নিরাপত্তা চেয়ে স্কুল শিক্ষিকার সংবাদ সম্মেলন - বিবিধ - Dainikshiksha

নিরাপত্তা চেয়ে স্কুল শিক্ষিকার সংবাদ সম্মেলন

নাটোর প্রতিনিধি |

নাটোর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমসের চাঁদাবাজী ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থেকে বাঁচতে এবং জীবনের নিরাপত্তা ও সঠিক বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে স্কুল শিক্ষিকা রোজী বেগম। সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রলীগ নেতার অব্যাহত চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ ওই শিক্ষিকা বিচারের দাবিতে অন্তসত্বা অবস্থায় দ্বারে দ্বারে ঘুরে তার গর্ভের শিশু অকালে মারা যাওয়ার বিচার চেয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এছাড়া রোজী ও ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেন, প্রকাশ্যে দিবালোকে জেমসসহ আসামিরা ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং হুমকি ধামছি দিয়ে বেড়ালেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না।

তবে পুলিশ বলেছে আসামিদের গ্রেফতারের জন্য তারা তৎপর রয়েছেন। শনিবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে নাটোর শহরের দক্ষিণ বড়গাছা এলাকায় তার ভাড়াটিয়া বাসায় সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে স্কুল শিক্ষিকা রোজিনা খাতুন এসব বলে কথা বলেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রোজী বেগমের স্বামী মনিরুজ্জামান সেন্টু, তার বাবা শহিদুল্লাহ, মা সাবেক ই্উপি সদস্য হাজেরা বেগম, গুলিবিদ্ধ সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহরিয়ার হোসেন রিয়নের মা আফরোজা বেগম, বড়ভাই আতিকুর রহমানসহ এলাকার ভুক্তভোগীরা।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী স্কুল শিক্ষিকা রোজী বেগম আরো অভিযোগ করে বলেন, গত দুই বছর ধরে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমস বিভিন্ন কায়দায় তার স্বামী ঠিকাদার মনিরুজ্জামান সেন্টুকে বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি দেখিয়ে জিম্মি করে লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদাবাজি করে আসছে। এছাড়া রাকিবুল হাসান জেমস্ ও তার চাচাতো ভাই রনি, সালমান, রাজিব, এবং তাদের বন্ধু রনির পেটুয়া বাহিনীর কাছে জিম্মি হয়ে অসহায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন তারা। এ বিষয়ে এর আগে মামলা করতে গেলেও অজ্ঞাত কারনে থানায় মামলা নেওয়া হয়নি।

এছাড়া এর আাগে চাদাবাজীর ঘটনায় প্রাণ নাশের ভয়ে আদালতে মামলা করতে পারেননি ওই শিক্ষিকা। সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়, ২০১৬ সাল থেকে অদ্যাবধি ওই দম্পতির কাছ থেকে বিভিন্ন সময় প্রায় ৫০ লক্ষ টাকার বেশি চাঁদাবাজি করেছেন জেমস ও তার সহযোগীরা। সর্বশেষ গত ৩ ডিসেম্বর রাকিবুল হাসান জেমস ও তার সহযোগীরা রোজী বেগমের স্বামীর ড্রাম ট্রাক ছিনতাই করে এবং ৪ ডিসেম্বর দক্ষিণ বড়গাছা এলাকায় ওই ট্রাকের বডি খুলে খুলে বিক্রি করাকালে সেখানে উপস্থিত হয়ে প্রতিবাদ করেন রোজী বেগম।

এ সময় জেমস ও তার সহযোগীরা অস্ত্রহাতে রোজীকে মারপিট করে ধাওয়া করে। এ সময় জেমস তাকে লক্ষ করে গুলি করলে রোজীর ভাতিজা সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহরিয়ার হোসেন রিয়ন তার ডান পায়ে গুলিবিদ্ধ হন। এ ঘটনায় নাটোর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হলেও অভিযুক্তরা এখনও প্রকাশ্যে দিবালোকে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এছাড়া জেমসের গুলিবর্ষনে সাবেক ছাত্রনেতা আহত হয়। কিন্তু পুলিশ ঘটনাস্থল পিস্তল ও ৩ রাউন্ড গুলি পরিত্যাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বলে দাবী করে। তিনি সাংবাদিকদের সামনে প্রশ্ন রেখে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে তাজাগুলিসহ পিস্তল কিভাবে পরিত্যক্ত হয়ে যায়?

এদিকে এ ঘটনার পর গুলিবিদ্ধ রিয়নের বাবার দায়ের করা মামলাটি পুলিশ রুজু করলেও রোজির মামলা এখনো গ্রহণ করেনি। এছাড়া মামলা থাকার পরও জেমস ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং নতুন করে চাঁদা দাবী করছে। স্কুলে যাওয়ার পথে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করছে। বারবার পুলিশকে জানালেও পুলিশ আসামীদের গ্রেফতারে কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না। এছাড়া রোজিনা খাতুন জানান, তার ছিনতাই হওয়া ট্রাকের সকল বৈধ কাগজপত্র থাকলেও পুলিশ সেটি থানায় আটক করে রেখেছে।

রোজি জানান, ছাত্রলীগ নেতা জেমসের অব্যাহত চাঁদাবাজি ও নির্যাতনে বিচার চাইতে গিয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরতে গিয়ে তার ৭ মাসের অন্তস্বস্তা কালীন সময়ে রক্তক্ষরণ হয়ে তার মৃত সন্তান প্রসব করে। এ সময় তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। তিনি বলেন, এই বিচার আমি কার কাছে চাইব।

এমন জীবনের নিরাপত্তা ও অভিযুক্তদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক বিচার চেয়েছেন ওই শিক্ষিকা।

সংবাদ সম্মেলনে এ সময় এলাকার ভুক্তভোগী অনেকেই সাংবাদিকদের কাছে জেমস এর চাঁদাবাজী ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বর্ণনা দিয়ে বিচার দাবি করেন।

এদিকে চাঁদাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমস বলেন, আমি রোজী বেগম ও তার স্বামীর কাছ থেকে ব্যবসায়িক পার্টনার হিসাবে ২০ লক্ষ টাকা পাই, তাই ট্রাকটি নিয়ে ছিলাম। তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা তার সুনাম ক্ষুন্ন করতে এমন অপপ্রচার করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী জালাল উদ্দিন বলেন, আসামীদের খুজে পাওয়া যাচ্ছেনা। তাকে গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে। আর ট্রাকটি যেহেতু মামলার সাথে সম্পর্কযুক্ত তাই আটক করা হয়েছে। বাদী ইচ্ছা করলে আদালতের মাধ্যমে ট্রাকটি তার জিম্মায় নেয়ার আবেদন করতে পারেন। আর পরীক্ষা করে পিস্তল ও গুলি জেমসের হলে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা করা হবে।

এছাড়া এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন জানান, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমসকে গ্রেফতারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। উদ্ধারকৃত পিত্তল ও গুলি জেমসের কিনা তা পরীক্ষা নীরিক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

দুর্নীতিবাজরা সাবধান হয়ে যান: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha দুর্নীতিবাজরা সাবধান হয়ে যান: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী অর্ধাক্ষর শিক্ষকরা সিকিঅক্ষর শিক্ষার্থী তৈরি করছেন: যতীন সরকার - dainik shiksha অর্ধাক্ষর শিক্ষকরা সিকিঅক্ষর শিক্ষার্থী তৈরি করছেন: যতীন সরকার অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ নিয়ে যা বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষ নিয়োগ নিয়ে যা বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী ১৮১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু - dainik shiksha ১৮১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন ২০ ফেব্রুয়ারি - dainik shiksha স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন ২০ ফেব্রুয়ারি প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ - dainik shiksha প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ১৫ মার্চ ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website