ননএমপিও শিক্ষকদের আমরণ অনশন শুরু বৃহস্পতিবার - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

ননএমপিও শিক্ষকদের আমরণ অনশন শুরু বৃহস্পতিবার

রুম্মান তূর্য |

গড়পড়তা সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একযোগে এমপিভুক্তির দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করবেন ননএমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। আজ মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ননএমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের ব্যানারে এ দাবি আদায়ে গণঅবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন কয়েকশ শিক্ষক-কর্মচারী। আর স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সব প্রতিষ্ঠান একযোগে এমপিওভুক্তির প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাৎ ও হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন শিক্ষকরা। আগামীকাল বুধবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পেলে বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উদ্দেশ্যে পদযাত্রা করবেন তারা। পদযাত্রায় বাঁধা পেলে ওইসময় থেকে ফের জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশন শুরু করবেন তারা। ননএমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটি সভাপতি গোলাম মাহামুদুন্নবী ডলার দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এ তথ্য জানিয়েছেন। 

এর আগে গত ৭ অক্টোবর সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন। 

বিকেলে ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মাহামুদুন্নবী ডলার দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, ‘স্বীকৃতিপ্রাপ্ত ৫ হাজার ২৪৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একযোগে এমপিওভুক্তির প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাৎ ও হস্তক্ষেপ কামনা করছি। আগামীকাল বুধবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পেলে আগামী বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উদ্দেশ্যে পদযাত্রা করবো। পদযাত্রা ব্যর্থ হলে বা পুলিশি বাধায় প্রধানমন্ত্রীর দেখা না পেলে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে ফের জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান নিয়ে আমরণ অনশন শুরু করা হবে।’

এদিকে মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানিয়েছেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির তালিকায় অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সূত্র আরও জানায়, নতুন এমপিও নীতিমালা অনুসারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হতে যাচ্ছে। নীতিমালা অনুসারে যোগ্য বিবেচিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোই এমপিওভুক্তির অনুমোদন পেয়েছে। এক্ষেত্রে চরাঞ্চল ও হাওর অঞ্চলের প্রতিষ্ঠান অগ্রাধিকার পেয়েছে বলেও জানা গেছে।

মঙ্গলবার সকালে অবস্থানরত শিক্ষকরা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, স্বীকৃতিপ্রাপ্ত ৫ হাজার ২৪২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একযোগে এমপিওভুক্তির দাবিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাৎ ও হস্তক্ষেপ কামনা করেছি। একই সাথে নতুন এমপিও নীতিমালা অনুসরণ করে বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হতে পারবে না বলেও দাবি করেন শিক্ষক নেতারা। 

অবস্থানরত শিক্ষকরা সকালে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির অধিকার আদায়ের দাবিতে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি। নতুন নীতিমালাটি ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে জারি করা হলেও আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলো নতুন না। আমরা দীর্ঘদিন ধরে পাঠদান করিয়ে আসছি। ৫ হাজার ২৪২টি প্রতিষ্ঠান স্বীকৃতি পেলেও নীতিমালার কথা বলে আমাদের দমিয়ে রাখা হচ্ছে। একাডেমিক স্বীকৃতিই এমপিও মানদণ্ড। আমরা সে হিসেবে আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলো এমপিওভুক্তহবে সে আশা করছি। অবস্থান কর্মসূচি শেষে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। তাঁরা আরও জানান, ‘আমরা শুরু থেকেই দাবি জানাচ্ছি স্বীকৃতপ্রাপ্ত সব প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার। বিভিন্ন সময়ে সরকার যখন প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্বীকৃতি দিয়েছে তখন সব যোগ্যতাই ছিলো। কয়েকবছর আগে পরে এমপিওভুক্তির সময় শিক্ষার্থী কম, অমুক-তমুক কম বলা হচ্ছে। কিন্তু তা শিক্ষকদের কাছে এসব যুক্তি গ্রহণযোগ্য হবে না’।  

ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বিনয় ভূষণ রায় সকালে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, ‘আমরা নীতিমালা মানিনা। নীতিমালা একটাই একাডেমিক স্বীকৃতি। নতুন এমপিও খুবই কঠোর। এ  নীতিমালা রাজনৈতিকভাবে পর্যালোচনা করা হয়নি। শিক্ষক সমাজ বা সুধি সমাজ থেকেও তা পর্যালোচনা করা হয়নি। এ নীতিমালা আমরা মানি না।’ 

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচিতে সারাদেশ থেকে আগত কয়েকশ ননএমপিও শিক্ষক-কর্মচারী অংশগ্রহণ করেছেন। তার আগামীকাল বুধবারও গ্রেমক্লাবের সামনে অবস্থান করবেন।  

একাদশে শিগগিরই ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha একাদশে শিগগিরই ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে : শিক্ষামন্ত্রী প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা বন্ধের পরিকল্পনা নেই : গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা বন্ধের পরিকল্পনা নেই : গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী করোনায় আরও ৪১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩ হাজার ৩৬০ - dainik shiksha করোনায় আরও ৪১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩ হাজার ৩৬০ অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ হতে পারছেন না প্রভাষকরা: রুলের জবাব দেয়নি সরকার - dainik shiksha অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ হতে পারছেন না প্রভাষকরা: রুলের জবাব দেয়নি সরকার ‘বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকথা’ নামে আরেকটি বই প্রকাশ হবে - dainik shiksha ‘বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকথা’ নামে আরেকটি বই প্রকাশ হবে শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান - dainik shiksha শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে লেখা আহ্বান শিক্ষক প্রশিক্ষণের নামে টেসলের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ - dainik shiksha শিক্ষক প্রশিক্ষণের নামে টেসলের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক - dainik shiksha বিনামূল্যে আন্তর্জাতিক মানের ডিজিটাল কনটেন্ট দিচ্ছে টিউটর্সইঙ্ক শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে - dainik shiksha শিক্ষকদের ফ্রি অনলাইন প্রশিক্ষণ চলছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website