জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং বন্ধের নির্দেশ ইউজিসির - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং বন্ধের নির্দেশ ইউজিসির

জাবি প্রতিনিধি |

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) র‌্যাগিং বন্ধে প্রশাসনকে 'কঠোর হওয়ার' নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে ইউজিসি অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত এক সভায় র‌্যাগিংয়ে জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়। 

ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন জাবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম, জাবির প্রো-ভিসি, সব অনুষদের ডিন, প্রক্টোরিয়াল টিম ও আবাসিক হলের প্রভোস্ট, ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম, অধ্যাপক ড. এম শাহ নওয়াজ আলী, ইউজিসির সচিব ড. মোহাম্মদ খালেদ ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট ডিভিশনের পরিচালক কামাল হোসেন।

এর আগে গত ফেব্রুয়ারি মাসে মিজানুর রহমান নামে এক শিক্ষার্থী র‌্যাগিংয়ের শিকার হলে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয় ইউজিসিকে। ঘটনা তদন্তে ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক ইউসুফ আলী মোল্লার নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার ইউজিসিতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয় কমিটি। প্রতিবেদনের আলোকে গতকাল অনুষ্ঠিত বৈঠকে জাবি কর্তৃপক্ষকে র‌্যাগিং বন্ধে কঠোর অবস্থানে যাওয়ার নির্দেশ দেয় ইউজিসি।

বৈঠকে উপস্থিত ইউজিসির এক কর্মকর্তা বলেন, তদন্ত কমিটির সুপারিশের আলোকে জাবির শিক্ষার্থীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর নির্দেশনা দেয় ইউজিসি। একই সঙ্গে র‌্যাগিং বন্ধে শ্রেণিকক্ষেই শিক্ষার্থীদের সতর্ক করা এবং র‌্যাগিংয়ে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে হল প্রশাসনকে এ বিষয়ে আরও কঠোর হতে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, 'সভায় জাবিতে র‌্যাগিং বন্ধে কঠোর ও কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।'

জাবির উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বলেন, 'আমরা সবাই র‌্যাগিংয়ের বিরুদ্ধে। জাবি প্রশাসন ক্যাম্পাসে র‌্যাগিং ও অন্যান্য বেআইনি কার্যক্রম বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নেবে। আশাকরি, আগামীতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না।'

ডিগ্রি ভর্তির অনলাইন আবেদন শুরু আজ - dainik shiksha ডিগ্রি ভর্তির অনলাইন আবেদন শুরু আজ বৈশাখী ভাতা ও ইনক্রিমেন্ট কার্যকর জুলাই থেকেই - dainik shiksha বৈশাখী ভাতা ও ইনক্রিমেন্ট কার্যকর জুলাই থেকেই সরকারি হলো আরও ৪ মাধ্যমিক বিদ্যালয় - dainik shiksha সরকারি হলো আরও ৪ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ২০ হাজার টাকায় শিক্ষক নিবন্ধন সনদ বিক্রি করতেন তারা - dainik shiksha ২০ হাজার টাকায় শিক্ষক নিবন্ধন সনদ বিক্রি করতেন তারা অকৃতকার্য ছাত্রীকে ফের পরীক্ষায় বসতে দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha অকৃতকার্য ছাত্রীকে ফের পরীক্ষায় বসতে দেয়ার নির্দেশ আইডিয়াল স্কুলে ভর্তি ফরম বিতরণ শুরু - dainik shiksha আইডিয়াল স্কুলে ভর্তি ফরম বিতরণ শুরু নির্বাচনের সঙ্গে পেছাল সরকারি স্কুলের ভর্তি - dainik shiksha নির্বাচনের সঙ্গে পেছাল সরকারি স্কুলের ভর্তি শিক্ষকদের অন্ধকারে রেখে দেড় লাখ কোটি টাকার প্রকল্প! - dainik shiksha শিক্ষকদের অন্ধকারে রেখে দেড় লাখ কোটি টাকার প্রকল্প! একাডেমিক স্বীকৃতি পেল ৪৭ প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha একাডেমিক স্বীকৃতি পেল ৪৭ প্রতিষ্ঠান দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষায় বিজ্ঞাপন পাঠান ইমেইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website