please click here to view dainikshiksha website

নন-ভ্যাকেশন ঘোষণাসহ প্রাথমিক শিক্ষক সমাজের ৮ দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক | আগস্ট ৪, ২০১৭ - ১১:৫৯ অপরাহ্ণ
dainikshiksha print

প্রধান শিক্ষকদের কেবলই নিচের ধাপে সহকারি শিক্ষকদের বেতন স্কেলসহ ৮ দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সহকারী প্রাথমিক শিক্ষক সমাজের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

শুক্রবার (৪ঠা আগস্ট) রাজধানীর সেগুন বাগিচায় এক সংবাদ সম্মেলনে দাবিসমূহ তুলে ধরেন সংগঠনের সভাপতি তপন কুমার মণ্ডল ও সাধারণ সম্পাদক এইচ. বি এম আছাদুজ্জামান।

অন্যান্য দাবির মধ্যে রয়েছে প্রথম ধাপে জাতীয়করণকৃত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের সহকারি শিক্ষক হিসেবে পদায়ন দিতে হবে। চলতি দায়িত্ব প্রদানের স্থগিত আদেশ প্রত্যাহার করে অনতিবিলম্বে চলতি দায়িত্ব দিতে হবে। শিক্ষক নিয়োগ বিধি -২০১৩ এর “অভিজ্ঞতার” শর্তকে পাশ কাটিয়ে সমস্বিত গ্রেডেশন তালিকা তৈরি বন্ধ করতে হবে। জাতীয়করণকৃত বিদ্যালয়ে নিয়োগকৃত প্রধান শিক্ষকদের শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ নং, এমপিওভুক্তি ৭ বছর, শিক্ষা কমিটি ও ম্যানেজিং কমিটির অনুমোদনসহ সকল শর্ত যাচাই করে অবৈধ শিক্ষকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে। পদোন্নতির শূন্য তালিকায় জাতীয়করণকৃত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের সকল শূন্য পদ অর্ন্তভূক্ত করতে হবে। প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে শতভাগ পদন্নোতি দিতে হবে।

তাদের সর্বশেষ দাবি  প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের নন-ভ্যাকেশন কর্মচারি ঘোষণা করতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:


পাঠকের মন্তব্যঃ ১০টি

  1. তুষার কান্তি দাস says:

    দাবীগুলো সুস্পঠ ও পুনাঙ্গ ভাবে দেওয়া দরকার ।জাতীয়করনকৃত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদে পদায়ন নীতিমালা আইনত অবৈধ। তারপরও এদের অধিকাংশ ভুয়া ও জাল কাগজপত্র তৈরি করে পদ দখল করে ছে । তাই এদের বিরুদ্ধে মামলা করা দরকার ।এজন্য সকল সহকারী শিক্ষক ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রয়োজনীয় ফান্ড গঠন করতে হবে এবং দ্রুত পদ ক্ষেপ নিতে হবে।জৈষ্ঠতার ভিত্তিতে শতভাগ পদোন্নতির জন্য কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে।

  2. মোঃ রেজাউল করিম says:

    আপনার যে যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা আছে তা দিয়ে যুক্তিযুক্ত ভাবে আপনার দাবী তুলে ধরুন।ঢালাওভাবে নতুন জাতীয়কৃত প্রধান শিক্ষকদের সহকারি শিক্ষক হিসাবে পদায়ন করতে হবে এটা কেমন দাবী? তারা সকল বিধিবিধান মেনে প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন নিজের জায়গাজমি সরকারের নামে দিয়ে তিল তিল করে একটি বিদ্যালয় গড়ে তুলেছেন। কারো দয়ায় তো তারা পদটি পান নি। তাদের পদ কেরে নিয়ে আপনারা পদায়িত হবেন তা কেমনে হয়?

  3. নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক says:

    সদ্য জাতীয়করণ কৃত সকল শিক্ষকের সনদ যাচাই করা উচিৎ। এমন শিক্ষক আছেন যারা অবৈধভাবে অন্যের সর্টিফিকেট দিয়ে চাকুরী করছেন।

    • মুহাম্মদ শোয়াইব says:

      আপনার জানামতে কেউ থাকলে তার নাম, ঠিকানা ও বিদ্যালয়ের নাম উল্লেখ পূর্বক সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করুন।

  4. মনঞ্জুরুল হক says:

    আমি মনে করি বর্তমান সরকার শিক্ষাবান্ধব সরকার এবং এই দাবিগুলো যৌক্তিক। তাই অতি বিল্মবে বাস্তবায়ন চাই।

  5. Debendro sarker says:

    কথা গুলো সঠিক।

  6. প্রনব says:

    আন্দলনে জোর নেই।

  7. mohammad noorul islam says:

    অবৈধদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হবে।কারণ এদের জন্য যোগ্যরা নিয়োগ বন্চিত রয়েছে।

  8. bozlurrahman[email protected] says:

    sokole nezeder kotha vabe ato podonnote ato jatio koron ami manoneo prodhan montrer hostokhep kamona Kore bolte chi manoneo prodhan montre ato jatio koron ato podonnte nakore sokol shikkhartider nonnoto akta chakrir ba kromo shonokthar babosta korben

আপনার মন্তব্য দিন