পুরনো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে হবে : আখতারউজ্জামান - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

পুরনো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে হবে : আখতারউজ্জামান

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

বুয়েটে নিষিদ্ধ করা হয়েছে ছাত্ররাজনীতি। দাবি উঠেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশের শিক্ষাঙ্গনে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করার। তবে ডাকসুর সাবেক ভিপি-জিএসরা বলছেন, ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করাই সমাধান নয়। বন্ধ করতে হবে ক্যাডারভিত্তিক, দখলদারিত্ব ও পেশিশক্তির রাজনীতি। শনিবার (১২ অক্টোবর) বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানা যায়। ডাকসুর সাবেক নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছেন- মাহমুদ আজহার, রফিকুল ইসলাম রনি ও রুহুল আমিন রাসেল।

সাক্ষাৎকারে আরও জানা যায়, ডাকসুর সাবেক ভিপি ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আখতারউজ্জামান বলেছেন, ছাত্ররাজনীতি বন্ধ  করে সমস্যার সমাধান হবে না। ছাত্ররাজনীতির ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে  হবে। ছাত্রদের হাতে ছাত্র রাজনীতি তুলে দিতে হবে। বল প্রয়োগ, ক্ষমতার প্রভাব বন্ধ করতে হবে। ছাত্রদের হানাহানি বাদ দিয়ে আদর্শ ও নীতির রাজনীতি করতে হবে।

বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার হত্যার পর ছাত্ররাজনীতি বন্ধের দাবি উঠেছে। গতকাল বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ডাকসুর সাবেক ভিপি আখতারউজ্জামান মনে করেন, ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করে সমস্যার কোনো সমাধান হবে না। ছাত্রদের সঠিক ও আদর্শভিত্তিক চর্চা করতে হবে। অসৎ আচরণ ও বল প্রয়োগ বন্ধ করতে হবে। ডাকসুর সাবেক ভিপি বলেন, আমরা যখন ছাত্র ছিলাম, তখন যে বুয়েটকে দেখেছি, এখন সে অবস্থায় নেই। আগে আমরা শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিতাম, ক্যালেন্ডার দিতাম। রুটিন দিতাম। ফুল দিয়ে বরণ করে নিতাম। মেধা, বিনয় দিয়ে ছাত্রদের সংগঠনে টানতাম। এখন সেই পরিস্থিতি চোখে পড়ে না। আগে ত্যাগ ও মূল্যবোধের রাজনীতি হতো। এখন সেই পরিবেশ চোখে পড়ে না। আওয়ামী লীগের এই কেন্দ্রীয় নেতা বলেন, ছাত্রলীগের প্রত্যেক নেতা-কর্মীর উচিত জাতির পিতার আদর্শকে অনুসরণ করা।

এ জন্য তারা এখন থেকেই একটা উদ্যোগ নিতে পারে। যেমন আগামী ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ১৭ মার্চ পর্যন্ত মুজিব বর্ষ পালন করা হবে। মুজিব বর্ষে জাতির পিতার অসমাপ্ত আত্মজীবনী ও কারাগারের রোজনামচা বইটি পাঠ্য পুস্তক হিসেবে নিতে পারে। শিক্ষার্থীদের মাঝে জাতির পিতার আদর্শ ছড়িয়ে দিতে হবে। ক্ষমতা যে ভোগের বস্তু নয়, তা জানাতে হবে। জাতির পিতার ত্যাগ ও আদর্শকে ধারণ করে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের পথ চলতে হবে। ছাত্রনেতাদের ছাত্রসুলভ আচরণ করতে হবে।

৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন - dainik shiksha ৪২ শতাংশই অন্য চাকরি না পেয়ে শিক্ষকতায় এসেছেন র‌্যাগিং রোধে বিশেষ সেলের কথা বললেন শিক্ষামন্ত্রী, ইউজিসি দিল নির্দেশনা - dainik shiksha র‌্যাগিং রোধে বিশেষ সেলের কথা বললেন শিক্ষামন্ত্রী, ইউজিসি দিল নির্দেশনা ২৫ অক্টোবর থেকে কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ - dainik shiksha ২৫ অক্টোবর থেকে কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ শিক্ষার্থীদের অন্দোলনের মুখে ভিসি নাসিরের ভাতিজার পদত্যাগ - dainik shiksha শিক্ষার্থীদের অন্দোলনের মুখে ভিসি নাসিরের ভাতিজার পদত্যাগ ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ - dainik shiksha ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ ‘প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া’ বলে তোপের মুখে পালালেন অধ্যক্ষ - dainik shiksha ‘প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া’ বলে তোপের মুখে পালালেন অধ্যক্ষ এমপিওভুক্ত হচ্ছেন আরও শতাধিক শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন আরও শতাধিক শিক্ষক ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত - dainik shiksha ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website