please click here to view dainikshiksha website

ঢাবিতে ভর্তির আবেদন শুরু ৭ আগস্ট

ঢাবি প্রতিনিধি | আগস্ট ৪, ২০১৭ - ১:০০ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক সম্মান শ্রেণিতে অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া ৭ আগস্ট বেলা ২টা থেকে শুরু হবে। শেষ হবে ২৯ আগস্ট রাত ১০টায়।

বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনের সভাকক্ষে উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ১ম বর্ষ স্নাতক সম্মান শ্রেণিতে ভর্তি বিষয়ক সাধারণ ভর্তি কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১৫ সেপ্টেম্বর, চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ১৬ সেপ্টেম্বর, খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২২ সেপ্টেম্বর, চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (অংকন) ২৩ সেপ্টেম্বর, ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১৩ অক্টোবর এবং ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদ, প্রো-ভিসি (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দীন, অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. হাসিবুর রশীদ, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, বিভিন্ন ইনস্টিটিউটের পরিচালক, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার, প্রক্টর এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ৫টি

  1. মো:সাইফুল ইসলাম,অধ্যক্ষ কোহিনৃর হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ,তরগাও,কাপাসিয়া,গাজীপুর। says:

    ভর্তি পরীক্ষা গুলি সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে একত্রে নিলেয় শিক্ষার্থীদের হয়রানী দুরকরা প্রয়োজন ছিল।

  2. হুমায়ুন কবির says:

    ঢাকায় কেন্দ্রীয়ভাবে একটি সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে প্রাপ্ত নম্বর ও জিপিএ যোগ করে মেধার ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগ বা বিষয় নির্ধারণ করে দিলে আর ঢাবি’র উপরও এতো চাপ পড়তো না এবং অভিভাবক-শিক্ষার্থী উভয় পক্ষই হয়রাণি-ছুটোছুটির হাত থেকে রেহাই পেতেন। কিন্তু এ রকম সুচিন্তা করার মতো মানসিকতার মানুষ বা কারো সেই সময়-ইচ্ছা আছে কী?!

  3. মোঃ খলিল উল্লাহ্ , কলমাকান্দা, নেত্রকোনা । says:

    মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষার ন্যায় সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা একসাথে নিয়ে মেধা ভিত্তিক বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ভর্তির ব্যবস্থা করা হলে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের হয়রানি লাঘব হতো। একজন অভিভাবক হিসেবে এ ব্যপারে সরকারের আশু সুদৃষ্টি কামনা করছি।

  4. ভূপাল প্রামানিক, প্র:শি: নামুজা উচ্চ বি: & সেক্রেটারি, বা: প্রধান শিক্ষক সমিতি, বগুড়া সদর। 01711 515468 says:

    Ok…..

  5. মোঃ আব্দুল মোমিন। সহকারী প্রধান শিক্ষক।কুতুবপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়।চুয়াডাংগা সদর। says:

    ভর্তি আবেদনের জন্য খরচ কত হবে সেটা উল্লেখ থাকলে ভাল হতো।

আপনার মন্তব্য দিন