ডাকসু ভিপি নুরের স্ত্রী স্কুলশিক্ষক - বিবিধ - Dainikshiksha

ডাকসু ভিপি নুরের স্ত্রী স্কুলশিক্ষক

বরিশাল প্রতিনিধি |

ডাকসুর নব নির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুরের স্ত্রী একজন শিক্ষক । তার স্ত্রীর নাম মারিয়া আক্তার। তিনি স্থানীয় মধ্য চর বিশ্বাস সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। তিন বছর আগে চর বিশ্বাস ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হাতেম আলীর মেয়ে মারিয়াকে বিয়ে করেন নুর।

গত বছর সরকারি চাকরিতে কোটাব্যবস্থার সংস্কারের দাবিতে দেশব্যাপী শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের অন্যতম নেতা হিসেবে নুর পরিচিতি পান। ক্যাম্পাস জীবনের শুরুতে তার তেমন কোনো পরিচিতি ছিল না। কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে সহসভাপতি (ভিপি) পদে জয়ী হয়েছেন তিনি।

মারিয়া আক্তার

জানা গেছে, পটুয়াখালীর গলাচিপার কৃষক মো. ইদ্রিস হাওলাদারে ছেলে নুরুল হক নুর। তিন ভাই ও পাঁচ বোনের মধ্যে নুর দ্বিতীয়। এত বড় সংসারের ঘানি টানতে নুরের বাবা ইদ্রিস হাওলাদার কৃষি কাজের পাশাপাশি উপজেলার চর বিশ্বাস ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের একটি বাজারে চায়ের দোকান দিয়েছেন। এ দোকান দিয়েই তিনি সংসার চালান।

পটুয়াখালীর চর বিশ্বাস ইউনিয়নেই শৈশব কেটেছে নুরের। সেখানের চর বিশ্বাস জনতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৭ম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করেন তিনি। এর পর ভর্তি হন গাজীপুরের কালিয়াকৈরের একটি স্কুলে। সেখান থেকে এসএসসি এবং উত্তরা মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি সাহিত্য বিভাগে ভর্তি হন। পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়েও ভর্তি হয়েছিলেন নুর।

জানা গেছে, নুরের বাবা একসময় বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ১৯৯১ খ্রিষ্টাব্দে তিনি ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচিত হয়েছিলেন। তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গত ১০ বছর তিনি কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জড়িত নন। স্থানীয়দের কেউ কেউ বলছেন, তিনি বর্তমানে আওয়ামী লীগের একজন সমর্থক।

এদিকে নুর জামায়াত-শিবিরের সঙ্গে সম্পৃক্ত এমন কথা বলা হলেও পটুয়াখালীর চর বিশ্বাস এলাকার মানুষেরা নুরকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেতা হিসেবেই জানে। নুর বা তার পরিবারের কোনো সদস্য জামায়াত-শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত এমন কোনো তথ্য দেননি স্থানীয়রা। বরং নুর আওয়ামী লীগ নেতার জামাতা বলে তথ্য দিয়েছেন তারা। এ বিষয়ে ইদ্রিস হাওলাদার বলেন, আমার ছেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুহসীন হল শাখা ছাত্রলীগের মানবসম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক ছিল।

প্রধান শিক্ষককে সভাপতির কাছে ক্ষমা চাইতে বললেন বোর্ড চেয়ারম্যান - dainik shiksha প্রধান শিক্ষককে সভাপতির কাছে ক্ষমা চাইতে বললেন বোর্ড চেয়ারম্যান মাদরাসার পাঠ্যবই বদলাতে বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞ নেবে শ্রীলংকা - dainik shiksha মাদরাসার পাঠ্যবই বদলাতে বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞ নেবে শ্রীলংকা জুলাই থেকে বেতন পাবেন নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা - dainik shiksha জুলাই থেকে বেতন পাবেন নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা - dainik shiksha নতুন সূচিতে কোন জেলায় কবে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২৪ মে শুরু সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website