পরিত্যক্ত বিদ্যালয় ভবনে চলছে পাঠদান - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

পরিত্যক্ত বিদ্যালয় ভবনে চলছে পাঠদান

বরগুনা প্রতিনিধি |

বরগুনার আমতলীর এম ইউ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একটি পরিত্যক্ত ভবনে পাঠদান চলছে। আট শতাধিক শিক্ষার্থী ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস করছে ঐ ভবনে। দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে ঘটে যেতে পারে বড়ো ধরনের দুর্ঘটনা।

উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আমতলী এম ইউ মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি ১৯৬৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। শুরুতে একটি টিনের ছাউনির ঘরে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম চললেও ১৯৮৫ খ্রিষ্টাব্দে একটি একতলা ভবন নির্মাণ করা হয়। স্থানসংকুলান না হওয়ায় ২০০০ খ্রিষ্টাব্দে ঐ ভবনের ছাদে নিজেদের অর্থায়নে আরো একটি আধাপাকা টিনশেড ভবন নির্মাণ করা হয়। 

বর্তমানে ঐ একতলা ভবনের বয়স ৩৪ বছর। বেশি পুরাতন হওয়ায় ২০১০ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ঐ ভবনের পিলার, ভিম ও পলেস্তারা খসে পড়তে থাকে। এতে পাঠদান ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে। ২০১৭ খ্রিষ্টাব্দে তত্কালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মুশফিকুর রহমান ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে পাঠদান বন্ধের নির্দেশ দেন। কিন্তু স্থানসংকুলান না হওয়ায় গত দুই বছর ধরে পরিত্যক্ত ভবনেই পাঠদান চালিয়ে যাচ্ছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর উপজেলা প্রকৌশলী মো. নজরুল ইসলাম ঐ বিদ্যালয় ভবন পরিদর্শন করে ছাদ অপসারণ করা প্রয়োজন মর্মে প্রতিবেদন দেন। প্রতিবেদনের আলোকে বর্তমান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরা পারভীন গত ৩ অক্টোবর বিদ্যালয়ের ছাদ ও ভবন অপসারণের জন্য বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এহতেসামুল হক সামস, আনিকা, আলভি, সিয়াম ও ঐশর্য্য জানান, ঝুঁকি নিয়ে পরিত্যক্ত ভবনে ক্লাস করতে হচ্ছে। দ্রুত নতুন ভবন নির্মাণের দাবি জানাই।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাশির উদ্দিন বলেন, বিদ্যালয়ে দুটি ভবন রয়েছে। তার মধ্যে একটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। একটি ভবনে স্থানসংকুলান না হওয়ায় বাধ্য হয়ে পরিত্যক্ত ভবনে পাঠদান করাতে হচ্ছে। তবে ভবন অত্যধিক ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় বড়ো ধরনের দুর্ঘটনার কথা বিবেচনা করে রবিবার থেকে ক্লাস বন্ধ করে দিয়েছি। কিন্তু কোথায় শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেব ভেবে পাচ্ছি না।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মনিরা পারভীন বলেন, ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ বিধায় পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। এ অবস্থা উপজেলা শিক্ষা প্রকৌশলীকে জানানো হয়েছে।

সাবেক ভিপি নূরের বিরুদ্ধে অপহরণ-ধর্ষণ ও ডিজিটাল আইনে আরেক মামলা - dainik shiksha সাবেক ভিপি নূরের বিরুদ্ধে অপহরণ-ধর্ষণ ও ডিজিটাল আইনে আরেক মামলা ১২ শিক্ষক-কর্মচারীর এমপিও বাতিল - dainik shiksha ১২ শিক্ষক-কর্মচারীর এমপিও বাতিল শিক্ষক নিবন্ধন সনদ যাচাইয়ের সেই বিজ্ঞপ্তি স্পষ্ট করল এনটিআরসিএ - dainik shiksha শিক্ষক নিবন্ধন সনদ যাচাইয়ের সেই বিজ্ঞপ্তি স্পষ্ট করল এনটিআরসিএ মুজিব জন্মশতবর্ষের কেক নিয়ে উধাও হওয়া সেই অধ্যক্ষ বরখাস্ত - dainik shiksha মুজিব জন্মশতবর্ষের কেক নিয়ে উধাও হওয়া সেই অধ্যক্ষ বরখাস্ত জাল নিবন্ধন সনদে শিক্ষকতা, সরকারিকরণের পর ধরা - dainik shiksha জাল নিবন্ধন সনদে শিক্ষকতা, সরকারিকরণের পর ধরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের : মন্ত্রিপরিষদ সচিব - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের : মন্ত্রিপরিষদ সচিব প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন উচ্চধাপে নির্ধারণ শিগগিরই : গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন উচ্চধাপে নির্ধারণ শিগগিরই : গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় স্কুল-কলেজের অনলাইন ক্লাস নিয়ে অধিদপ্তরের যেসব নির্দেশনা - dainik shiksha স্কুল-কলেজের অনলাইন ক্লাস নিয়ে অধিদপ্তরের যেসব নির্দেশনা এমপিওভুক্ত হচ্ছেন আরও ২৪১ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন আরও ২৪১ শিক্ষক please click here to view dainikshiksha website