নিউটনের তৃতীয় সূত্র শোধরাতে মোদীর সহায়তা চান হিমাচলী বিজ্ঞানী - বিবিধ - Dainikshiksha

নিউটনের তৃতীয় সূত্র শোধরাতে মোদীর সহায়তা চান হিমাচলী বিজ্ঞানী

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

ভারতের হিমাচল প্রদেশের বিজ্ঞানী অজয় শর্মার বিশ্বাস, ৩৩৩ বছর ধরে নমস্য নিউটনের তৃতীয় গতিসূত্রে কিছু সীমাবদ্ধতা আছে; আর তা প্রমাণ করতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সহায়তা চাইছেন তিনি।

স্যার আইজাক নিউটনের তিনটি গতিসূত্রের ওপর ভিত্তি করেই গড়ে উঠেছে পুরো ক্লাসিক্যাল মেকানিক্স বা চিরায়ত বলবিদ্যা। তৃতীয় সূত্র বলেছে, প্রত্যেক ক্রিয়ারই সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে।

বিশ বছর আগে, ১৯৯৯ খ্রিষ্টাব্দে একটি জার্নালে প্রকাশিত এক নিবন্ধে অজয় শর্মা দাবি করেন, তাত্ত্বিকভাবে এই সূত্রে পরিবর্তন আনা সম্ভব। সেখানে বলা হয়, তৃতীয় সূত্রের সেই প্রতিক্রিয়া সমান, কম বা বেশিও হতে পারে।

কিন্তু তাত্ত্বিক ওই ধারণাকে পরীক্ষাগারে প্রমাণ করতে আরও কিছু গবেষণা প্রয়োজন। সেজন্য অজয় শর্মার দরকার টাকা।

শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এসে শিমলার উপ-শিক্ষা কর্মকর্তা অজয় শর্মা প্রধানমন্ত্রী মোদীর কাছে ওই টাকাই অনুদান হিসেবে চেয়েছেন বলে জানানো হয় ভারতের ইংরেজি দৈনিক স্টেটসম্যানের এক প্রতিবেদনে।

জীবনের ৩৬ বছর নিউটন, আইনস্টাইন আর আর্কিমিডিস নিয়ে গবেষণা করে কাটিয়ে দেয়া অজয় বলেন, “৩৩৩ বছরের পুরনো নিউটনের তৃতীয় সূত্রটির পরীক্ষামূলক সংস্কার করা সম্ভব; আর এজন্য কিছু পরীক্ষার প্রয়োজন আছে। দেশ ও বিদেশের নামি বিজ্ঞানীরা এই পরামর্শই দিয়েছেন। এজন্য খরচ হবে ১০ থেকে ১২ লাখ রুপি।”

নিউটনের তৃতীয় সূত্র কোনো রকম ব্যত্যয় ছাড়া সকল ক্ষেত্রেই সমানভাবে প্রযোজ্য বলে ধরা হলেও অজয়ের দাবি, বস্তুর আকার বিবেচনায় না নেয়াটা এই সূত্রের একটি বড় সীমাবদ্ধতা। 

বস্তু গোলাকার, অর্ধবৃত্তাকার, ছাতার মতো ত্রিভূজাকার, পাইপের মতো লম্বা, কোনাকৃতি, সমতল বা অসম আকারের হলেও নিউটনের তৃতীয় সূত্রে তা কোনো প্রভাব ফেলে না। ওই সূত্র অনুযায়ী, ক্রিয়া ও প্রতিক্রিয়া সব সময়ই সমান।

কিন্তু অজয়ের দাবি, প্রতিক্রিয়া অবশ্যই বস্তুর আকারের সাপেক্ষে কম, বেশি বা সমান হতে পারে।

“বিষয়টি চূড়ান্তভাবে প্রমাণের জন্য সূক্ষ্ম কিছু পরীক্ষা করা দরকার। এখন পর্যন্ত নিউটনের তৃতীয় সূত্র কোনো পরীক্ষা ছাড়াই মেনে নেয়া হয়েছে; এটা বিজ্ঞানসম্মত নয়।”  

ভারতের কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী হর্ষ বর্ধন গত জুলাইয়ে অজয়ের এই গবেষণার প্রস্তাব দিল্লির কাউন্সিল অফ সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চের মহাপরিচালকের কাছে পাঠান। কিন্তু সেখান থেকে কাঙ্ক্ষিত সাড়া এখনও পাননি অজয়।  

ইন্ডিয়ান একাডেমি অফ সায়েন্সেসের আন্তর্জাতিক জার্নাল ‘কারেন্ট সায়েন্স’ লিখেছে, নিউটনের তৃতীয় সূত্রের ভাষ্যে ‘অস্পষ্টতা’ সত্যিই আছে। আর বিষয়টি সামনে আনার জন্য অজয়ের অভিনন্দন প্রাপ্য।

এমপিও নীতিমালা সংশোধনে ১০ সদস্যের কমিটি - dainik shiksha এমপিও নীতিমালা সংশোধনে ১০ সদস্যের কমিটি এমপিওভুক্ত হলো আরও ছয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হলো আরও ছয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম সংশোধনের প্রস্তাব চেয়েছে অধিদপ্তর - dainik shiksha প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম সংশোধনের প্রস্তাব চেয়েছে অধিদপ্তর এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের তথ্য যাচাইয়ে ৭ সদস্যের কমিটি - dainik shiksha এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের তথ্য যাচাইয়ে ৭ সদস্যের কমিটি আলিমের সিলেবাস ও মানবণ্টন দেখুন - dainik shiksha আলিমের সিলেবাস ও মানবণ্টন দেখুন শূন্যপদের তথ্য দিতে ই-রেজিস্ট্রেশনের সময় বাড়ল - dainik shiksha শূন্যপদের তথ্য দিতে ই-রেজিস্ট্রেশনের সময় বাড়ল স্নাতক ছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নয়: প্রজ্ঞাপন জারি - dainik shiksha স্নাতক ছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নয়: প্রজ্ঞাপন জারি নবসৃষ্ট পদে এমপিও জটিলতা নিয়ে যা বললেন শিক্ষকরা (ভিডিও) - dainik shiksha নবসৃষ্ট পদে এমপিও জটিলতা নিয়ে যা বললেন শিক্ষকরা (ভিডিও) প্রাথমিকে প্রশিক্ষিত ও প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকদের বেতন একই গ্রেডে - dainik shiksha প্রাথমিকে প্রশিক্ষিত ও প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকদের বেতন একই গ্রেডে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন please click here to view dainikshiksha website