পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের আগে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির নেপথ্যে... - ভর্তি - Dainikshiksha

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের আগে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির নেপথ্যে...

নিজস্ব প্রতিবেদক |

ঢাকাসহ সব বড় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষ  ভর্তির আগে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি শুরু করার নেপথ্যে নানা কাহিনীর সন্ধান পাওয়া গেছে। কোটি কোটি টাকার খেলা আর শিক্ষার্থী-খরায় ভোগা কতিপয় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে শিক্ষার্থী পাইয়ে দেয়ার গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। কয়েকবছর ধরে কতিপয়তন্ত্রে বুঁদ হওয়া জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এমন সিদ্ধান্তে কৃষক, শ্রমিক, মেহনতি মানুষের মেধাবী সন্তানদের  বড় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্নভঙ্গ হচ্ছে । তবে, ধনীর পরিবারের সন্তানদের এতে কোনও সমস্যা হয়না। 

দৈনিক শিক্ষার অনুসন্ধানে জানা যায়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়াধীন কলেজগুলোতে আগে ভর্তি হওয়ার ফলে আর্থিকভাবে সংকটে থাকা পরিবারগুলো তাদের সন্তানদের জন্য দ্বিতীয়বার ভর্তির টাকা জোগাড় করতে পারে না।  সুযোগ পেয়েও ঢাকাসহ বড় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া হয়না তাদের। কারণ, প্রথমবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজে ভর্তি হওয়ার পেছনে কারো বাবাকে চড়া সুদে টাকা নেয়া বা অথবা ধার করার করুণ কাহিনী থাকে। ভর্তি  বাতিল করতেও টাকা লাগে বড় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতেও টাকা লাগে। যা দরিদ্র অভিভাবকদের পক্ষে জোগাড় করা সম্ভব হয় না প্রায়ই। 

শিক্ষিত দুনিয়ায় না থাকলেও পরীাক্ষা ছাড়াই উচ্চশিক্ষায় ভর্তি নেয় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। কয়েকবছর ধরে চলছে এমন উদ্ভট পদ্ধতি। অধীনস্থ কলেজগুলোতে এসএসসি ও এইচএসসির জিপিএতে এগিয়ে থাকারা ভর্তি হয়ে পরবর্তীতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়ে সেখানে চলে যায়, ফলে আসনগুলো শূন্য পড়ে থাকে, যোগ্যতাসম্পন্ন ভর্তি বঞ্চিতরাও সেখানে ভর্তি হবার আর সুযোগ থাকে না। এই সুযোগগুলো নেয় কতিপয় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যলয়। যাদের সঙ্গে রয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কতিপয় কর্তারা ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ময়মনসিংহের আনন্দমোহন, সরকারি তিতুমীর কলেজ ও ইডেন কলেজের একাধিক শিক্ষক দৈনিক শিক্ষাকে বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এহেন ভর্তি অসৎ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। দরিদ্র পরিবারে জন্মানো মেধাবীদের বড় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ বন্ধ করার জন্যই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আগেভাগে ভর্তি করছে। 

অভিযোগের সুরে শিক্ষকরা বলেন, ইতিমধ্যে লাখ লাখ শিক্ষার্থীকে পরীক্ষার্থী বানিয়ে কথিত সেশনজ্যাম কমিয়ে গ্রাজুয়েট সনদ দিয়ে বাজারে ছেড়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। চাকরিদাতারা এই গ্রাজুয়েটদের যোগ্যতা দেখে ক্ষুব্ধ হচ্ছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়াধীন কলেজগুলোর ওপর। কিন্তু সরকারি কলেজ শিক্ষকদের এখানে কিছুই করার নেই। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি নেয়, পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করে, পরীক্ষা নেয় আর ফল প্রকাশ করে। পোষ্য গবেষকদের দিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়কে রেলগাড়ীর সাথে তুলনা করান। আবার সেই অসত্য বাক্যগুলো কৌশলে মন্ত্রী-মিনিস্টারদের মুখ দিয়ে আমাইয়ের অনুষ্ঠানেও বলান। সংবাদপত্রের কার্ডধারী শিবিরকর্মীদের দিয়ে সেই রেলগাড়ীর গতিময়তার সংবাদও প্রচার করান। সেশনজ্যাম কমানোর কথিত কৃতিত্ব প্রচার করান। সংবাদপত্রের কার্ডধারী শিবিরকর্মীদের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পদে চাকরিও দন।   

জানা যায়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোতে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন গ্রহণ আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে। ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে ভর্তির আবেদন গ্রহণ চলবে। প্রার্থীদের অনলাইন আবেদন ফরম আগামী ১৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা দিতে হবে। আর ১ অক্টোবর থেকে অনার্স ১ম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে। এছাড়া আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ভর্তির আবেদন গ্রহণ শুরু করবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। 

রোববার (২৮ জুলাই) সকালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সাধারণ সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ।   

সুত্র আরও জানায়. আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ১ম বর্ষ ভর্তির অনলাইন আবেদন গ্রহণ শুরু হবে। আগামী ৯ অক্টোবর পর্যন্ত প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন প্রার্থীরা। এসব কোর্সে ভর্তিল অনলাইন আবেদন ফরম ১০ অক্টোবরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা দিতে হবে। প্রফেশনাল অনার্স কোর্সে ১ম বর্ষের ক্লাস আগামী ২৪ অক্টোবর শুরু হবে বলেও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে সভায়।

 

অপরদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২০ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার), খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর (শনিবার), গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ১৩ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার), ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৭ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার), চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ১৪ সেপ্টেম্বর (শনিবার) এবং চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (অংকন) ২৮ সেপ্টেম্বর (শনিবার) অনুষ্ঠিত হবে। 

ঢাবির ফল প্রকাশ ও ভর্তি শুরু হওয়ার অনেক আগেই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি শেষ ও ক্লাস শুরু হবে। 

তিন শর্তে অস্থায়ী এমপিও পাচ্ছে ১৭৬৩ প্রতিষ্ঠান, আলাদা পরিপত্র - dainik shiksha তিন শর্তে অস্থায়ী এমপিও পাচ্ছে ১৭৬৩ প্রতিষ্ঠান, আলাদা পরিপত্র প্রাথমিক শিক্ষকদের চাকরি করতে হবে চর এলাকায়, আসছে চর ভাতা - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষকদের চাকরি করতে হবে চর এলাকায়, আসছে চর ভাতা ম্যানেজিং কমিটি প্রবিধানমালা সংশোধনের সিদ্ধান্ত ২২ আগস্ট - dainik shiksha ম্যানেজিং কমিটি প্রবিধানমালা সংশোধনের সিদ্ধান্ত ২২ আগস্ট বিএড ৩য়-৫ম সেমিস্টারের ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৫ আগস্ট থেকে - dainik shiksha বিএড ৩য়-৫ম সেমিস্টারের ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৫ আগস্ট থেকে সাত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তির আবেদন শুরু ১০ সেপ্টেম্বর - dainik shiksha সাত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তির আবেদন শুরু ১০ সেপ্টেম্বর এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি পরীক্ষা ৪ অক্টোবর - dainik shiksha এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি পরীক্ষা ৪ অক্টোবর কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে - dainik shiksha কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে ঢাবিতে ১ম বর্ষ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি - dainik shiksha ঢাবিতে ১ম বর্ষ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website