please click here to view dainikshiksha website

তৃতীয় জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক | আগস্ট ১২, ২০১৭ - ১:০৩ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী বলেছেন, বিজ্ঞানের উন্নয়ন ছাড়া দেশের উন্নয়ন করা সম্ভব নয়। আজ শনিবার সকালে রাজধানীর গ্রিন রোডে ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকে ‘তৃতীয় বাংলাদেশ জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড’-এর জাতীয় পর্বের উদ্বোধন করতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। তিনি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য।

বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি ও বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত এই অলিম্পিয়াডের পৃষ্ঠপোষকতা করছে আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক। এতে সহযোগিতায় রয়েছে প্রথম আলো এবং ম্যাগাজিন পার্টনার হিসেবে আছে বিজ্ঞানচিন্তা।

আয়োজকেরা জানিয়েছেন, আগামী ডিসেম্বরে নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডামে অনুষ্ঠেয় ১৪তম আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণের জন্য বাংলাদেশ দলের ছয়জন সদস্য বাছাই করতে এই অলিম্পিয়াড হচ্ছে। প্রথমে সারা দেশের নয়টি শহরে আঞ্চলিক পর্ব ও একটি অনলাইন ই-অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হয়। এসব পর্বে মোট সাড়ে পাঁচ হাজার প্রতিযোগী অংশ নেয়। এদের মধ্যে বিজয়ী ৪৮১ জনকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে জাতীয় পর্ব। এখান থেকে ৫০ জন খুদে বিজ্ঞানী বাছাই করা হবে। এরপর এদের নিয়ে ক্যাম্প করে ছয়জনকে চূড়ান্তভাবে বাছাই করা হবে। তারা আমস্টারডামে অনুষ্ঠেয় অলিম্পিয়াডে অংশ নেবে।

সকালে বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেও সারা দেশ থেকে আসা খুদে বিজ্ঞানীরা এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী। জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডের আহ্বায়ক মুনির হাসানের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বিজ্ঞানী ড. রেজাউর রহমান, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. হাবিবুর রহমান, উপব্যবস্থাপনা সম্পাদক কাজী তউহীদ উল আলম, বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী, বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী প্রমুখ।

আয়োজনে জুনিয়র, সেকেন্ডারি ও বিশেষ—এই তিন শ্রেণির অলিম্পিয়াড ছাড়াও রয়েছে বইমেলা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে প্রতিযোগীদের নিয়ে বাছাই পরীক্ষা চলছে। আজকে বিকেলেই বিজয়ী ৫০ জনের নাম ঘোষণা ও পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


আপনার মন্তব্য দিন