নির্বাচনের আগে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসন দাবি - সমিতি সংবাদ - Dainikshiksha

নির্বাচনের আগে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসন দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক |

নির্বাচনের আগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেড ও সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেডে বেতন নির্ধারণের ঘোষণাসহ সব ধরনের বৈষম্য নিরসনের দাবি করেছে বঙ্গবন্ধু প্রাথমিক শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ। শুক্রবার (৯ নভেম্বর) সকাল ১০টায় রাজধানীর খিলগাঁও হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে অনুষ্ঠিত সভায় এ দাবি জানানো হয়।

বঙ্গবন্ধু প্রাথমিক শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের আহ্বায়ক মো. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক গোলাম মোস্তফা, সদস্য সচিব সুব্রত রায়, উপদেষ্টা আনোয়ারুল ইসলাম তোতা, ঢাকা মহানগরীর আহ্বায়ক এম.এ ছিদ্দিক মিয়া, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো. গোলাম মোস্তফা, মুহম্মদ মিজানুর রহমান, বাধন খান পাঠান ববি, মো. জাহাঙ্গীর আলম খান, আবু সাঈদ মো. মাসুদুর রহমান, আ.ফ.ম তোহা পাটোয়ারী, খুরশীদা আক্তার জাহান, দিলরুবা বেগম, আরিফুর রহমান সুমন, মো. আবুল কালাম আজাদ, মো. ইন্তাজ উদ্দিন, সো. সেলিম হোসেন প্রমুখ। 

সভায় ২০১৯ খ্রিস্টাব্দের ছুটির তালিকায় তিন বছর পরপর শ্রান্তি বিনোদন ভাতা প্রাপ্তি নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে গ্রীষ্মকালীন ছুটি ১৫ দিন রাখা, প্রধান শিক্ষকের হাতে সংরক্ষিত ছুটি ৩ দিন রেখে প্রধান শিক্ষকের হাতেই পুর্ণ ক্ষমতা প্রদান, জাতীয় ও বিশেষ দিবসসমূহের তাৎপর্য সব শিক্ষার্থীদের ভালভাবে অনুধাবন করাতে বিদ্যালয় খোলা রেখে ওই দিবসসমূহের ছুটি অন্যান্য ছুটির সাথে সমন্বয় করার দাবি জানানো হয়।

 

এছাড়া সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয় আগামী ৩০ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু প্রাথমিক শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের নেতারা টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর কবর জিয়ারত  করবেন। এ উপলক্ষে সংগঠনের সদস্য সচিব সুব্রত রায়কে আহ্বায়ক, আরিফুর রহমান সুমন ও খুরশীদা আক্তার জাহানকে সদস্য করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়। 

‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website