তিতাসের প্রিপেইড গ্রাহকরা ২ হাজার টাকা পর্যন্ত জরুরি ব্যালেন্স পাবে - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

তিতাসের প্রিপেইড গ্রাহকরা ২ হাজার টাকা পর্যন্ত জরুরি ব্যালেন্স পাবে

নিজস্ব প্রতিবেদক |

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (তিতাস গ্যাস লিমিটেড) আবাসিক প্রি-পেইড গ্যাস গ্রাহকদের ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স ২শ’ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২ হাজার টাকা করেছে। এরফলে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় সরকারের ‘ঘরে থাকার কর্মসূচি’ পালনকালীন গ্রাহককে ব্যালেন্স শেষ হলেও চুলার গ্যাস বন্ধ হয়ে যাওয়ার ভয়ে মিটার রিচার্জ করতে বাইরে বের হতে হবে না। গতকাল তিতাস গ্যাস এ সংক্রান্ত একটি বিশেষ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

তিতাস গ্যাস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আলী মোহাম্মদ আল মামুন বলেন, আগে আবাসিকের প্রি-পেইড গ্রাহকরা ২০০ টাকা পর্যন্ত ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স ব্যবহার করতে পারতেন। এই সেবা ২০০০ টাকায় উন্নীত করায় একজন গ্রাহক যিনি গড়ে প্রতি মাসে ৫০০ টাকার গ্যাস ব্যবহার করেন, তার চার মাস চলবে। এ সময় কোন রিচার্জ করতে হবে না। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সরকারি ছুটিকালীন সবাই ঘরে থাকার সুবিধার্থে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, এর আগে এক সরকারি আদেশে আবাসিকে পাইপ লাইনের গ্রাহকদেরও ফেব্রুয়ারি থেকে মে মাসের বিল কোন প্রকার বিলম্ব মাশুল ছাড়াই আগামী জুন মাসের সুবিধাজনক সময়ে পরিশোধ করার সুযোগ দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ২৬ মার্চ থেকে আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। এ সময়ে তিতাস গ্যাস লিমিটেড ‘প্রি-প্রেইড গ্যাস মিটার রিচার্জ ও জরুরি সেবার বিশেষ বিজ্ঞপ্তি’তে আরও জানায়, যেকোন জরুরি সেবার জন্য সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবে চারটি টিম। এছাড়া ২৪ ঘণ্টা হটলাইন নম্বরগুলো বহাল থাকবে। কার্ড হারানোর ক্ষেত্রে তিতাস গ্যাস প্রধান কার্যালয় মো. আবুল কালাম আজাদের (০১৭৩৯৯৮৯৮৬১ ও ০১৬২০০১০৯৬৯) সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। বিশেষ ক্ষেত্রে প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মো. ফয়জার রহমান (০১৯৩৯৯২১০৪৬), ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. সাজ্জাদ হোসেন (০১৯৩৯৯২১০৭২) ও উপ-ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মীর মোবারক হোসেনের (০১৯৫২২৭৭৩৭৯) সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ছুটিকালীন মিটার কার্ড রিচার্জে জন্য ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের উত্তরা শাখা (জসিমউদ্দিন মোড়), বসুন্ধরা শাখা এবং ইউ ক্যাশের এজেন্টসমূহ খোলা থাকবে। প্রয়োজনে তিতাস গ্যাসের কল সেন্টারের ১৬৪৯৬ নম্বরে কল করে সহায়তা নেয়া যাবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

আবাসিক গ্রাহকদের বিদ্যুৎ এবং গ্যাস বিল পরিশোধে বিলম্ব মাশুল মওকুফ করে গত রোববার পৃথক আদেশ জারি করেছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। আবাসিকে বিদ্যুৎ বিলের ক্ষেত্রে ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল মাসের বিলের বিলম্ব মাশুল মওকুফ করা হয়েছে। এসব বিল আগামী মে মাসে দিলেই চলবে। অন্যদিকে গ্যাসের গৃহস্থালির (আবাসিক) গ্রাহকরা গত ফেব্রুয়ারি থেকে মে মাসের বিল কোন প্রকার বিলম্ব মাশুল ছাড়াই আগামী জুন মাসের সুবিধাজনক সময়ে পরিশোধ করতে পারবেন। আদেশে আবাসিকে গ্যাসের প্রি-পেইড গ্রাহকদের সম্পর্কে কিছু বলা হয়নি।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু গত মঙ্গলবার বিদ্যুৎ ও গ্যাসের সারচার্জ মওকুফের সঙ্গে সঙ্গে প্রি- পেইড মিটারের বিলের বিষয়েও জরুরিভিত্তিতে ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত দেন। তিনি বিদ্যুৎ ও গ্যাস বিতরণ কোম্পানিগুলোর উদ্দেশে বলেন, কোন অবস্থাতেই যেন গ্যাস-বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন না হয়। বিতরণ কোম্পানিগুলো আপাতত গড় বিল বা এস্টেমিটেড বিল দিতে পারবে যা পরবর্তীতে সমন্বয় করা হবে। প্রতিমন্ত্রী বিপু বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সংক্রান্ত সেবা যে কোন অবস্থাতেই অব্যাহত রাখা হবে। সেবা নিয়ে সর্বদা গ্রাহকদের সঙ্গেই থাকব। যে কোন সময় যে কোন সমস্যা নিয়ে ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলা যাবে। গ্রাহকরা আমাদের পরিবার-তাদের সুরক্ষা ও হয়রানি রোধ করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। আমাদের গ্রাহকরা কোথায় গেলে চিকিৎসাসহ প্রশাসনিক সেবা বা তথ্য পাবে সে বিষয়েও সহায়তা করতে হবে।

উল্লেখ্য, নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে আবসিক গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য বিপুল সংখ্যক গ্রাহককে প্রায় একই সময়ে ব্যাংকে উপস্থিত হতে হয়। বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে এমন পরিস্থিতি করোনাভাইরাস সংক্রমণকে ত্বরান্বিত করে। এই পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে গ্রাহকদের সুবিধার জন্য গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব মাশুল মৌকুফের এই আদেশ জারি করে। তবে আবাসিক বিদ্যুৎ ও গ্যাস ছাড়া অন্য গ্রাহকদের বিল পরিশোধের বিষয়ে আগের নিয়ম বলবৎ থাকবে।

নামাজে ৫ জনের বেশি শরিক হওয়া যাবে না - dainik shiksha নামাজে ৫ জনের বেশি শরিক হওয়া যাবে না করোনা : ২৪ ঘণ্টায় দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যু, দু’রকম তথ্য দিলো সরকার - dainik shiksha করোনা : ২৪ ঘণ্টায় দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যু, দু’রকম তথ্য দিলো সরকার করোনা : সংক্রমণের তীব্রতা থাকবে জুলাই পর্যন্ত - dainik shiksha করোনা : সংক্রমণের তীব্রতা থাকবে জুলাই পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটির আওতায় - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটির আওতায় দূরত্ব বজায় না রেখে বেতনের জন্য লাইনে শিক্ষকরা - dainik shiksha দূরত্ব বজায় না রেখে বেতনের জন্য লাইনে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীসহ ১০ হাজার বাংলাদেশিকে তাড়িয়ে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া - dainik shiksha শিক্ষার্থীসহ ১০ হাজার বাংলাদেশিকে তাড়িয়ে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া করোনা আক্রান্ত হয়ে দুদক পরিচালকের মৃত্যু - dainik shiksha করোনা আক্রান্ত হয়ে দুদক পরিচালকের মৃত্যু সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website