জাতীয়করণের প্রজ্ঞাপন জারির দিন থেকেই অ্যাডহক নিয়োগ - সরকারিকরণ - Dainikshiksha

জাতীয়করণের প্রজ্ঞাপন জারির দিন থেকেই অ্যাডহক নিয়োগ

ফারহানা আক্তার |
জাতীয়করণের প্রজ্ঞাপন জারির দিন থেকেই অ্যাডহক নিয়োগের ক্ষণ গণনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বুধবার(১৮ জুলাই) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত আন্ত:মন্ত্রণালয়ের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো: সোহরাব হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে জনপ্রশাসন এবং অর্থ মন্ত্রণালয় ও মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এর ফলে জাতীয়করণের প্রজ্ঞাপন জারি হওয়া প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের উদ্বেগ-উৎকন্ঠার অবসান ঘটেছে।     
 
কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করা হলে বেসরকারি আমলে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের নতুন করে নিয়োগ দেয় সরকার। সেই নিয়োগটি হয় অ্যাডহক নিয়োগ। এভাবে জাতীয়করণকৃত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-কর্মচারীদের আত্তীকৃত করা হয়। আ্ত্তীকরণের ২০০০ বিধি অনুযায়ী কলেজের ক্ষেত্রে অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ-সহকারী অধ্যাপক নির্বিশেষে সবাইকে প্রভাষক হিসেবে অ্যাডহক নিয়োগ দেয়া হয়। স্কুলের ক্ষেত্রে এরশাদ জমানার ৮৩ বিধি অনুযায়ী স্ব স্ব পদে নিয়োগ দেয়া হয়।   
 
বুধবারের আন্ত:মন্ত্রণালয় বৈঠক শেষে মাধ্যমিক উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, ‘জাতীয়করণকৃত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জনবল আত্তীকরণের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য অনুষ্ঠিত সভায় শিক্ষা সচিব মহোদয়সহ সবাই একমত পোষণ করেন যে, প্রজ্ঞাপন জারির দিন থেকেই অ্যাডহক নিয়োগের ক্ষণ গণনা হবে।’ 
 
তিনি বলেন, ‘প্রজ্ঞাপন জারি ও অ্যাডহক নিয়োগের মধ্যকার অস্বাভাবিক বিলম্বের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা দায়ী নন। জাতীয়করণের কয়েকটি ধাপ পেরিয়ে হয় শিক্ষক-কর্মচারীদের অ্যাডহক নিয়োগ। এতে কয়েক বছর পর্যন্ত লেগে যায়। কিন্তু সে সময় থেকে ক্ষণ গণনা শুরু করলে শিক্ষকরাই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। সেটা সরকারের কাম্য নয়।’
 
বৈঠকে উপস্থিত একজন উপসচিব বলেন, সব উৎকন্ঠার অবসান হয়েছে। অ্যাডহক নিয়োগ যেদিনই হোক প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ ঘোষণার প্রজ্ঞাপন জারির দিনে থেকেই নিয়োগের ক্ষণ গণনা শুরু হবে। ফলে কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হবেন না।  
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পাওয়া তথ্যমতে, জাতীয়করণের লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সম্মতিপ্রাপ্ত হাইস্কুলের সংখ্যা ৩২৫টি। এ পর্যন্ত ১৩০টির জন্য জাতীয়করণের সরকারি আদেশ (জিও) জারি হয়েছে। সরাসরি জাতীয়করণে জিও জারি হয়েছে ১২টি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের। 
 
বৈঠকে জাতীয়করণকৃত স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী প্রধান শিক্ষকদের স্বপদে বহাল থাকার এরশাদ জমানার বিধান নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি। 
 
রাজধানীর সরকারিরূ পনগর মডেল স্কুল এন্ড কলেজের একজন শিক্ষক দৈনিক শিক্ষাকে জানান, ‘খুবই টেনশনে ছিলাম, প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে বছর পূরতে চলল। কিন্তু আমাদের অ্যাডহক নিয়োগ হয়নি আজও। বৈঠকের সিদ্ধান্ত দৈনিক শিক্ষার মাধ্যমে জানতে পেরে খুবই খুশি লাগছে।’   
তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত মূল্যায়নের পদ্ধতি খুঁজছে এনসিটিবি - dainik shiksha তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত মূল্যায়নের পদ্ধতি খুঁজছে এনসিটিবি নতুন স্কেলে কল্যাণের টাকা পেতে আবার আবেদন, শিক্ষকদের ক্ষোভ - dainik shiksha নতুন স্কেলে কল্যাণের টাকা পেতে আবার আবেদন, শিক্ষকদের ক্ষোভ ঘুষ লেনদেন ছাড়া প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি হয় না - dainik shiksha ঘুষ লেনদেন ছাড়া প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি হয় না দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও পেতে পারে - dainik shiksha দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও পেতে পারে সাড়ে তিন লাখ সরকারি পদ শূন্য - dainik shiksha সাড়ে তিন লাখ সরকারি পদ শূন্য প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী মাসেই - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী মাসেই সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website