ডিজিটাল বাংলাদেশের গোড়াপত্তনে ভূমিকা রেখে গেছেন নাজিমউদ্দিন মোস্তান : মোস্তাফা জব্বার - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ডিজিটাল বাংলাদেশের গোড়াপত্তনে ভূমিকা রেখে গেছেন নাজিমউদ্দিন মোস্তান : মোস্তাফা জব্বার

নিজস্ব প্রতিবেদক |

প্রয়াত সাংবাদিক নাজিমউদ্দিন মোস্তানের নামে শিক্ষাবৃত্তি বা ফেলোশিপ চালু করতে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, “একজন সাংবাদিক হিসেবে নাজিমউদ্দিন মোস্তান ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার গোড়াপত্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন।” 

আজ ১১ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) প্রয়াত কবি ও সাংবাদিক নাজিমউদ্দিন মোস্তানের ৭৩তম জন্মবার্ষিকীতে শিক্ষা বিষয়ক দেশের একমাত্র ডিজিটাল পত্রিকা দৈনিক শিক্ষার সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান খানের সার্বিক সহযোগিতায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

বাংলাদেশের প্রযুক্তিনির্ভর প্রকাশনা ও সাংবাদিকতার একজন মোস্তাফা জব্বার আরও বলেন, সাংবাদিকতা দিয়ে আমার কর্মজীবন শুরু। তাই, অনেক আগে থেকেই সাংবাদিক নাজিমউদ্দিন মোস্তানকে চিনতাম। ১৯৯৩ খ্রিষ্টাব্দে যখন দেশে প্রথমবারের মতো কম্পিউটার মেলার আয়োজন করা হয় তখন তিনি ইত্তেফাকে প্রথম পাতায় রিপোর্ট করেছিলেন। নিজ সম্পাদিত ও প্রকাশিত সাপ্তাহিক রাষ্ট্রেও তথ্য প্রযুক্তি নিয়ে অনেক কাজ করেছেন। যেখানে কম্পিউটার শব্দটি শুনতেন সেখানেই রিপোর্টিংয়ের জন্য হাজির হতেন। তিনি এভাবেই দেশের তথ্য প্রযুক্তিকে এগিয়ে নিতে অনেক সহযোগিতা করেছেন। তিনি আমার খুব কাছের মানুষ ছিলেন। 

সাংবাদিক নাজিমউদ্দিন মোস্তানের বড় মেয়ে সাংবাদিক নাজমুন নাহার মিলির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও যুক্ত ছিলেন পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলিকুজ্জামান আহমদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, সাবেক সচিব সৈয়দ হাবিবুর রহমান, বারভিডার সভাপতি ও ব্যবসায়ী আবদুল হক এবং প্রকৌশলী সৈয়দ ওসমান গনি রতনসহ অনেকে।

আরও পড়ুন: মোস্তান ভাইয়ের ‘ঋণ পরিশোধের সূত্র’

অনুষ্ঠানে বক্তারা সাংবাদিক নাজিমউদ্দিন মোস্তানের নামে সাংবাদিকতা ও তথ্য প্রযুক্তিখাতে শিক্ষাবৃত্তি বা ফেলোশিপ চালু করার প্রয়োজনীয়তার দাবি তোলেন। এ শিক্ষাবৃত্তি বা ফেলোশিপ চালুর বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতারও আশ্বাস দেন মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

ড. কাজী খলিকুজ্জামান আহমদ বলেন, নাজিমউদ্দিন মোস্তান যে মানের সাংবাদিক ছিলেন সে মানের সাংবাদিক আমাদের দেশে খুব দরকার। শুধু সাংবাদিকতাই নয়, তার মধ্যে দেশ ও দেশের মানুষকে নিয়ে অনেক চিন্তা-ভাবনা ছিল যেগুলো সকলের মধ্যে ছড়িয়ে দেয়া প্রয়োজন।

অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আরেফিন সিদ্দিক বলেন, সাংবাদিক নাজিম উদ্দিন মোস্তান তার জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত কাজ করে গেছেন। তিনি প্রাতিষ্ঠানিকভাবে দেশের অনেক প্রথিতযশা সংবাদপত্র বিশেষ করে দৈনিক ইত্তেফাকের সাথে দীর্ঘদিন যুক্ত ছিলেন। তিনি দৈনিক ইত্তেফাকের প্রধান প্রতিবেদক ছিলেন। সাংবাদিকতার এমন কোন ক্ষেত্র নেই যেখানে তিনি কাজ করেন নি। তার কর্মজীবনে তিনি ছোট-বড় অনেক সাংবাদিককে নিজে হাতে-কলমে সাংবাদিকতার খুঁটিনাটি শিখিয়েছেন।

তিনি বলেন, মোস্তানের কর্মজীবন নিয়ে বহুকাজ হতে পারে। দীর্ঘ কর্মজীবনে তিনি অনেক প্রতিবেদন লিখেছেন যেগুলো নিয়ে গবেষণা হতে পারে। বই আকারে প্রকাশ হতে পারে।  

অনুষ্ঠানে বারভিডার সভাপতি ও ব্যবসায়ী আব্দুল হক বলেন, সাংবাদিক মোস্তান ভাই একজন মানুষ হিসেবে অসাধারণ ছিলেন। আর তার নামটিও ছিল যথার্থ। মোস্তান অর্থ দরবেশ বা ফকির। তিনিও মানুষ হিসেবে এরকমটাই ছিলেন। তার কাজ অর্থাৎ রিপোর্টিং প্রার্থনার মত করে করতেন। আহমেদ ছফা বলেছিলেন, প্রতিটি রিপোর্টের জন্যই নাজিমউদ্দিন মোস্তানের একটি করে পুরস্কার পাওয়া উচিত।

রিফাত হত্যা মামলা : মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি, খালাস ৪ - dainik shiksha রিফাত হত্যা মামলা : মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি, খালাস ৪ টাইমস্কেল পাওয়া অধিগ্রহণকৃত স্কুল শিক্ষকদের টাকা ফেরত নেয়ার কাজ শুরু - dainik shiksha টাইমস্কেল পাওয়া অধিগ্রহণকৃত স্কুল শিক্ষকদের টাকা ফেরত নেয়ার কাজ শুরু বিনা প্রয়োজনে কলেজ ক্যাম্পাসে জনসাধারণের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি - dainik shiksha বিনা প্রয়োজনে কলেজ ক্যাম্পাসে জনসাধারণের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি ক্যামব্রিয়ান কলেজের ভ্যাট ফাঁকি, গোয়েন্দাদের অভিযান - dainik shiksha ক্যামব্রিয়ান কলেজের ভ্যাট ফাঁকি, গোয়েন্দাদের অভিযান কোচিং ও পরীক্ষা নিয়ে সাংবাদিকদের যা জানাল মন্ত্রণালয় - dainik shiksha কোচিং ও পরীক্ষা নিয়ে সাংবাদিকদের যা জানাল মন্ত্রণালয় এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে টেকনিক্যাল কমিটি কাজ করছে - dainik shiksha এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে টেকনিক্যাল কমিটি কাজ করছে জাল নিবন্ধন সনদে এমপিওভুক্তি : প্রভাষক-অধ্যক্ষের বেতন বন্ধ - dainik shiksha জাল নিবন্ধন সনদে এমপিওভুক্তি : প্রভাষক-অধ্যক্ষের বেতন বন্ধ ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত - dainik shiksha ঋণের কিস্তি পরিশোধ স্থগিত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! - dainik shiksha জালসনদেই ৭ বছর এমপিওভোগ! কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি - dainik shiksha কবে কোন দিবস, কীভাবে পালন, নতুন নির্দেশনা জারি please click here to view dainikshiksha website