please click here to view dainikshiksha website

জাতীয়করণ : বাজেটে বরাদ্দ না দিলে ফের অনশনে যাবেন শিক্ষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক | ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৮ - ১১:৫৯ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

আগামী অর্থবছরে (২০১৮-১৯) এমপিওভূক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের জন্য বরাদ্দ রাখার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ও শিক্ষক কর্মচারী সংগ্রামী ঐক্যজোট। বাজেটে বরাদ্দ না রাখলে ফের জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আমরণ অনশনে যাবেন শিক্ষকরা। রোববার রাজধানীর মীরপুর সিদ্ধান্ত হাইস্কুলে সমিতির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত হয় মর্মে দৈনিকশিক্ষাডটকমকে জানিয়েছেন শিক্ষক কর্মচারী সংগ্রামী ঐক্যজোটের প্রধান সমন্বয়কারী মোঃ নজরুল ইসলাম রনি।

সভায় প্রায় ৫ লাখ এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকুরি জাতীয়করণে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দ ও আগামী মার্চের এমপিওর সাথে বকেয়াসহ ৫ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট ও বৈশাখী ভাতা প্রদানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন শিক্ষক নেতৃবৃন্দ। শিগগিরই বেসরকারী শিক্ষা জাতীয়করণের প্রয়োজনীয়তাসহ দাবি পূরণে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে পত্র দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় সভায়।

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও শিক্ষক কর্মচারী সংগ্রামী ঐক্যজোটের প্রধান সমন্বয়কারী মোঃ নজরুল ইসলাম রনির সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি মীর আব্দুল মালেক ,মহাসচিব মোঃ রবিউল আলম, যুগ্ম মহাসচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম, অর্থসচিব আবুল বাশার বাদশা, সমিতির সহ-সভাপতি মোঃ শাখাওয়াত হোসেন, মোঃ মোহসিন উদ্দিন, মোঃ আমিনুল ইসলাম, বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতির সভাপতি মুঞ্জুরুল আমিন শেখর এবং মহাসচিব মোঃ বদরুজ্জামান বাদল প্রমুখ।
মোঃ নজরুল ইসলাম রনি বলেন, শিক্ষা জাতীয়করণ একটি বিশাল প্রেক্ষাপট হলেও প্রতিষ্ঠানের আয় রাষ্ট্রীয় কোষাগারে ফেরৎ নিয়ে শিক্ষা জাতীয়করণ করলে এতে সরকারের আর্থিক তেমন ক্ষতি হবে না। আর জাতীয়করণ কেবলমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষেই সম্ভব।

বর্তমান সময়ে বেসরকারী এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীরা চরমভাবে বেতন বৈষম্যের শিকার। বেসরকারী এমপিওভূক্ত শিক্ষকরা বর্তমানে শতভাগ বেতন ভাতা সরকারীভাবে পেলেও বাড়ি ভাড়া মাত্র এক হাজার টাকা, চিকিৎসা ভাতা ৫০০ টাকা, ঈদ বোনাস শিক্ষকরা পান ২৫ শতাংশ এবং কর্মচারীরা ৫০ শতাংশ। সারা জীবনের একটিমাত্র টাইম স্কেল তাও বর্তমানে বন্ধ রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ৫১টি

  1. Ab Jalil says:

    ঊর্ধ্বতনদের বেতন – ভাতা বৃদ্ধির জন্য ঘন ঘন বিল পাস হয়, শুধু বেসরকারি শিক্ষকরা ন্যায্য পাওনা চাইতে গেলেই তা হয়ে যায় অনৈতিক দাবী !

  2. সোহেল says:

    ননএমপিও শিক্ষকরা না খেয়ে আছে আগে ননএমপিওদের এমপিও ভুক্তি তার পর জাতীয়করন।তারা এমন এক পযার্য়ে আছে যা কাউকে কিছু বলতে পারছে না খুব অসহায়।কেউর কাছে কিছু চাইতে পারছে না বলতে না কাজ করতে।

  3. firoz alom says:

    টাইম স্কেল বন্ধ করাটা একটি আত্মঘাতি সিদ্বান্ত। শিক্ষক দের সামা
    ন্য একটি সুযোগ দিয়ে তা কেড়ে নেওয়া অত্যন্ত নোংরামি আর লজ্জার ব্যাপার ছাড়া কিছুই না।

  4. মো: রহিদুল আলম says:

    জাতীয়করণ হলে সবাই সুবিধা পাবেন।

  5. বিশ্বজিৎ রায় says:

    ১০ বছরে উচ্চতর স্কেল ( আগেকার টাইম স্কেল) ছাড় করুন। হাজার হাজার শিক্ষক কর্মচারী অপেক্ষায় বসে আছে, না পাওয়ার দু:খে শ্রেণি পাঠদানে প্রভাব পড়ছে।

  6. mujibur rahman says:

    আগে ৫% এর দাবী নিয়ে আন্দোলন করুন পরে জাতীয়করণ

  7. rehana says:

    আপনার মন্তব্য thank you sohel vai

  8. এখলাছুর রহমান says:

    অনশনের সময় যারা তাড়াহুড়া করে ঘনঘন পাল্টা দালালীর কর্মসূচী দিল তারা এখন কোথায় লুকালো?

  9. Shaheb Hasan says:

    সরকার বাহাদুর, আশ্বাস পেতে পেতে নিশ্বাস বন্ধ হওয়ার উপক্রম। আপনিই পারবেন,কেন নয়। না হয় আরেকটি মুক্তি যুদ্ধ হবে

  10. MD.Shahin-Assistance teacher Bangla. Taltali Barguna says:

    সরকারের শিক্ষা মন্ত্রীর তো বার টা, জাতীয়করনের কপালে আছে কয়টা আল্লাহ ভালো জানেন।।

  11. মোঃ মিজানুর রহমান। says:

    আমরা বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীরা এখন আর মূল বেতন স্কেলের ১০০% পাইনা। এটা ২০১৫ সালে যখন অষ্টম জাতীয় পে-স্কেল দেওয়া হয়েছিল তখন পেতাম। ৫% বার্ষিক প্রবৃদ্ধি যুক্ত হয়ে পরের বছর তা মূল স্কেলে পরিণত হয়। আমরা এখন মূল স্কেলের কত % পাচ্ছি কেউ হিসাব করে বলবেন কী? তাছাড়া আমাদেরকে এ সরকারের আমলে দেওয়া হয় “অনুদান সহায়তা” যা রীতিমত অপমানজনক ও আপত্তিকর।

  12. Md Jahid Ullah says:

    Nationalization is demand of heart of all MPO institution.

  13. Md.Iqbal Hossain says:

    রনি স্যার, আপনাকে সালাম এবং ধন্যবাদ। আপনার সাথে আমরা একমত।

  14. Shahjahan,Lecturer says:

    এই সরকারের শিক্ষামন্ত্রী ব্যর্থ।৫%ইনক্রিমেন্ট,বৈশাখী ভাতা,বাড়ি ভাড়া,পূর্নাংগ উৎসব ভাতা না দেওয়ায় শিক্ষকদের মাঝে হতাশা বিরাজ করছে।শিক্ষকরা ক্লাস এ মনযোগী হতে পারছেনা, তাই তারা কোচিং, প্রাইভেট ও অন্যান্য ব্যবসাবাণিজ্য নিয়ে ব্যস্ত।

  15. Mir Mahmud Hossain, Shahid Smrity Degree College. says:

    সবই ঠিক থাকে কিন্তু শেষের দিকে সবকিছু নষ্ট হয়ে যায়। অবসর প্রাপ্ত ছাড়া কি শিক্ষক নেতা হয়না? নাকি শিক্ষকতায় বহাল থাকাদের মধ্যে কোন যোগ্য নেতা নেই?

  16. কামরুল ইসলাম।লাউতলী হাই স্কুল,বেগমগন্জ,নোয়াখালী, says:

    আমিও আছি।

  17. মোঃমোস্তফা কামাল says:

    বে সরকারী শিক্ষকদের প্রতি মাননীয় প্রধানমন্তীর সু দৃস্টি কামনা করছি। কতকাল তারা অবহেলার পাএ থাকবে ।

  18. সমীর গুপ্ত, সহ:শিক্ষক,(বি.এস-সি,বি.এড) says:

    আমাদের অবহেলা না করে ন্যায্য দাবী মেনে নেয়া হউক ।

  19. অনিমেষ বালা। সহকারী শিক্ষক, ধাওড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়,শৈলকুপা, ঝিনাইদহ। says:

    একটা ঘোষনা দিবেন তো।

  20. nurunnabe says:

    prodhan montirir sommotei jotesta.oni bollei hobe amader jatio koron .

  21. রফিকুল ইসলাম বি,এসসি, ঘাটাইল, টাংগাইল says:

    আগে ৫% আদায় করে দেন,পরে জাতিয়করণ। ইনডেক্সধারিরা অন্য বিদ্যালয়ে যাওয়ার আইন চাই।

  22. নাঈম says:

    বেসরকারী শিক্ষক সমিতির চোরদের কথা এবং কাজে যতকাল কোন মিল থাকবেনা ততকাল এই সেক্টরের কপাল জীবনেও খুলবেনা।

  23. মোঃ শাহিন কবির, সহকারি শিক্ষক, জামিরবাড়ীয়া খোদেজা হামিদ উচ্চ বিদ্যালয়, গাবতলী, বগুড়া। says:

    1.সামনে বাজেটে জাতীয়করণ করলে, প্রতিষ্ঠানের সমস্ত আয় ব্যয় সরকারের কোষাগারে জমা হবে। ফলে, জাতীয়করণের কোন অর্থের প্রভাব পড়বে না। ইনশাআল্লাহ।
    ২. একই প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘ দিন চাকুরি করলে,শিক্ষা খেতে একঘেয়েমি থাকে। তাই বদলি প্রক্রিয়া রাখতে হবে।

  24. মো‌ঃর‌ফিকুল ‌ইসলাম.‌দাফ‌ব‌দা‌‌মা,‌রৌ,‌কু says:

    শিক্ষা ‌‌‌জা‌তি‌র ‌‌মেরু‌‌দন্ড,‌তাই শিক্ষা ‌ব্যব‌স্হা‌ ‌জাতী‌য়করণ‌ ‌করা ‌খুবই‌ ‌জরুর‌ী।

  25. saiful says:

    আপনার মন্তব্য শিক্ষক সংগঠন বলতে কিছু আছে কি?

  26. আকরাম says:

    ৫ লক্ষ শিক্ষকের নেতা নজরুল ইসলাম রনিকে ধন্যবাদ।শিক্ষকদের কষ্ট আপনি বোঝেন।

  27. মোঃ সুলতান উদ্দিন মাহমুদী,নেত্রকোনা। says:

    দলমত নির্বিশেষে সবাই একমত হয়ে কাজ করতে হবে। তাহলেই জাতীয় করণ আশা করতে পারি।

  28. এইচ,এম কাজল হায়দার,প্রধান শিক্ষক, সাউথ বড়ইয়া নাছিমা খাতুন নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়। । says:

    বে সরকারি শিক্ষকদের জাতীয়করন করতে যে অর্থ দরকার। তা আমরা আদায় করে দিতে পারব।তাই বে সরকারি শিক্ষকদের চাকুরি জাতীয়করন করুন।

  29. লাবলু এম.এসসি says:

    সাজু চাচা, চোরের খালাতো ভাই।রনি চাচা, বাপের বেটা সাদ্দামের ভাই । জাতীয়করন, রনি ছাড়া উপায় নাই ।

  30. আব্দুর রহমান, খানজাহান আলী কলেজ, শিরোমণি, খুলনা says:

    তৃতীয় শিক্ষকরা রাস্তার বেওয়ারিশ কুকুরের মত জীবন যাপন করছে সে বিষয়ে কারো কোন নজর নেই এমনকি সরকারের ও নেই।তৃতীয় শিক্ষকদের নিয়োগ বাতিল করে পরিপত্র জারি করা হোক।এমপিও না দেয়াটা অন্যায় কিন্তু সরকার সেটাই করছে।আমরা অসহায় প্রতিবাদ করারা কোন ভাষা আমাদের নেই।তাই এমপিও না দিতে পারলে তৃতীয় শিক্ষকদের নিয়োগ বাতিল করে পরিপত্র জারি করুণ তাড়াতাড়ি।আমরা অন্য পেশা খুজে নেব।এমপিও দেবেননা আবার নিয়োগ চালু রাখবেন এটা হয়না।হয় এমপিও দিতে হবে নাহয় সকল তৃতীয় শিক্ষকদের নিয়োগ বাতিল করতে হবে।

  31. রবীন্দ্রনাথ তরফদার says:

    কিছু দিন পূর্বে আন্দোলন চাঙ্গা হয়ে উঠেছিল। তখন সংগ্রাম পরিষদ আন্দোলন থামিয়ে দিলেন। আবার আন্দলনে যাচ্ছে। Teacher পাবেন না।

  32. Gopal Chandra Basak.Assistant Professor of Zoology. says:

    Nationalization is a important and top priority matter for our nation. Because all student are need to the equal facilities for study in their Education.

  33. Shahjahan,Lecturer says:

    এ সরকার শিক্ষাক্ষেত্রে বৈষম্য সৃষ্টি করছে।মাধ্যমিক স্কুল ও কলেজ এর শিক্ষকরা ৫%ইনক্রিমেন্ট,বৈশাখী ভাতা, বাড়ি ভাড়া, পূর্নাংগ উৎসব ভাতাও অন্যান্য সুযোগসুবিধা থেকে বঞ্চিত। সুষ্ট নির্বাচন হলে কোন শিক্ষক এই সরকারকে ভোট দিবে মনে হয়না।

  34. মোঃশফিকুল ইসলাম, উলিপুর,কুড়িগ্রাম । says:

    ননএমপিও শিক্ষকরা না খেয়ে আছে আগে ননএমপিওদের এমপিও ভুক্তি তার পর জাতীয়করন।তারা এমন এক পযার্য়ে আছে যা কাউকে কিছু বলতে পারছে না খুব অসহায়।কেউর কাছে কিছু চাইতে পারছে না।অতএব আগে এমপিও ভুক্তি তার পর জাতীয়করন।

  35. মোঃ শাহিন কবির, সহকারি শিক্ষক, জামিরবাড়ীয়া খোদেজা হামিদ উচ্চ বিদ্যালয়, গাবতলী, বগুড়া। says:

    জাতীয়করণ মানেই দেশের উন্নয়ন। তাই সামনের বাজেটে জাতীয়করণের জন্য অর্থ বরাদ্দ করুণ।

  36. শাহাদাত হোসাইন says:

    শিক্ষকের ন্যায্য দাবি পূরনে এত অনীহা কেন?

  37. মো: ফেরদৌসুর রহমান। (সহ:শি:)রংনাথ দাখিল মাদ্রাসা,পীরগাছা,রংপুর। says:

    বেসরকারী এম,পি,ও ভূক্ত শিক্ষকদের দাবী ৫% ইনক্রীমেন্ট, বৈশাখী ভাতা,১০০ভাগ উৎসব ভাতা। এই তিনটি দাবী পুরন করলেও চলবে।

  38. মোঃ নুরুন্নবী says:

    রনি স্যারকে ধন্যবাদ।তবে আমার প্রাণের দাবি টাইম স্কেল। যেখানেই মিটিং ,মিছিল.সেমিনার যাহাই করুন, সেখানেই টাইম স্কেলের কথা তুলে ধরবেন।

  39. এম এ আলম says:

    5% ইনক্রিমেনট. 100% বোনাস, বৈশাখী ভাতা ……….যৌক্তিক দাবি

  40. jewel rana.k h collage birampur.dinajpur says:

    Shikkhok jatiokoron chai.

  41. md,shahidullah,sinior assisstant teacher.Fulagicha secondary school says:

    দৈনিক শিক্ষা পত্রের মন্তব্যগুলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে মনে হয় কপি করে দিলে তিনি দেখতেন এবং যোগ্যতর মন্তব্যগুলো তার দৃশ্যপটে ভেসে উঠত।নজরুল ইসলাম রনি ভাই আমাদের নেতা হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন,তাই তাকে ৫০০০০০(পাঁচ লক্ষ)শিক্ষকের পক্ষ থেকেধন্যবাদ।

  42. Shahjahan,Lecturer says:

    এ সরকার শিক্ষকদের মনোবল নষ্ট করে দিয়েছে।মাধ্যমিক স্কুল ও কলেজ এর শিক্ষকরা ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত। ২০০৪ সালে বিএনপির দেওয়া ২৫% উৎসব ভাতা এখন ও হতভাগ্য শিক্ষকসম্প্রদায় পাচ্ছি… হায়রে শিক্ষাবান্ধব সরকার…

  43. sharifmaster says:

    Where is the alternative of time scale of mpo teachers. Govt. Employees are getting auto scale changing after 10 & 16 years job completion but mpo teachers are deprived

  44. মোঃ মাহবুবুর রহমান, সহকারী শিক্ষক, অশদিয়া বালিকা বিদ্যালয়, নোয়াখালী। says:

    জাতীয়করণ করতেই হবে।

  45. মো: দেলওয়ার জাহান চারঘাট রাজশাহী says:

    আপনার মন্তব্য মার্চের বেতনের সাথে ৫% ইনক্রিমেনট ও বৈশাখী ভাতা পাব বলে আমরা সবাই আশা করছি |

  46. swapan kumar das says:

    মার্চের বেতনের সাথে ৫% প্রবৃদ্বি ও বৈশাখি ভাতা চাই ৷

  47. Farjana,Lecturer says:

    ৫% ইনক্রিমেন্ট,বৈশাখী ভাতা আগামী মার্চ মাসের এমপিও এর সাথে দেওয়ার ব্যবস্থা করুন।

  48. মোঃঅালমগীর ৷ সিনিয়র শিক্ষক ,হাঁসাড়া কালী কিশোরস্কুল এণ্ড কলেজ। says:

    ইনডেক্সধারী শিক্ষকদের অন্যপ্রতিষ্ঠানে বদলির ব্যবস্থা করুন।

  49. Ibrahim khalil .Asst Teacher .Dhanagoda Taltoli H.School. says:

    জাতীয়করণের দাবী মেনে নিন।

আপনার মন্তব্য দিন