নুসরাত হত্যা নিয়ে ডাকসুর কর্মসূচি দিতে দেখিনি: তোফায়েল - বিশ্ববিদ্যালয় - Dainikshiksha

নুসরাত হত্যা নিয়ে ডাকসুর কর্মসূচি দিতে দেখিনি: তোফায়েল

ঢাবি প্রতিনিধি |

ফেনীর সোনাগাজী মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহানকে হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) পক্ষ থেকে কোনো কর্মসূচির আয়োজন না করায় ব্যথিত হয়েছেন সাবেক ভিপি ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ।

তিনি বলেন, ‘নুসরাতকে হত্যা করা হয়েছে কিন্তু এটা নিয়ে আমি ডাকসুর কোনো নেতাকে আন্দোলন করতে দেখিনি। তোমাদের এ আচরণ আমাকে ব্যথিত করেছে এবং আহত করেছে।’

তোফায়েল আহমেদ ডাকসুর ভিপি থাকাকালীন বিভিন্ন স্মৃতিচারণ করেন। তিনি বলেন, ‘সে সময় শিক্ষকদের সঙ্গে আমাদের অনেক ভালো সম্পর্ক ছিল। আমরা শিক্ষকদের খুব শ্রদ্ধা করতাম এবং তারাও আমাদের স্নেহ করতেন। শিক্ষকরা কোনো দলাদলি করতেন না, তাই সবার শ্রদ্ধার ছিলেন। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে সোমবার এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তোফায়েল আহমেদ। তবে কোটা সংস্কার আন্দোলনের ব্যানারে ভিপি নুরুল হক নূর এবং ফেনী জেলা সংগঠনের ব্যানারে স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সাদ বিন কাদের চৌধুরী নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে পৃথক কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন। সার্বিকভাবে কোনো কর্মসূচি দেয়নি ডাকসু।

ডাকসু ও হল সংসদে প্রতিনিধিদের নিয়ে ‘অভিজ্ঞতা শুনি সমৃদ্ধ হই’ শিরোনামে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ডাকসুর সাবেক জিএস ড. মোশতাক হোসেন। এ ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন আবাসিক হলের প্রাধ্যক্ষ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের ২৫ জন সদস্য ও হল সংসদের নির্বাচিত ২৩৪ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

ডাকসু ও হল সংসদের ভিপি, জিএস এবং এজিএসদের উদ্দেশে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘মনে রাখবে তোমরা শুধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি না বরং দেশের সব শিক্ষার্থীর প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করবে।’

এ সময় হল থেকে অছাত্র বের করে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার যখন ছাত্রত্ব শেষ হয়ে যায় সঙ্গে সঙ্গে হল ছেড়ে দেই। আমার ছাত্রত্ব শেষ হওয়ার পর আমি একদিনও হলে থাকিনি। তাই আমি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও ডাকসু নেতাদের প্রতি আহ্বান জানাই তারা যেন হলে থাকা সব অছাত্র বের করে দেয়।’

 

 

 

সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ও কল্যাণ ট্রাস্ট অফিস ঘেরাওয়ের হুমকি - dainik shiksha সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ও কল্যাণ ট্রাস্ট অফিস ঘেরাওয়ের হুমকি চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি নীতিমালা জারি - dainik shiksha কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি নীতিমালা জারি একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে পুলিশ গুরুত্ব দিলে নুসরাতের প্রাণহানি ঘটতো না: সংসদীয় কমিটি - dainik shiksha পুলিশ গুরুত্ব দিলে নুসরাতের প্রাণহানি ঘটতো না: সংসদীয় কমিটি প্রাথমিকের ৪২৭ শিক্ষকের বদলি - dainik shiksha প্রাথমিকের ৪২৭ শিক্ষকের বদলি শিক্ষক নিয়োগে অর্থ লেনদেনে মন্ত্রণালয়ের সতর্কতা জারি - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগে অর্থ লেনদেনে মন্ত্রণালয়ের সতর্কতা জারি ভুয়া আয়কর রিটার্ন দাখিল, শিক্ষকের এমপিও বন্ধ - dainik shiksha ভুয়া আয়কর রিটার্ন দাখিল, শিক্ষকের এমপিও বন্ধ অতিরিক্ত কর্তন আদেশ নিয়ে যা বললেন শিক্ষক ইউনিয়ন সভাপতি - dainik shiksha অতিরিক্ত কর্তন আদেশ নিয়ে যা বললেন শিক্ষক ইউনিয়ন সভাপতি অতিরিক্ত কর্তন আদেশ বাতিল না হলে আন্দোলনের হুমকি - dainik shiksha অতিরিক্ত কর্তন আদেশ বাতিল না হলে আন্দোলনের হুমকি ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই অতিরিক্ত কর্তন আদেশ বাতিল হবে’ - dainik shiksha ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই অতিরিক্ত কর্তন আদেশ বাতিল হবে’ প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী মাসেই - dainik shiksha প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা আগামী মাসেই একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির আবেদন ১২ মে থেকে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website