ডাকসু নির্বাচন মন্দের ভালো - মতামত - Dainikshiksha

ডাকসু নির্বাচন মন্দের ভালো

মুহাম্মদ শফিবুর রহমান |

শেষ অবধি ডাকসু নির্বাচন হয়েছে। এটা মন্দের ভালো। ছাত্র-ছাত্রীদের অধিকার, দাবি-দাওয়া, সমস্যা—এসব উপেক্ষিত থাকে। এসব সঠিকভাবে তুলে ধরা সম্ভব হয় না, যদি নির্বাচিত ছাত্রসংসদ না থাকে। এ জন্য ছাত্রসংসদ নির্বাচন প্রয়োজন ছিল। তবে ঢাবি কর্তৃপক্ষ আসলে তেমন প্রস্তুত ছিল না।

গোছানো সুষ্ঠু নির্বাচন করতে যা যা করার দরকার ছিল তা তারা করতে পারেনি। বস্তাভরা সিলমারা ব্যালট পাওয়া গেছে। একজন ভিপি প্রার্থীকে মারধর করা হয়েছে। অনেক ছাত্র-ছাত্রী ভোটই দিতে পারেনি। মোটা দাগে এগুলো নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। ঢাবি কর্তৃপক্ষ স্বাধীন। কিন্তু তারা কি স্বাধীনভাবে নির্বাচন করতে পেরেছে? অবস্থাদৃষ্টে মনে হয় না। কোনো একটা পক্ষের কাছে তাদের অসহায়ত্ত স্পষ্ট ধরা পড়েছে।

এক পক্ষ বাদে সবাই আবার নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে। পুনর্নির্বাচনের জন্য এক দল ছাত্র-ছাত্রী আমরণ অনশন করছে। কিছু দুষ্কৃতকারী এ সুযোগে পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে পারে। তাই এখনই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ব্যবস্থা নিতে হবে। কারণ ছাত্র আন্দোলন জমে গেলে তা দমানো কঠিন হয়ে পড়বে।

 

বানারীপাড়া, বরিশাল।

 

সৌজন্যে: কালের কণ্ঠ

ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে সংসদীয় কমিটিতে বিতর্ক - dainik shiksha ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে সংসদীয় কমিটিতে বিতর্ক প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ: ৫ দিন আগে অ্যাডমিট না পেলে যা করবেন - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ: ৫ দিন আগে অ্যাডমিট না পেলে যা করবেন নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা - dainik shiksha নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website