষেত্রে ২০১৮ বিধিমালাতে আত্তীকরণ হতে চান ভুক্তভোগী এসব অধ্যক্ষ।

যেসব সহকারী অধ্যাপকের কাম্য যোগ্যতা আছে, তারাও প্রভাষক হচ্ছেন। আর যাদের কাম্য যোগ্যতা নেই, তারা সিনিয়র স্কেলে উচ্চতর পদে বহাল থাকছেন। এতে বৈষ্যম্যের সৃষ্টি হবে। এজন্য দ্রত সময়ের মধ্যে শিক্ষক-কর্মচারীদের যোগ্যতা মূল্যায়ন করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগীরা। 

এসএসসি পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন প্রকাশ - dainik shiksha এসএসসি পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন প্রকাশ দাখিল পরীক্ষার সংশোধিত সূচি প্রকাশ - dainik shiksha দাখিল পরীক্ষার সংশোধিত সূচি প্রকাশ সিটি নির্বাচনের কারণে বইমেলাও পেছাল - dainik shiksha সিটি নির্বাচনের কারণে বইমেলাও পেছাল এবারও ভুল! একটি অধ্যায় বাদ দিয়ে ১৩ লাখ পাঠ্যবই বিতরণ - dainik shiksha এবারও ভুল! একটি অধ্যায় বাদ দিয়ে ১৩ লাখ পাঠ্যবই বিতরণ ৫০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র কেনা যাবে একক নামে - dainik shiksha ৫০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র কেনা যাবে একক নামে ১৫তম নিবন্ধনে উত্তীর্ণদের সনদ প্রস্তুত - dainik shiksha ১৫তম নিবন্ধনে উত্তীর্ণদের সনদ প্রস্তুত প্রাথমিকের শিক্ষকদের নিয়ে প্রতিমন্ত্রীর ভগ্নাংশের অঙ্ক - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষকদের নিয়ে প্রতিমন্ত্রীর ভগ্নাংশের অঙ্ক শিক্ষার্থীদের ধারাবাহিক মূল্যায়ন নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী (ভিডিও) - dainik shiksha শিক্ষার্থীদের ধারাবাহিক মূল্যায়ন নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী (ভিডিও) দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার আসল ফেসবুক পেজে লাইক দিন ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটির তালিকা ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা ২০২০ খ্র্রিষ্টাব্দে মাদরাসার ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০২০ খ্র্রিষ্টাব্দে মাদরাসার ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website