টিকটক ভিডিও বানাতে নদীতে ঝাঁপ, স্কুলছাত্র নিখোঁজ - স্কুল - Dainikshiksha

টিকটক ভিডিও বানাতে নদীতে ঝাঁপ, স্কুলছাত্র নিখোঁজ

সিলেট প্রতিনিধি |

সিলেটে টিকটক ভিডিও করতে গিয়ে নদীতে ঝাঁপ দেয়া দুই বন্ধুর একজন এখনও নিখোঁজ। ঢাকা থেকে আসা ডুবুরি দল নিখোঁজ তরুণের সন্ধানে অভিযান চালাচ্ছে। শুক্রবার বিকাল পাঁচটার দিকে সুরমা নদীর ওপর টুকের বাজার তৃতীয় শাহজালাল সেতু থেকে মিলন আহমদ (১৮) ও আবদুস সামাদ (১৮) নামের দুই বন্ধুর ঝাঁপ দেয়ার ঘটনা ঘটে।

টিকটক ভিডিও করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করার বিষয়টি তরুণের মধ্যে বেশ জনপ্রিয়। অনেকেই রাতারাতি সেলিব্রিটি হয়েছেন। চীনা ভিডিও অ্যাপ টিকটক নিয়ে বিতর্কও রয়েছে বিশ্বব্যাপী। পর্নোগ্রাফি ছড়ানো ও অপসংস্কৃতির কথা বলে এটা এ বছরের এপ্রিলে নিষিদ্ধ করেছিল ভারত। তবে আদালতের নির্দেশে কয়েক দিনের মধ্যেই সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়।

জানা গেছে, সিলেটে দুই বন্ধু টিকটক ভিডিও করতে সেতু থেকে নদীতে ঝাঁপ দিয়েছিলেন। এ সময় মিলন আহমদ সাঁতরে নদীর কূলে ফিরতে পারলেও স্রোতের টানে ভেসে যান আবদুস সামাদ। তিনি এখনও নিখোঁজ। নিখোঁজ সামাদ বাগবাড়ি এলাকার মৃত শামসুল হকের ছেলে।

স্থানীয় ও দমকল বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বিকালে সামাদ, মিলন ও আরেক বন্ধু মিলে টুকের বাজার এলাকার তৃতীয় শাহজালাল সেতুতে যান। এ সময় সামাদ ও মিলন টিকটক ভিডিও করতে এবং নিজেদের মধ্যে বাজি ধরে সেতু থেকে লাফ দেন। তাঁদের সঙ্গে থাকা অপর বন্ধু ভিডিও ধারণ করেন। একপর্যায়ে মিলন সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও সামাদ নদীর প্রবল স্রোতে তলিয়ে যান। স্থানীয় লোকজন মিলনকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে সিলেট ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এলেও অন্ধকার হয়ে যাওয়ায় এবং স্রোতের কারণে উদ্ধার অভিযান চালাতে পারেননি।

সিলেট ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স কার্যালয়ের স্টেশন কর্মকর্তা যীশু তালুকদার জানান, গতকাল আলো স্বল্পতা এবং প্রবল স্রোতের কারণে উদ্ধার অভিযান চালানো সম্ভব হয়নি। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় ঢাকা থেকে আসা চারজনের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। যীশু তালুকদার জানান, কয়দিনের টানা বৃষ্টির কারণে সুরমা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। নদীতে এখন প্রবল স্রোত।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) মো. জেদান আল মুসা জানান, নিখোঁজ সামাদকে উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষকরা ৩৬ হাজার টাকা বেতন পান : গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষকরা ৩৬ হাজার টাকা বেতন পান : গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের চূড়ান্ত ফল নভেম্বরে - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের চূড়ান্ত ফল নভেম্বরে তিন বছরের চুক্তিতে প্রাথমিকে দপ্তরী নিয়োগ দেয়া হবে - dainik shiksha তিন বছরের চুক্তিতে প্রাথমিকে দপ্তরী নিয়োগ দেয়া হবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা অক্টোবরে - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা অক্টোবরে ‘শিক্ষা প্রশাসনে জামাতীরা বহাল, কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে পরীক্ষা দিতে হয়’ - dainik shiksha ‘শিক্ষা প্রশাসনে জামাতীরা বহাল, কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে পরীক্ষা দিতে হয়’ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের ফল দেখুন - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের ফল দেখুন বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা ১৪ অক্টোবর - dainik shiksha বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা ১৪ অক্টোবর এইচএসসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে - dainik shiksha কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website